Advertisement
০২ ডিসেম্বর ২০২২
Ravichandran Ashwin

তিন ম্যাচ পরে অবশেষে এশিয়া কাপে সুযোগ, কার থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে নামলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন

এ বারের এশিয়া কাপে প্রথম বার নামলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। তিন ম্যাচ বাইরে বসে থাকার পর। কী অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করলেন অশ্বিন? কার থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে নামলেন তিনি?

অশ্বিনের অনুপ্রেরণা কে?

অশ্বিনের অনুপ্রেরণা কে? ছবি ইনস্টাগ্রাম

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২০:১৩
Share: Save:

এশিয়া কাপের দলে থাকলেও এত দিন সুযোগ পাননি। অবশেষে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সুপার ফোরের ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ পেলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। রবি বিষ্ণোইয়ের বদলে দলে এলেন তিনি। ম্যাচের আগে অশ্বিন জানালেন, আগের তিনটি ম্যাচে সুযোগ না পেলেও এই ম্যাচের জন্য তিনি তৈরি। আলাদা করে কোনও অনুপ্রেরণার দরকার নেই।

Advertisement

অশ্বিনের কথায়, “ভারতের হয়ে খেলার জন্য কোনও অনুপ্রেরণা লাগে না। সব সময় সুযোগের অপেক্ষায় থাকতে হয়। গত ১৪-১৫ বছর ধরে একটাই কাজ করে চলেছি। সুযোগ পেলে যাতে নিজের সেরাটা দিতে পারি, সেটাই চেষ্টা করি। মাঠে নেমে কী ফল হবে সেটা নিশ্চিত ভাবে বলতে পারি না। তার থেকে নিজেকে প্রস্তুত রাখাই ভাল। কী ধরনের বল করতে পারি, কী ধরনের পিচ থাকবে সে সব মাথায় রাখতে হয়। রিজার্ভ বেঞ্চে থাকলে ভাল করে বোঝা যায় যে, মাঠের ভিতরে কী চলছে। তাই সুযোগ পেলে নিজের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে সেরাটা দেওয়াই আমার লক্ষ্য থাকে।”

আলাদা করে কোনও চাপ নিয়ে যে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে নামছেন না, সেটাও পরিষ্কার করে দিয়েছেন অশ্বিন। বলেছেন, “এ ধরনের প্রতিযোগিতায় প্রতিটি ম্যাচই চাপের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে খুব বেশি দেশ কিন্তু এ ধরনের প্রতিযোগিতা খেলার সুযোগ পায় না। এশিয়ার সেরা দলগুলির বিরুদ্ধে আমরা খেলছি। এ ধরনের মরণ-বাঁচন ম্যাচে খেলা পরের দিকে আমাদের সুবিধাজনক জায়গায় রাখবে। দলের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বলতে পারি, আমরা প্রতিটা ম্যাচকেই একই রকম গুরুত্ব দিচ্ছি। একই রকম উত্তেজনা নিয়ে নামছি।”

পাকিস্তান ম্যাচের প্রসঙ্গও আসে। অশ্বিন স্পষ্ট স্বীকার করলেন, পাকিস্তান তাঁদের থেকে ভাল খেলেছে বলেই জিতেছে। ভারতীয় অফস্পিনারের কথায়, “ভারত এবং পাকিস্তানের যে কোনও ম্যাচই চাপের। মাঠের বাইরে থেকে বলতে পারি, পাকিস্তান দুর্দান্ত খেলেছে এবং যোগ্য দল হিসাবেই জিতেছে। আমরাও ভাল খেলেছি। যে হেতু হেরে গিয়েছি, তাই কোথায় ভুল হল সেটাই আমাদের ভাল করে দেখতে হবে। শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।”

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.