Advertisement
০৪ মার্চ ২০২৪
Ravi Shastri

মাঁকড়ীয় আউট নিয়ে শাস্ত্রীর নিশানায় ব্যাটাররাই, কী বললেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন কোচ?

শাস্ত্রীর মতে, মাঁকড়ীয় আউট করার আগে সতর্ক করার প্রয়োজন নেই। তা হলে ফিল্ডারকে প্রথম ক্যাচ ফেলে দিয়ে দ্বিতীয় ক্যাচ ধরতে বলার মতো হবে। তাঁর প্রশ্ন, ব্যাটাররা কেন ক্রিজ ছাড়বে?

মাঁকড়ীয় আউট নিয়ে ব্যাটারদের দুষলেন শাস্ত্রী।

মাঁকড়ীয় আউট নিয়ে ব্যাটারদের দুষলেন শাস্ত্রী। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০২২ ১৮:৩৬
Share: Save:

ঝুলন গোস্বামীর শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচের একটি ঘটনা নিয়ে ক্রিকেট বিশ্বে আলোচনা চলছেই। ইংল্যান্ডের শার্লি ডিনকে মাঁকড়ীয় আউট করেছিলেন ভারতের দীপ্তি শর্মা। অনেকেই মনে করছেন এই আউট ক্রিকেটের আদর্শের সঙ্গে মানানসই নয়। ভারতীয় দলের প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রী প্রশ্ন তুলে দিলেন ব্যাটারদের ভূমিকা নিয়েই।

দীপ্তির পাশে দাঁড়িয়েছেন সচিন চেন্ডুলকরও। তিনি পরিস্কার জানিয়েছেন, মাঁকড়ীয় আউট এখন ক্রিকেটের নিয়মে রান আউট হিসাবে ধরা হচ্ছে। আর শাস্ত্রী সমালোচনা করলেন ব্যাটারদের। তাঁর বক্তব্য, বোলার হাত থেকে বল ছাড়ার আগে ব্যাটারকে ক্রিজের ভিতরে থাকতে হয়। সেটা অনেক ক্ষেত্রেই মানা হচ্ছে না। শাস্ত্রী বলেছেন, ‘‘আমার বক্তব্য খুব পরিস্কার। এটা নিয়ম। বোলার বল ছাড়ার আগেই ব্যাটারের ক্রিজ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার দরকার কী? ক্রিকেটের আইন বলছে, কোনও ব্যাটার এমন করলে বোলারের পূর্ণ অধিকার রয়েছে উইকেটের বেল ফেলে দেওয়ার।’’

সুর চড়িয়ে শাস্ত্রী বলতে চেয়েছেন, ব্যাটারা তা হলে ক্রিকেটের নিয়মের সঙ্গে প্রতারণা করছে। প্রাক্তন অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘‘অনেক দিন ধরেই মাঁকড়ীয় আউট রয়েছে। অনেক ক্রিকেটার এখনও নতুন নিয়মের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। এ ভাবে কি বেল ফেলে দেওয়া উচিত? কোচ থাকলে আমি ক্রিকেটারদের মাঠে নেমে এটাই করতে বলব। কারণ, এটা নিয়ম। কারও সঙ্গে প্রতারণা তো করছ না। তুমি এমন কিছু করছ না, যেটা খেলার অংশ নয়। ব্যাটারদের উচিত নিজেদের কাজ ঠিক মতো জানা।’’

নিয়মটি নতুন বলেই অনেকের মানিয়ে নিতে অসুবিধা হচ্ছে বলে মনে করেন শাস্ত্রী। মাঁকড়ীয় আউট করার আগে ব্যাটারকে সতর্ক করার আদৌ প্রয়োজন রয়েছে বলেও মনে করেন না ভারতীয় দলের প্রাক্তন কোচ। শাস্ত্রী বলেছেন, ‘‘অনেকে ক্ষুব্ধ হচ্ছে। কারণ এই নিয়মটা আগে ছিল না। আমার মতে, নিয়ম হয়ে যাওয়ার পর এক বার সতর্ক করে দ্বিতীয় বারে আউট করার কোনও যুক্তি থাকতে পারে না। আইন হওয়ার পরেও এটাকে প্রতারণা বলা হচ্ছে। কোনও ব্যাটার আগেই ক্রিজ থেকে বেরিয়ে গেলে সেই আসলে প্রতারণা করছে। এটা অনৈতিক সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা। প্রতিপক্ষ এবং বোলারের কাছ থেকে সুযোগ চুরি করে নেওয়া। তাই নিজের জায়গায় থাক। আনন্দে থাক।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE