যেন এই সেদিন! ইমরান খানের পাকিস্তানের বিরুদ্ধে করাচিতে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল 'বিস্ময় বালক' সচিন তেন্ডুলকরের। সেটা ১৯৮৯ সালের ১৫ নভেম্বর। ১৬ বছর বয়সী সচিন প্রথমবার নেমেছিলেন দেশের হয়ে।

তারপর কেটে গিয়েছে অনেক বছর। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সচিনের অভিষেকের ২৯ বছর হল বৃহস্পতিবার। আর তা নিয়েই ক্রিকেটমহলে চলল চর্চা। স্মৃতির সরণি বেয়ে পিছনে হাঁটলেন খোদ 'মাস্টার ব্লাস্টার'ও।

অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসে ছয় নম্বরে নেমে সচিন করেছিলেন ১৫ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ের সুযোগ আসেনি। দুই ইনিংস মিলিয়ে মোট পাঁচ ওভার বল করেন সচিন। কোনও উইকেট নেননি। দেন ২৫ রান। ম্যাচ ড্র হয়। এই টেস্টেই অভিষেক হয় পাকিস্তানের পেসার ওয়াকার ইউনিসের। ফয়সলাবাদে পরের টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৫৯ করেছিলেন সচিন।

আরও পড়ুন: আইপিএল নিয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নয়া নিয়ম, সংশয়ে স্মিথ-ওয়ার্নারদের ভবিষ্যত্​

আরও পড়ুন: লারা-সচিনের মতোই কোহালি, বলছেন স্টিভ

 

সেই টেস্টের ব্যাটিংয়ের কয়েকটা ছবি পোস্ট করে এদিন সচিন টুইট করেন, "প্রত্যেক বছরই এই দিনে অভিষেকের অনেক স্মৃতি ভেসে ওঠে। দেশের হয়ে খেলা গর্বের। ২৪ বছর ধরে দেশের প্রতিনিধিত্ব করাও সম্মানের।" সচিনকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করে বিসিসিআই, আইসিসি-ও। ২৪ বছর দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলে টেস্টে ১৫৯২১ ও একদিনের ক্রিকেটে ১৮৪২৬ রান করেছেন সচিন। ১০০ আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি রয়েছে তাঁর। এটাও বিশ্বরেকর্ড। ২০১৩ সালে মুম্বইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে বিদায়ী টেস্ট খেলেন তিনি।

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)