×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

করোনা আবহে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের দিনক্ষণ নিয়ে সংশয় বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা১৮ নভেম্বর ২০২০ ১৫:২৪
অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কি ঠিক সময়ে শুরু হবে? —ফাইল চিত্র।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কি ঠিক সময়ে শুরু হবে? —ফাইল চিত্র।

জানুয়ারিতে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন হওয়া নিয়ে সংশয় ক্রমশ বাড়ছে।

‘দ্য টেনিস চ্যানেল’-এ প্রকাশিত এক রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ভিক্টোরিয়ার সরকার ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়েও খেলোয়াড়দের আসার অনুমতি দেবে না। যা জানা গিয়েছে, তাতে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্তে হয়তো অনড় থাকবে সরকার। ফলে, ডিসেম্বরের শেষের দিকে অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছবেন খেলোয়াড়রা।

টেনিস অস্ট্রেলিয়া যদিও আশাবাদী যে ১৪ দিনের কোয়রান্টিনের সময় খেলোয়াড়রা অনুশীলন করতে পারবেন। ১২ জানুয়ারি থেকে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের যোগ্যতা অর্জনের পর্ব শুরু। ফলে, কোয়রান্টিনের সময় খেলোয়াড়রা অনুশীলন করতে  পারলে প্রস্তুতিতে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। কিন্তু, তা নিয়ে এখনও কোনও নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি। তবে তা এখনও সম্ভব। যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের সময় নিউইয়র্কে যেমন কোয়রান্টিনের সময় অনুশীলন করেছিলেন খেলোয়াড়রা।

আরও পড়ুন: ব্যক্তিগত কারণে ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ থেকে সরলেন কেন রিচার্ডসন​

আরও পড়ুন: দুঃস্থ শিশুদের পাশে দাঁড়াতে বিরাট দান কোহালির

Advertisement


আর একটা সম্ভাবনা হল, অস্ট্রেলিয়ান ওপেনকে এক বা দু’সপ্তাহ পিছিয়ে দেওয়া। তাতে গা-ঘামানোর ইভেন্টগুলো পূর্ব পরিকল্পনা মতো চলতে পারবে। প্রতিযোগিতার ডিরেক্টর ক্রেগ টিলে এর আগে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন পিছিয়ে দেওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনাও করেছিলেন। এটাই বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম প্রতিযোগিতা। ফলে সেই বিচারে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনকে প্রাধান্য দিয়ে পিছিয়ে দেওয়া যায়ও।

আর একটা সম্ভাবনা হচ্ছে ড্র-কে সীমিত করে তোলা। যাতে অস্ট্রেলিয়ায় খুব বেশি খেলোয়াড়কে আসার অনুমতি দেওয়ার দরকার না পড়ে। সেপ্টেম্বরের ইউএস ওপেনে যেমন কোনও যোগ্যতা অর্জনের পর্ব ছিল না। ছিল না মিক্সড ডাবলস প্রতিযোগিতাও। ফরাসি ওপেনেও মিক্সড ডাবলস ছিল না।

মেলবোর্নে অবশ্য গত ১৯ দিন ধরে কোভিডে কেউ আক্রান্ত হননি। কিন্তু, অ্যাডিলেডে করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর এসেছে।

Advertisement