বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে ব্যাটিং অর্ডারে উপরের দিকে তুলে আনলে সেই ম্যাচের ফলাফল অন্য রকম হতে পারত। অন্তত তেমনটাই মত ভারতের প্রাক্তন ওপেনার বীরেন্দ্র সহবাগের। ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্তেও অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন তিনি।

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে কিউয়িদের ২৪০ রান তাড়া করতে নেমে ভারত থেমে যায় ১৮ রান দূরে। সে দিন ধোনিকে পাঠানো হয় সাত নম্বরে। এখানেই বীরুর আপত্তি। সহবাগ বলেন, ‘‘নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ধোনি যদি আগে ব্যাট করতে নামত, তা হলে পরিস্থিতি অন্য রকম হতেও পারত। ভারত যখন ইনিংস গড়ার কাজ করছিল, তখন ধোনিকে পাঠানো যেত।’’

সাত নম্বরে ধোনিকে না পাঠিয়ে হার্দিক পাণ্ড্যকে পাঠানোর কথা বলছেন সহবাগ। পাণ্ড্যকে ব্যাটিং অর্ডারে নীচের দিকে পাঠানোর ব্যাখ্যা দিয়ে ভারতের প্রাক্তন ওপেনার বলছেন, ‘‘ব্যাটিং অর্ডারে নীচের দিকে হার্দিককে পাঠানো যেত। তা হলে প্রতি ওভারে ৯ রানও তাড়া করা যেত। পাণ্ড্য ও পন্থকে নীচের দিকে পাঠানো হলে বড় রান তাড়া করা সম্ভব হত।’’

আরও পড়ুন: জিতলেই ইতিহাস, অ্যান্টিগায় রেকর্ডের সামনে বিরাট কোহালি

আরও পড়ুন: পাকিস্তান ক্রিকেটের নতুন কোচ হতে পারেন প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার

শেষ চারের লড়াইয়ে পাণ্ড্য ও পন্থ জমে যাওয়ার পরে উইকেট ছুড়ে দেন। দ্রুত উইকেট চলে যাওয়ার পরে ধোনি ও রবীন্দ্র জাডেজা ইনিংস গোছানোর চেষ্টা করেন। যখন মনে হচ্ছিল, ভারত হয়তো ম্যাচটা বের করে নেবে ঠিক সেই সময়েই ধোনি রান আউট হন। ম্যাচ আর জেতা সম্ভব হয়নি ভারতের পক্ষে।