যাঁরা ক্যামেরার পিছনে থেকে এক একটা মূহুর্তকে চিরস্মরণীয় করে রাখেন, সেই রকম এক ক্যামেরাম্যান নিজেই ক্যামেরা বন্দি হয়ে এখন রীতিমতো সেলিব্রিটি। দক্ষিণ আফ্রিকা-বাংলাদেশের ম্যাচে রবিবার ডু প্লেসির মারা একটি ছয়, মাঠের বাইরে এক হাতে লুফে নেন এক ক্যামেরাম্যান।

প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে হারার পর রবিবার দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই ম্যাচেই এক সংবাদ সংস্থার আলোকচিত্রী ইয়ান কিংটন ওভাল স্টেডিয়ামের প্যাভিলিয়ন এন্ডে ছবি তোলার দায়িত্বে ছিলেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্যাপ্টেন ফ্যাফ ডু প্লেসি ব্যাট করতে নেমে প্যাভিলিয়ন এন্ডের দিকে একটি ছয় মারেন। সেটি পৌঁছে যায় ক্যামেরাম্যানদের কাছে। বেশির ভাগ সময়ই বাউন্ডারি লাইনের ধারে দায়িত্বে থাকা ক্যামেরাম্যানরা ক্যামেরা বাঁচিয়ে বলটি থেকে সরে যাওয়ার চেষ্টা করেন। ইয়ানও তাই করতে পারতেন। কিন্তু তিনি মনে হয় নিজের অজান্তেই একটু অন্য রকম ভাবে ছয়টি উপভোগ করতে চেয়েছিলেন। বাঁ হাতে ক্যামেরা ধরে রেখেই ডান হাতে লুফে নেন বাউন্ডারি লাইন পেরিয়ে আসা বলটি।

আরও পড়ুন : শকুন মারার অভিযোগে অভিনব শাস্তি আদালতের

আরও পড়ুন : জানালা ভেঙে বাড়িতে ঢুকে গেল ১১ ফুটের আতঙ্ক!

প্রতি বলের মতো এই বলটিকেও প্যাভিলিয়নের একাধিক টিভি ক্যামেরা ফলো করছিল। সেই ক্যামেরাতেই ধরা পড়ে ঘটনাটি। কয়েক সেকেন্ডের সেই ভিডিয়ো প্রকাশ করা হয়েছে আইসিসি-র টুইটার হ্যান্ডেলে। সেই সঙ্গে পোস্টটিতে লেখা হয়েছে, মনে হচ্ছে ভাল ক্যাচ ধরার ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতার মুখে পড়তে চলেছেন বেন স্টোকস।

 

ইংল্যান্ডের বেন স্টোকস বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে একটি দুর্দান্ত ক্যাচ নেন। প্রায় সাত ফুট লাফিয়ে তাঁর ধরা ওই অসাধারণ ক্যাচটিকে এখনও পর্যন্ত এই বিশ্বকাপের সেরা।

আর এদিন ক্যামেরাম্যান ইয়ানের ভিডিয়োটি প্রকাশ পেতেই ভাইরাল হতে সময় নেয়নি। পরে জানা যায় ইয়ানের পরিচয়ও। ইয়ান জানিয়েছেন, তিনি কোনও দিন সে ভাবে ক্রিকেট খেলেননি। এই ভিডিয়ো প্রকাশ পাওয়ার পর তাঁর ফোনে অভিনন্দনের বন্যা বইছে। আর এই ক্ষণিকের খ্যাতিতে তিনি যে খুশি তাও গোপন করেননি।