×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০২ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

নাদালকে হারিয়ে জোকোভিচের মনে হচ্ছে এভারেস্ট জয় করলেন

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১২ জুন ২০২১ ০৯:১৬
নোভাক জোকোভিচ।

নোভাক জোকোভিচ।
ছবি রয়টার্স

মহাকাব্যিক ম্যাচ। মহাকাব্যিক জয়। ফরাসি ওপেনের সেমিফাইনালে রাফায়েল নাদালকে হারানোর পর নোভাক জোকোভিচের মনে হচ্ছে, তেনজিং নোরগের মতো তিনিও যেন মাউন্ট এভারেস্ট জয় করে ফেলেছেন। এটাও জানিয়ে দিলেন, সারাজীবন এই ম্যাচ মনে রাখবেন তিনি।

ম্যাচের পর দৃশ্যতই আপ্লুত জোকোভিচ বললেন, “রোলঁ গারোজে নিঃসন্দেহে আমার খেলা সেরা ম্যাচ। আমার খেলোয়াড়জীবনের অন্যতম সেরা তিন ম্যাচের মধ্যে এটা থাকবে। যে ধরনের টেনিস খেলা হয়েছে সেটা মাথায় রেখেই বলছি। গত ১৫ বছরে এই কোর্টে চূড়ান্ত সাফল্য পেয়ে এসেছে ও। আজকের রাতের এই পরিবেশও ছিল অসামান্য। এ ধরনের রাত, এ ধরনের ম্যাচ সারাজীবন মনে থাকতে বাধ্য।”

প্যারিসের সুরকির কোর্টে একচ্ছত্র অধিপতি নাদালকে হারাতে তাঁর পাঁচ সেটও লাগেনি। কিন্তু এখানেই গত বারের ফাইনালে তিনি স্ট্রেট সেটে উড়ে গিয়েছিলেন। শুক্রবারও প্রথম সেটে ০-৫ গেমে পিছিয়ে পড়েন। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচ জিতেছেন ৩-৬, ৬-৩, ৭-৬ (৭-৪), ৬-২ গেমে।

Advertisement

পিছিয়ে পড়েও কী ভাবে তিনি অতটা স্বাভাবিক ছিলেন? জোকোভিচের উত্তর, “একটুও নার্ভাস হইনি। গত বারের ফাইনালের থেকে অনেকটা অন্যরকম লাগছিল। বল ভাল মারছিলাম, শারীরিক দিক থেকেও নিজেকে অনেকটা সপ্রতিভ লাগছিল। ধীরে ধীরে ছন্দ পেয়ে গেলাম। তারপর আর পিছন ফিরে তাকাইনি। প্রথম সেটে হেরে গেলেও নিজের খেলা খুঁজে পেয়ে গেলাম।”

প্রতিপক্ষ নাদালকে গিয়ে উচ্ছ্বসিত তিনি। বলেছেন, “রোলঁ গারোজের ইতিহাসে সব থেকে সফল খেলোয়াড় ও। এই নিয়ে বোধ হয় তিন বার হারল এখানে। যখনই ওর বিরুদ্ধে কোর্টে আমি, ভেবে নিই যে আমাকে মাউন্ট এভারেস্টে চড়তে হবে।” জোকোভিচের সামনে এবার ১৯তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের হাতছানি, যেখানে সামনে শুধু স্টেফানোস চিচিপাস। সার্বিয়ার খেলোয়াড় বললেন, “এখন নিজেকে মোটেই তরতাজা লাগছে না। কিন্তু আগামী দেড়দিনে নিজেকে অনেকটাই তৈরি করে নেব ফাইনালের জন্যে।”

Advertisement