Advertisement
২২ জুন ২০২৪
WTC Final 2023

গিল আউট ছিলেন? বিতর্ক ক্রিকেটবিশ্ব জুড়ে, আগুনে ঘি ঢালল খোদ শুভমনের টুইট!

ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসে শুভমনের আউট ঘিরে ক্ষুব্ধ ভারতীয় শিবির। তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে খুশি নন দর্শকরা। আউটের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ শুভমন নিজেই।

picture of Shubman Gill

আউট হওয়ার পর বিস্মিত শুভমন। ছবি: আইসিসি।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ১০ জুন ২০২৩ ২১:০২
Share: Save:

শুভমন গিল কি আউট ছিলেন? টেস্ট বিশ্বকাপ ফাইনালের চতুর্থ দিন ভারতীয় ওপেনারের আউট ঘিরে উঠল প্রশ্ন। স্কট বোল্যান্ডের বল শুভমনের ব্যাট ছুঁয়ে স্লিপে যায়। তৃতীয় স্লিপে দাঁড়িয়ে থাকা ক্যামেরন গ্রিন বাঁদিকে ঝাঁপিয়ে ক্যাচ ধরেন। এই ক্যাচ নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন। চতুর্থ দিনের খেলা শেষ হওয়ার পরে সেই বিতর্কে ঘি ঢেলেছেন শুভমন নিজেই। ওই ক্যাচের ছবি টুইট করেছেন তিনি। শুভমন কোনও মন্তব্য করেননি। যদিও ছবি দেখে মনে হচ্ছে ক্যাচ নেওয়ার সময় বল মাটিতে ঠেকেছে।

প্যাট কামিন্সরা আউটের আবেদন করেন। মাঠের আম্পায়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি। তিনি তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে পাঠিয়ে দেন। টেলিভিশন রিপ্লেতে বার বার দেখানো হয় গ্রিনের নেওয়া ক্যাচ। টেলিভিশনে রিপ্লে দেখে মনে হয়েছে, ক্যাচ সম্পূর্ণ হওয়ার আগে বল মাটি স্পর্শ করেছে। ক্যাচের ছবিতেও দেখা যাচ্ছে, গ্রিনের দুই আঙুলের ফাঁক দিয়ে বল মাটি ছুঁয়েছে। তৃতীয় আম্পায়ার রিচার্ড কেটেলবরো বার বার রিপ্লে দেখেও কী ভাবে শুভমনকে আউট দিলেন, তা নিয়ে স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে।

শুভমনকে বিতর্কিত আউট দেওয়ায় খুশি নন ভারতীয় দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। মাঠের জায়ান্ট স্ক্রিনে আউটের সিদ্ধান্ত ভেসে উঠতেই মাথা নাড়তে দেখা যায় রোহিতকে। তিনি যে খুশি নন, তা সরাসরি জানান মাঠের আম্পায়ারদেরও। দেখে বোঝা যাচ্ছিল তিনি যথেষ্ট বিরক্ত। শুভমনের আউট ঘিরে ক্ষুব্ধ ভারতীয় দল। ক্ষুব্ধ দর্শকরাও। শুভমনের আউটের পরই চা পানের বিরতি ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। সে সময় দর্শকরা ‘চিট’, ‘চিট’ বলে চিৎকার শুরু করেন। তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে বিদ্রুপ করেন মাঠে উপস্থিত ক্রিকেটপ্রেমীদের একাংশ।

প্রাক্তন ক্রিকেটারেরাও মনে করছেন শুভমনকে আউট দেওয়া ঠিক হয়নি। রিকি পন্টিং বলেছেন, ‘‘বল গ্রিনের হাতে পৌঁছনোর সময় মাটি থেকে ইঞ্চি ছয়েক উপরে ছিল। কিন্তু নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না ক্যাচ সম্পূর্ণ হওয়ার আগে বল মাটি স্পর্শ করেনি। রোহিত কেন ক্ষুব্ধ হয়ে আম্পায়ারদের সঙ্গে কথা বলেছে বুঝতে পারছি। শুভমনের হতাশাও স্বাভাবিক।’’ কুমার সাঙ্গাকারা বলেছেন, ‘‘গ্রিনের আঙুল বলের নীচে থাকলেও বল মাটি স্পর্শ করেনি, তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। এমনও হতে পারে বল মাটি ছোঁয়ার জন্যই গ্রিন ভাল ভাবে বল ধরতে পেরেছে। এই ধরনের ক্ষেত্রে আম্পায়াররা সাধারণত আউট দেন না।’’

picture of WTC final 2023

(উপরে) গ্রিনের নেওয়া এই ক্যাচ নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। (নীচে) তৃতীয় আম্পায়ারের আউটের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ রোহিত, হতাশ শুভমন। ছবি: সংগৃহীত।

রবি শাস্ত্রীও শুভমনের আউটের সিদ্ধান্তে বিরক্ত। ভারতীয় দলের প্রাক্তন কোচ বলেছেন, ‘‘তৃতীয় আম্পায়ার মনে করেছেন বলের নীচে গ্রিনের আঙুল ছিল। প্রশ্ন হচ্ছে, গ্রিন বল ধরার পর সেটা মাটি স্পর্শ করেছে কি না? এটা কি নিশ্চিত ভাবে বলা যাচ্ছে।’’ তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে খুশি নন সুনীল গাওস্করও। তিনি বলেছেন, ‘‘মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের আগে তৃতীয় আম্পায়ারকে অকাট্য প্রমাণ বার করতে হয়।’’ গাওস্কর বোঝাতে চেয়েছেন, শুভমনের ক্ষেত্রে তৃতীয় আম্পায়ার তেমন কোনও প্রমাণ ছাড়াই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE