Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

India vs New Zealand 2021: টেস্ট জীবনের স্বপ্নের সময়, বলছেন অক্ষর

রবিবার তৃতীয় দিনের শেষে সাংবাদিক বৈঠকে অক্ষরের কাছে জানতে চাওয়া হয়, টেস্ট জীবনের প্রথম মরসুমকে তিনি কী ভাবে ব্যাখ্যা করবেন?

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ০৫:৪২


ফাইল চিত্র।

দীর্ঘদিনের পরিশ্রমের ফল পাচ্ছেন এখন। এমনটাই মনে করেন ভারতীয় বাঁ-হাতি স্পিনার অক্ষর পটেল। কেনই বা মনে করবেন না? টেস্ট জীবনে এখনও পর্যন্ত পঞ্চম ম্যাচ খেলছেন অক্ষর। ইতিমধ্যে পেয়ে গিয়েছেন ৩৬ উইকেট। মুম্বইয়ে দ্বিতীয় টেস্টে ব্যাট হাতেও তাঁর দাপট দেখা গেল দুই ইনিংস জুড়ে। প্রথম ইনিংসে করেন ৫২ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৬ বলে ৪১ রানে অপরাজিত থাকেন।

রবিবার তৃতীয় দিনের শেষে সাংবাদিক বৈঠকে অক্ষরের কাছে জানতে চাওয়া হয়, টেস্ট জীবনের প্রথম মরসুমকে তিনি কী ভাবে ব্যাখ্যা করবেন? বাঁ-হাতি স্পিনারের উত্তর, ‘‘বলা যেতে পারে স্বপ্নের মতো শুরু হল টেস্ট জীবন। ইংল্যান্ড সিরিজ়েই অভিষেক হয়েছিল আমার। প্রথম ম্যাচ থেকেই উইকেটের মধ্যে রয়েছি। নিউজ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ়েও সমান ছন্দে খেলে চলেছি। মাঝে আইপিএলেও খারাপ করিনি।’’ যোগ করেন, ‘‘এ ভাবেই এগিয়ে যেতে চাই। প্রত্যেক ম্যাচে নিজেকে উন্নত করতে চাই। চিন্তা করি কোন জায়গায় আরও পরিণত হতে হবে। কী করে আরও সাফল্য আসবে।’’

অক্ষর মনে করেন, এত দিনের পরিশ্রমের ফলই তিনি পাচ্ছেন। বলছিলেন, ‘‘এত দিন প্রচণ্ড পরিশ্রম করেছি। সেটাই সাফল্যের কারণ।’’

Advertisement
আকস্মিক: নেমে এসেছে স্পাইডার ক্যাম। দেখছেন বিরাট।

আকস্মিক: নেমে এসেছে স্পাইডার ক্যাম। দেখছেন বিরাট।
ছবি— পিটিআই।


শুধু বোলিং নয়, ব্যাট হাতেও অক্ষরের দাপট নজর কেড়েছে বিশেষজ্ঞদের। তাঁর ব্যাটিং দেখে নিশ্চিত ভাবে বলে দেওয়া যায় ঘরের মাঠে আর অশ্বিন, রবীন্দ্র জাডেজার পাশাপাশি অক্ষরকেও অলরাউন্ডার হিসেবে দেখা যেতেই পারে। অক্ষর নিজেও সে ভাবেই তৈরি হতে চান। বলছিলেন, ‘‘ব্যাটিং কোচের পাশাপাশি দলের প্রত্যেকে মনে করে আমি খারাপ ব্যাট করি না। বোলিংয়ের সঙ্গে ব্যাট হাতেও আমার উপরে ভরসা করছে ওরা। আগেও বহু ম্যাচে শুরুটা ভাল করেছি। কিন্তু বড় রানে পরিণত করতে পারিনি। এ বার তা হয়নি। হাফসেঞ্চুরি করতে পেরে ভাল লাগছে।’’ এখানেই না থেমে অক্ষর বলেন, ‘‘নীচের দিকে আমি, অশ্বিন ও জাড্ডু ভাই যদি রান করে দিতে পারি, তা হলে উপরের সারির ব্যাটাররাও স্বস্তিতে ইনিংস সাজাতে পারে।’’

রবিবার ওয়াংখেড়েতে একটি মজার ঘটনাও ঘটে। টম লাথাম আউট হওয়ার পরে হঠাৎই উপর থেকে পিচের কাছে নেমে আসে ‘স্পাইডার ক্যাম’। যে দড়িগুলো দিয়ে ক্যামেরাটি উপরে ঝোলানো থাকে তার মধ্যে একটি দড়ির বাঁধন নরম হয়ে গিয়েছিল। তাই নীচে নেমে এসেছিল ক্যামেরা। বাধ্য হয়ে নির্ধারিত সময়ের আগেই চা-বিরতি ঘোষণা করেন আম্পায়ারেরা। ১৫ মিনিট সময়ের মধ্যেই মেরামত করা হয় স্পাইডারক্যাম। তার পরে শুরু হয় তৃতীয় সেশনের খেলা।

আরও পড়ুন

Advertisement