Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
Pakistan Cricket Board

বিসিসিআইয়ের পথে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড, বেতন বাড়ছে বাবরদের! কে কত পাবেন

গ্রেডেশন পদ্ধতি চালু করতে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। জাতীয় দলে খেলা ও ঘরোয়া ক্রিকেটারদের পাঁচটি ক্যাটেগরির আওতায় আনা হচ্ছে। সেই অনুযায়ী বেতন বাড়তে চলেছে বাবর আজমদের।

মাসিক বেতন বাড়ছে বাবর আজমদের।

মাসিক বেতন বাড়ছে বাবর আজমদের। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৩:৪০
Share: Save:

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান রামিজ রাজা আগেই জানিয়েছিলেন, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের মতো পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের নিয়ে গ্রেডেশন পদ্ধতি চালু করার কথা ভাবছেন তাঁরা। সেই পথে বেশ খানিকটা এগিয়ে গিয়েছেন তাঁরা। পাকিস্তানের জাতীয় দলে খেলা ও ঘরোয়া ক্রিকেটারদের পাঁচটি ক্যাটেগরির আওতায় আনা হচ্ছে। সেই অনুযায়ী বেতন বাড়তে চলেছে বাবর আজমদের।

Advertisement

পিসিবি জানিয়েছে, মোট ১৯২ জন ক্রিকেটারকে পাঁচটি ক্যাটেগরিতে ভাগ করা হয়েছে। ক্যাটেগরি ‘এ+’-তে রয়েছেন ১৫ জন ক্রিকেটার। তাঁরা মাসে ৩ লক্ষ পাকিস্তানি টাকা করে বেতন পাবেন। আগে তাঁরা পেতেন মাসে ৫০ হাজার পাকিস্তানি টাকা। ক্যাটেগরি ‘এ’-তে রয়েছেন ৩৫ জন ক্রিকেটার। তাঁরা মাসে ২ লক্ষ পাকিস্তানি টাকা করে পাবেন। আগে তাঁরা পেতেন মাসে ১৫ হাজার পাকিস্তানি টাকা। ক্যাটেগরি ‘বি’-তে ৪৮ জন ক্রিকেটার জায়গা পেয়েছেন। তাঁদের বেতন মাসে ১০ হাজার পাকিস্তানি টাকা থেকে বাড়িয়ে মাসে ১ লক্ষ ৮৫ হাজার পাকিস্তানি টাকা করা হয়েছে। ক্যাটেগরি ‘সি’-তে রয়েছেন ৭০ জন ক্রিকেটার। তাঁরা মাসে ১ লক্ষ ৭০ হাজার পাকিস্তানি টাকা করে পাবেন। এর আগে তাঁরা মাসে ৮ হাজার পাকিস্তানি টাকা পেতেন। সব শেষে ক্যাটেগরি ‘ডি’-তে ২৪ জন ক্রিকেটারকে রাখা হয়েছে। তাঁদের বেতন মাসে ৫ হাজার পাকিস্তানি টাকা থেকে বাড়িয়ে মাসে ১ লক্ষ ৫০ হাজার পাকিস্তানি টাকা করা হয়েছে।

ক্যাটেগরি ভাগ করে দিলেও কোন ক্যাটেগরিতে কে কে রয়েছেন তা এখনও জানায়নি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। শীঘ্রই তা জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

পাকিস্তানের ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি-ও বাড়ানো হয়েছে। কাইদ-ই-আজম ট্রফিতে খেলা ক্রিকেটাররা ম্যাচ পিছু ১ লক্ষ পাকিস্তানি টাকা করে পাবেন। যাঁরা দলে রয়েছেন কিন্তু খেলার সুযোগ পাননি তাঁরা ম্যাচ পিছু ২৪ হাজার পাকিস্তানি টাকা করে পাবেন। পাকিস্তান কাপ ও জাতীয় টি-টোয়েন্টিতে যে সব ক্রিকেটার প্রথম একাদশে খেলবেন তাঁরা ম্যাচ পিছু ৬০ হাজার পাকিস্তানি টাকা করে পাবেন। রিজার্ভে থাকা ক্রিকেটাররা ম্যাচ পিছু ২০ হাজার পাকিস্তানি টাকা করে পাবেন।

Advertisement

পাকিস্তান ক্রিকেটের হাই পারফরম্যান্স সেন্টারের প্রধান নাদিম খান বলেছেন, ‘‘যে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেট যত উন্নত সেই দেশ আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে তত শক্তিশালী। তাই পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটকে আরও উন্নত করতে এই পদক্ষেপ করা হয়েছে। আমাদের প্রস্তাবে সম্মত হওয়ার জন্য পিসিবির বোর্ড অফ গফর্নর্সকে ধন্যবাদ। আশা করছি পাকিস্তান ক্রিকেট আগামী দিনে আরও উন্নত হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.