Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Shakib Al Hasan

মেজাজ হারালেন শাকিব! চিৎকার করে তেড়ে গেলেন আম্পায়ারের দিকে, মাঠেই জড়ালেন বিতণ্ডায়

মাঠের মধ্যে আরও এক বার মেজাজ হারালেন শাকিব আল হাসান। আরও এক বার বিতর্কে জড়ালেন তিনি। এ বার মেজাজ হারিয়ে আম্পায়ারের দিকে তেড়ে যান বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক।

আবার বিতর্কে শাকিব। মাঠের মধ্যে আরও এক বার মেজাজ হারালেন বাংলাদেশের ক্রিকেটার।

আবার বিতর্কে শাকিব। মাঠের মধ্যে আরও এক বার মেজাজ হারালেন বাংলাদেশের ক্রিকেটার। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৮ জানুয়ারি ২০২৩ ১২:২৬
Share: Save:

আবার বিতর্কে শাকিব আল হাসান। খেলার মধ্যে আবার মেজাজ হারালেন তিনি। আরও এক বার আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে রেগে গেলেন বাংলাদেশের টেস্ট দলের অধিনায়ক। চিৎকার করে আম্পায়ারের দিকে তেড়ে গেলেন শাকিব। মাঠেই বিতণ্ডায় জড়ালেন তিনি।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ফরচুন বরিশাল ও সিলেট স্ট্রাইকার্সের মধ্যে খেলায় এই ঘটনা দেখা গিয়েছে। বরিশালের ইনিংসের ১৬তম ওভারে ব্যাট করছিলেন শাকিব। সিলেটের রেজাউর রহমান রাজার বল শাকিবের মাথার উপর দিয়ে চলে যায়। খালি চোখে দেখে মনে হচ্ছিল, সেটি নো বল। শাকিবও নো বলের আশায় লেগ আম্পায়ারের দিকে তাকান। কিন্তু লেগ আম্পায়ার নো ডাকেননি। ওভারের প্রথম বাউন্সার ডাকেন তিনি। এতেই চটে যান শাকিব।

প্রথমে তিনি ক্রিজে দাঁড়িয়েই চিৎকার করেন। তার পরে তেড়ে যান লেগ আম্পায়ারের দিকে। পরিস্থিতি সামলাতে ছুটে আসেন অপর আম্পায়ার। সিলেটের ক্রিকেটারদেরও দেখা যায় শাকিবকে ঠান্ডা করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু শাকিব আম্পায়ারদের সঙ্গে বিতণ্ডায় জড়ান। তাঁকে দেখে বোঝা যাচ্ছিল, সেই সিদ্ধান্ত একটুও মানতে পারেননি তিনি।

তবে এই ঘটনা শাকিবের প্রথম নয়। মাঠের মধ্যে এর আগেও অনেক বার মেজাজ হারাতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। কখনও আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত মানতে না পেরে লাথি মেরে উইকেট ভেঙেছেন, তো কখনও আউট হয়ে গিয়ে ব্যাট দিয়ে উইকেটে মেরেছেন। আরও এক বার সেই ছবি দেখা গেল। এত অভিজ্ঞ ক্রিকেটার হয়ে বার বার এ ভাবে মেজাজ হারানোয় অনেকে সমালোচনা করেছেন শাকিবের।

উল্লেখ্য, বরিশালের হয়ে সব থেকে বেশি ৩২ বলে ৬৭ রান করেন শাকিব। বরিশাল ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে করে ১৯৪ রান। কিন্তু এক ওভার বাকি থাকতেই সেই রান তাড়া করে জিতে যায় সিলেট।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE