Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Pakistan Cricket Board

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে প্রাক্তন ক্রিকেটারদের আইনি নোটিস পাক বোর্ডের

বেশ কয়েক জন প্রাক্তন ক্রিকেটারকে আইনি নোটিস পাঠানোর কথা ভাবছেন পাক বোর্ডের কর্তারা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শুরুর দিকে তাঁরা বোর্ড কর্তা, নির্বাচক এবং দলের তীব্র সমালোচনা করেন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় প্রাক্তন ক্রিকেটারদের সমালোচনায় ক্ষুব্ধ পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ়।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় প্রাক্তন ক্রিকেটারদের সমালোচনায় ক্ষুব্ধ পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ়। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৬ নভেম্বর ২০২২ ১৬:০০
Share: Save:

কামরান আকমলকে আইনি নোটিস পাঠাল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সংবাদমাধ্যমে বোর্ড সম্পর্কে অবমাননাকর এবং আপত্তিজনক মন্তব্য করায় তাঁকে নোটিস পাঠানো হয়েছে। প্রাক্তন উইকেট রক্ষক-ব্যাটারের ঘনিষ্ঠ সূত্রে নোটিসের প্রাপ্তি স্বীকার করা হয়েছে।

Advertisement

বোর্ডের পাঠানো নোটিস নিয়ে মুখ খোলেননি কামরান। তাঁর ঘনিষ্ঠ হিসাবে পরিচিত এক জন বলেছেন, ‘‘পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের আইনি দফতর থেকে নোটিস পাঠানো হয়েছে। তাতে ঠিক কী অভিযোগ আনা হয়েছে বলতে পারব না। শুধু জানি বোর্ড চেয়ারম্যান রামিজ় রাজার মনে হয়েছে কামরানের বক্তব্য অসত্য, অবমাননাকর এবং আপত্তিজনক।’’ উল্লেখ্য, আকমল সম্পর্কে পাক অধিনায়ক বাবর আজ়মের দাদা হন।

কামরানই একমাত্র প্রাক্তন ক্রিকেটার নন। পাক বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, আরও কয়েক জন প্রাক্তন ক্রিকেটারের বক্তব্য আপত্তিজনক। তাঁদেরও আইনি নোটিস পাঠানো হবে। অভিযোগ, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় নিজেদের ইউটিউব চ্যানেলে বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন তাঁরা। বিশেষ করে প্রতিযোগিতার শুরুর দিকে বাবরের দল এবং বোর্ডের তীব্র সমালোচনা করেছেন তাঁরা। কেউ কেউ কর্তাদের যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। যা ভাল ভাবে নেননি রামিজ়।

পাক বোর্ডের ওই কর্তা বলেছেন, ‘‘অনেকেই সীমা অতিক্রম করেছেন। দল, বোর্ড, কর্তা এবং চেয়ারম্যানের সমালোচনা করার সময় তাঁরা মাথায় রাখেননি কী বলছেন। পিসিবি কোনও ভাবেই এ জিনিস আর বরদাস্ত করবে না। তাঁদেরও নোটিস দেওয়া হবে।’’ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম দু’টি ম্যাচে ভারত এবং জ়িম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে বাবররা হারার পর কামরান ছাড়াও সমালোচনায় মুখর হন শোয়েব আখতার, শোয়েব মালিকের মতো ক্রিকেটার। বোর্ড কর্তা, নির্বাচকদের সরিয়ে দেওয়ার দাবি তুলেছিলেন তাঁরা। বাবরের নেতৃত্ব কেড়ে নেওয়া উচিত বলেও মতামত প্রকাশ করেন অনেকে।

Advertisement

সে সময় পিসিবি কর্তারা তেমন কিছু বলেননি। পরে পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার পরই প্রাক্তন ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন রামিজ়রা। আগামী দিনেও কেউ কোনও বিষয়ে নেতিবাচক বা অপমানজনক মন্তব্য করলে কঠোর পদক্ষেপ করা হবে বলে জানিয়েছেন পিসিবির ওই কর্তা। প্রাক্তন ক্রিকেটারদের ইউটিউব চ্যানেলগুলোর উপরে নজর রাখার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.