×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১০ মে ২০২১ ই-পেপার

এই জয় আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে ফাইনালে, বলছেন ঈশ্বরন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৩ মার্চ ২০২০ ১৮:২৯
ফাইনালের পাসপোর্ট পাওয়ার পরে বাংলা অধিনায়ক ঈশ্বরন। ছবি— পিটিআই।

ফাইনালের পাসপোর্ট পাওয়ার পরে বাংলা অধিনায়ক ঈশ্বরন। ছবি— পিটিআই।

ঘরোয়া ক্রিকেটে অন্যতম শক্তিশালী দল কর্নাটক। লোকেশ রাহুল, মণীশ পাণ্ডের মতো জাতীয় দলের ক্রিকেটার রয়েছেন। করুণ নায়ার দলের অধিনায়ক। কেকেআর-খ্যাত প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা রয়েছেন।

এ রকম একটা দলের বিরুদ্ধে দাপট দেখিয়ে ম্যাচ জিতে নিয়েছে বাংলা। শেষ চারের এই জয় বঙ্গ ব্রিগেডকে ফাইনালে সাহায্য করবে বলেই মনে করছেন বাংলার অধিনায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরন। সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেছেন, ‘‘কর্নাটককে হারিয়ে আমরা ফাইনালে পৌঁছলাম। আমার মনে হয়, এই জয় আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেবে ফাইনালে।’’

বাংলা ক্রিকেটাররা একে অপরের সাফল্য দারুণ উপভোগ করেন। আর এই টিম বন্ডিংয়ের জোরেই ইডেন গার্ডেন্সে কর্নাটককে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে বাংলা। ঈশ্বরন রানে নেই। কোচ অরুণ লাল থেকে শুরু করে সতীর্থরা বলেছেন, ‘‘তুমি সামনে থাকো। আমরা তোমাকে ফলো করবো।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: বিধ্বংসী মুকেশ, ১৭৪ রানে জিতে ১৩ বছর পর রঞ্জির ফাইনালে বাংলা

দলের সুরটা তুলে ধরে বাংলার ক্যাপ্টেন বলছেন, ‘‘আমাদের বোলাররা ব্যক্তিগত সাফল্য নিয়ে ভাবিত নয়। প্রত্যেকে ভাবে বিপক্ষের ১০ উইকেট নিতে হবে। গতকাল ঈশান পোড়েল আক্রমণ করছিল। বাকিরা রান আটকে রাখার চেষ্টা করছিল। আজ মুকেশ অ্যাটাক করল। বাকিরা ওকে সাপোর্ট করে গেল।’’

বাংলার এরকম দুরন্ত বোলিং আক্রমণ প্রসঙ্গে ঈশ্বরন সাংবাদিক বৈঠকে এসেই বলে দিলেন, ‘‘আমাদের বোলিং দেশের সেরা। আমাদের যা বোলিং আক্রমণ তাতে যে কোনও দলকেই আমরা ১৫০-২০০ রানে আটকে রাখতে পারি।’’

আরও পড়ুন: টেল এন্ডারদের সঙ্গে ব্যাট করাও একটা শিল্প, বলছেন ম্যাচের সেরা অনুষ্টুপ

Advertisement