Advertisement
২২ এপ্রিল ২০২৪
PCB

Javed Miandad: তরুণ ক্রিকেটারদের ডাকাবুকো করতে দাউদের বেয়াইকে দায়িত্ব দিল পাকিস্তান

শুরু হচ্ছে পাকিস্তান জুনিয়র লিগ। টি-টোয়েন্টি এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে জুনিয়র ক্রিকেটারদের ধার বাড়াতে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মিয়াঁদাদকে।

দাউদ ইব্রাহিম।

দাউদ ইব্রাহিম। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩০ জুন ২০২২ ১৬:১৭
Share: Save:

পাকিস্তান প্রিমিয়ার লিগের ধাঁচে এ বার শুরু হচ্ছে পাকিস্তান জুনিয়র লিগ। টি-টোয়েন্টি এই প্রতিযোগিতায় খেলবেন মূলত কিশোর এবং তরুণ ক্রিকেটারেরা। ছ’টি দলকে নিয়ে অক্টোবরে হবে প্রতিযোগিতা। সেই প্রতিযোগিতায় প্রধান মেন্টর হিসাবে থাকছেন জাভেদ মিয়াঁদাদ।

প্রতিটি দলেই থাকবেন এক জন করে মেন্টর। শাহিদ আফ্রিদি, শোয়েব মালিক, ড্যারেন সামিরা বিভিন্ন দলের মেন্টর হিসাবে থাকবেন। আরও তিন জন মেন্টর কারা হবেন তা এখনও জানাননি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান রামিজ রাজা। আফ্রিদি, সামি, মালিকদের মতো দলের মেন্টররা থাকতে পারবেন তাঁদের দলের ডাগ আউটে। তাঁদের মাথার উপর থাকবেন মিয়াঁদাদ। তাঁর নজরদারিতেই হবে গোটা প্রতিযোগিতা। দলের মেন্টরদের মূলত পরামর্শ দেবেন মিয়াঁদাদ। প্রয়োজনে ক্রিকেটারদের সরাসরিও পরামর্শ দিতে পারেন তিনি। জুনিয়র পর্যায়ের ক্রিকেটারদের মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে নতুন এই প্রতিযোগিতা শুরু করছে পিসিবি।

লিগ পদ্ধতিতে পরস্পরের বিরুদ্ধে খেলবে ছ’টি দল। প্রথম চারটি দল উঠবে প্লে-অফ পর্বে। প্রথম দু’টি দল আইপিএলের মতো ফাইনালের জন্য প্রথম কোয়ালিফায়ার খেলবে। তৃতীয় এবং চতুর্থ স্থানে থাকা দল খেলবে এলিমিনেটর। এলিমিনেটরের জয়ী দল এবং প্রথম কোয়ালিফায়ারের পরাজিত দল খেলবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার। সেই ম্যাচর বিজয়ীর সঙ্গে ফাইনালে মুখোমুখি হবে প্রথম কোয়ালিফায়ারের জয়ী দল।

ক্রিকেটজীবনে ডাকাবুকো হিসাবেই পরিচিত ছিলেন ছ’টি বিশ্বকাপ খেলা মিয়াঁদাদ। পাকিস্তানের ক্রিকেট ইতিহাসে অন্যতম সেরা ব্যাটারও তিনি। পাকিস্তানের ক্রিকেট কর্তারা চাইছেন ভবিষ্যতের ক্রিকেটারদের মান বৃদ্ধির পাশাপাশি ভয়ডরহীন ক্রিকেটের জন্য তৈরি করতে। যাতে বড় মঞ্চে সুযোগ পেলে তাঁরা ঘাবড়ে না যান। এই কাজে মিয়াঁদাদই সেরা লোক বলে মনে করেন রামিজরা।

ক্রিকেটজীবন এবং অবসরের পরে বহু বার বিতর্কে জড়িয়েছেন মিয়াঁদাদ। নিজের ছেলের বিয়ে দিয়েছেন মুম্বই বিস্ফোরণের মূল অভিযুক্ত দাউদ ইব্রাহিমের মেয়ের সঙ্গে। তা নিয়ে কোনও আক্ষেপ বা লজ্জা নেই প্রাক্তন ক্রিকেটারের। বছর কয়েক আগে আফ্রিদি বিতর্কে জড়ান মিয়াঁদাদের সঙ্গে। সে সময় দাউদ আফ্রিদিকে হুমকি দেয়। মিয়াঁদাদের আচরণ নিয়ে প্রকাশ্যেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন আফ্রিদি। এ বার সেই আফ্রিদির সঙ্গেই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেটকে দিশা দেখাতে চান দাউদের বেয়াই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE