Advertisement
২৫ জুলাই ২০২৪
Virat Kohli

লেগে গেল আক্রম-ইউনিসের, পাকিস্তানের বিশ্বত্রাস জুটি ভেঙে দিলেন কোহলি!

বাবরের দলকে হারানোই শেষ নয়। এ বার পাকিস্তানের বিশ্বত্রাস প্রাক্তন জুটির মধ্যে কার্যত লড়াই বাধিয়ে দিলেন কোহলি। বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচের একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে লেগে গেল তাঁদের মধ্যে।

কোহলির নো বলের ইশারা নিয়ে বিভক্ত আক্রম-ইউনিস।

কোহলির নো বলের ইশারা নিয়ে বিভক্ত আক্রম-ইউনিস। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০২২ ১৩:৪৫
Share: Save:

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখন সব থেকে আলোচিত ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। আম্পায়ারকে নো বলের সঙ্কেত দেওয়া বা ভুয়ো ফিল্ডিংয়ের মতো ঘটনা ঘিরে কোহলির সমালোচনা হচ্ছে। এ বার মুখ খুললেন ওয়াকার ইউনিস। যদিও কোহলির পাশে দাঁড়িয়েছেন ক্রিকেটজীবনের তাঁর নতুন বলের সঙ্গী ওয়াসিম আক্রম।

পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার অবশ্য সরাসরি কোহলির সমালোচনা করেনি। তাঁর মতে কোহলি আম্পায়ারের উপর চাপ তৈরি করতে চাইছেন। ইউনিস বলেছেন, ‘‘এখনকার ক্রিকেটে কোহলি নিঃসন্দেহে বড় নাম। ও মাঠে থাকলে আম্পায়াররা চাপে থাকেন এবং কিছুটা বাধ্য হয়ে সিদ্ধান্ত নেন। শাকিব আল হাসান ওকে বলেছিল, তুমি ব্যাট করো। আম্পায়ারকে নিজের কাজ করতে দাও। শাকিব ঠিকই করেছিল। আমিও সেটাই বলতে চাইছি। কোহলি নিজে ইশারা করে কিছু বোঝাতে চাইলে আম্পায়ারের উপর চাপ তৈরি হতে পারে।’’ শোয়েব মালিকের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে এক আলোচনায় এই মন্তব্য করেছেন ইউনিস।

পাকিস্তান এবং বাংলাদেশের একাধিক প্রাক্তন ক্রিকেটার কোহলির সমালোচনা করলেও ভারতীয় ব্যাটার পাশে পেয়েছেন পাকিস্তানের আর এক প্রাক্তন অধিনায়ককে। ক্রিকেটজীবনে নতুন বলের সঙ্গীর সঙ্গে এক মত নন আক্রম। তিনি কোহলির দোষ দেখছেন না আম্পায়ারকে নো বলের ইশারা করার ঘটনায়। আক্রম আগেই বলেছেন, ‘‘আমার মনে হয় ব্যাটারদের কাছে এটা খুবই স্বাভাবিক বিষয়। কোনও বল তাদের ওয়াইড মনে হলে আম্পায়ারের দিকে ইশারা করে। নতুন কোনও নিয়ম তৈরি হয়েছে কি না জানি না। এখনকার ক্রিকেটাররা ভাল বলতে পারবে।’’

বিপক্ষের সেরা বোলার বা ব্যাটারকে বেছে নিয়ে আক্রমণ করার কৌশল ক্রিকেট নতুন নয়। প্রতিপক্ষ দলের মনোবল ভাঙতে এমন পরিকল্পনা করা হয়। ছন্দে ফেরা কোহলিকেও অনেকটা সে ভাবেই লক্ষ্য করে ফেলা হয়েছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের অন্যতম সেরা ব্যাটারের একাধিক ভূমিকা নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা, সমালোচনা। কেউ তাঁর বিপক্ষে। কেউ আবার কোহলির পক্ষে। সব মিলিয়ে ব্যাট হাতে পারফরম্যান্স হোক বা মাঠের আচরণ— আলোচনার ভরকেন্দ্র কোহলিই।

বাবর আজ়মের দলের বিরুদ্ধে ৮২ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে বিশ্বকাপ শুরু করেছিলেন কোহলি। তার পর ৪টি ম্যাচ খেলে ২২০ রান করেছেন। তিনিই এখনও পর্যন্ত এ বারের বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রানশিকারি। তিনটি অর্ধশতরান এসেছে তাঁর ব্যাট থেকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE