Advertisement
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
Ravichandran Ashwin

Ashwin: টেস্ট ক্রিকেটে শাস্ত্রীয় নীতি মানতে নারাজ অশ্বিন

রবি শাস্ত্রী আগামী টেস্ট ক্রিকেট শুধু মাত্র তিন-চারটি দেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখার কথা বলেছিলেন। অশ্বিন সেটা মানতে নারাজ।

—ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৫ অগস্ট ২০২২ ১৭:২৯
Share: Save:

রবি শাস্ত্রী উপদেশ দিয়েছিলেন ক্রমতালিকায় শুধু প্রথম তিন-চারটি দলের মধ্যে টেস্ট খেলা হোক। রবিচন্দ্রন অশ্বিন যদিও এই ধরনের পরিবর্তন মানতে রাজি নন। তিনি মনে করেন না এতে কোনও উন্নতি হবে।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে অশ্বিন বলেন, “কিছু দিন আগে রবি ভাই বলে, মাত্র তিন-চারটে দেশ নিয়ে টেস্ট খেলা হোক। কিন্তু এ রকম হলে আয়ারল্যান্ডের মতো দেশ টেস্ট খেলার সুযোগ পাবে না। প্রশ্ন উঠতেই পারে টেস্ট ক্রিকেটের সঙ্গে টি-টোয়েন্টির কী সম্পর্ক? টেস্ট ক্রিকেট খেলব মনে করলেই এক মাত্র প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে উন্নতি হতে পারে। আর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের পরিকাঠামো উন্নতি হলে একাধিক ক্রিকেটার খেলার সুযোগ পাবে। এই ভাবেই ক্রিকেট খেলা হয়।”

ভারতে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট শক্তিশালী। অশ্বিন জানান, এই কারণেই ভারতীয় ক্রিকেট আন্তর্জাতিক মঞ্চেও দাপট দেখাতে পারে। ভারতীয় স্পিনার বলেন, “তিনটি দেশ আছে যারা টেস্ট ক্রিকেটে সেরা। ভারত, ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়া। এই দেশগুলোর ঘরোয়া ক্রিকেট শক্তিশালী। অনেকে বলছেন ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটকে আরও শক্তিশালী করা যায় কি না। নবদীপ সাইনি, ওয়াশিংটন সুন্দরের মতো ক্রিকেটাররা ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটে খেলে সাফল্য পাচ্ছে। সে রকম ভাবে রঞ্জিতে বিদেশি ক্রিকেটাররা খেলতে পারে কি না, সেই নিয়েও ভাবা দরকার।”

অশ্বিন আরও বলেন, “প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটকে কী ভাবে আরও শক্তিশালী করা যায় তা নিয়ে ভাবতে হবে। তার জন্য সব দেশে টেস্ট ক্রিকেটকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। না হলে ক্রিকেট গুরুত্ব হারিয়ে ফেলবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজে রয়েছি এখন। এখানে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট প্রায় উঠে গিয়েছে। চারিদিকে শুধু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.