Advertisement
০৯ ডিসেম্বর ২০২২

চায়নাম্যানেও লাভ হল না শ্রীলঙ্কার

রবিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সল্টলেক ক্যাম্পাসে ৭৫ ওভারে ২৮৭-৫ রানে ইনিংস ডিক্লেয়ার করল বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ। সুরঙ্গ লাকমল, বিশ্ব ফের্নান্ডো, সান্দাকানদের অনায়াসে সামলে সেঞ্চুরি করে বেরিয়ে গেলেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট দলের অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন।

সফল: শ্রীলঙ্কা বোলারদের সামলে সেঞ্চুরি সঞ্জুর। —নিজস্ব চিত্র।

সফল: শ্রীলঙ্কা বোলারদের সামলে সেঞ্চুরি সঞ্জুর। —নিজস্ব চিত্র।

ইন্দ্রজিৎ সেনগুপ্ত
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ নভেম্বর ২০১৭ ০৪:২৯
Share: Save:

তৃতীয় সারির বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের বিরুদ্ধেও পাঁচ উইকেটের বেশি ফেলতে পারলেন না শ্রীলঙ্কার বোলাররা। কুলদীপ যাদবের প্রতিপক্ষ হিসেবে যে চায়নাম্যান বোলারকে নিয়ে এসেছে শ্রীলঙ্কা, সেই লক্ষ্মণ সান্দাকান দাগ কাটতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ। ম্যাচে ১২ ওভার বল করে উইকেট তো পেলেনই না, এমন কী, কোনও ব্যাটসম্যানকে পরাস্ত করতেও পারেননি শ্রীলঙ্কার এই তরুণ চায়নাম্যান বোলার।

Advertisement

রবিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সল্টলেক ক্যাম্পাসে ৭৫ ওভারে ২৮৭-৫ রানে ইনিংস ডিক্লেয়ার করল বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ। সুরঙ্গ লাকমল, বিশ্ব ফের্নান্ডো, সান্দাকানদের অনায়াসে সামলে সেঞ্চুরি করে বেরিয়ে গেলেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট দলের অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন।

সান্দাকান উইকেট না পেলেও তাঁর ওপর ভরসা হারায়নি শ্রীলঙ্কা। বরং তাদের ফাস্ট বোলিং কোচ রুমেশ রত্নায়েকে জানাচ্ছেন, কুলদীপ ও সান্দাকানের মধ্যে খুব একটা তফাত দেখছেন না তিনি। রত্নায়েকে বলেন, ‘‘কুলদীপ ও সান্দাকান অনেকটা একই ধরনের বোলার। তবে সান্দাকানকে আর একটু অভিজ্ঞ হতে হবে।’’

রবিবার যদিও সান্দাকানের বল সে ভাবে ঘুরতে দেখা গেল না। তাঁর গুগলিও সহজেই ধরে ফেললেন সঞ্জু, জীবনজ্যোত, রোহান প্রেম-রা। ম্যাচে একাধিক শর্ট বলও করেন তিনি। তা নিয়ে রত্নায়েকে বলেন, ‘‘বল জায়গায় ফেলা নিয়ে ওর (সান্দাকান) সঙ্গে এর আগেও আমার কথা হয়েছে। বুঝতে পারছি, আত্মবিশ্বাসের যথেষ্ট অভাব রয়েছে ওর মধ্যে। তবে একটি ম্যাচ ভাল খেললেই ও হারানো আত্মবিশ্বাস ফিরে পাবে।’’ শ্রীলঙ্কা অবশ্য এখনও ঠিক করেনি তিন স্পিনার খেলানো হবে কি না। রত্নায়েকে বললেন, ‘‘পিচ দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’’

Advertisement

বোর্ড প্রেসিডেন্টের উইকেট ফেলতেই হিমশিম খাচ্ছে যে দল, তারা কী ভাবে বিরাট কোহালিদের আউট করবে? উত্তরে রত্নায়েকে বলেন, ‘‘প্রত্যেক খেলোয়াড়কে নিয়েই আলাদা করে পরিকল্পনা করছি আমরা। ঠিক সময় তা প্রয়োগ করতে পারলেই ফল পাওয়া যাবে।’’

প্রস্তুতি ম্যাচ বলেই হয়তো ছ’ওভারের বেশি বল করেননি তারকা বাঁ-হাতি স্পিনার রঙ্গনা হেরাথ। পেস বোলার লাহিরু গামাগে ইনিংসের শুরুতে দু’টি উইকেট পাওয়ার পরেও চাপ ধরে রাখতে পারেননি। দিলরুয়ান পেরেরা, বিশ্ব ফের্নান্ডো, ধনঞ্জয় ডি সিলভারা একটি করে উইকেট ছাড়া আর কোনও আউটের সুযোগই তৈরি করতে পারেননি।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ছয় ব্যাটসম্যান ও পাঁচ বোলার খেলালেও ভারতের বিরুদ্ধে একজন অলরাউন্ডার খেলানোর কথাই ভাবছেন দীনেশ চণ্ডীমলরা। অথচ অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজকে নেটে বা ম্যাচে একটিও বল করতে দেখা যায়নি। তা হলে ভারতের বিরুদ্ধে অলরাউন্ডার হিসেবে কাকে দেখছেন তাঁরা? রত্নায়েকে বলেন, ‘‘অ্যাঞ্জেলোকে আমরা ব্যাটসম্যান হিসেবেই টেস্টে খেলাবো। অলরাউন্ডার হিসেবে দাসুন শানাকা অথবা ধনঞ্জয় ডি সিলভা-র মধ্যে একজন খেলবে।’’

ম্যাচের আগের দিন সঞ্জু অবশ্য বলেছিলেন যে, এই ম্যাচটি শ্রীলঙ্কার কাছে প্রস্তুতির হলেও তাঁদের কাছে নয়। রবিবার সেটাই বুঝিয়ে দিলেন। ১৪৩ বলে ১২৮ রানের নজরকাড়া ইনিংস খেললেন তিনি। দলে নমন ওঝার অভাবটা কোনও ভাবেই বুঝতে দেননি সঞ্জু। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘‘আন্তর্জাতিক দলের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করে সত্যিই খুব আনন্দ হচ্ছে। পরের ম্যাচগুলোর আগে এই সেঞ্চুরি আমার আত্মবিশ্বাস অনেক বাড়াবে।’’

প্রস্তুতি ম্যাচে বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের বিরুদ্ধে দশ বোলারের সাহায্যে পাঁচ উইকেট ফেলতে পেরেছেন চণ্ডীমলরা। এখন এটাই দেখার যে, ভারতকে অলআউট করতে শ্রীলঙ্কার ক’জন বোলার লাগে!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.