Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
PCB

বিশ্বকাপের আগে ঝামেলা বাড়ছে পাকিস্তানে, শাহিন নিয়ে বোর্ডের বিরুদ্ধে আবার এক প্রাক্তনের তোপ

শাহিন আফ্রিদির চোট নিয়ে এ বার তোপ দেগেছেন সলমন বাট। জানিয়েছেন, ক্রিকেটারদের যদি নিজের গাঁটের কড়ি খরচ করিয়েই চিকিৎসা করাতে হয়, তা হলে বোর্ড আছে কী করতে? কেন্দ্রীয় চুক্তিরই বা অর্থ কী?

শাহিনকে নিয়ে বোর্ডকে তোপ প্রাক্তনের।

শাহিনকে নিয়ে বোর্ডকে তোপ প্রাক্তনের। ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:৪২
Share: Save:

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে পাকিস্তানে ঝামেলা কমছেই না। শাহিদ আফ্রিদির পর এ বার আরও প্রাক্তন ক্রিকেটার তোপ দাগলেন বোর্ডের উদ্দেশে। শাহিন আফ্রিদির চোট নিয়ে এ বার মুখ খুলেছেন সলমন বাট। জানিয়েছেন, ক্রিকেটারদের যদি নিজের গাঁটের কড়ি খরচ করিয়েই চিকিৎসা করাতে হয়, তা হলে বোর্ড আছে কী করতে? কেন্দ্রীয় চুক্তিরই বা অর্থ কী?

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বাট বলেছেন, “বোর্ড বলেছে চিকিৎসার খরচ দিয়ে দেবে? তা হলে কেন্দ্রীয় চুক্তিতে কি চিকিৎসার খরচ ধরা হয় না? রাজ্য দলের ক্রিকেটার হলেও কেন্দ্রীয় চুক্তিতে তার চিকিৎসার খরচ থাকা উচিত। কেন টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বলা হবে? কেন ক্রিকেটারকে নিজের টাকায় চিকিৎসা করাতে হবে?”

এখানেই না থেমে বাট আরও বলেছেন, “ওরা দেশে-বিদেশে দলকে নিয়ে যাচ্ছে। এ দিকে একজন ক্রিকেটারের জন্যে বিমানের টিকিট বুক করে দিতে পারে না? কেন একজন ক্রিকেটারকে এ সব নিয়ে ভাবতে হবে। যদি আপৎকালীন অবস্থা হত, তা হলে না হয় ক্রিকেটারকে অনুরোধ করা যেত নিজে টিকিট কেটে নেওয়ার জন্য। কিন্তু এখানে শাহিন তিন সপ্তাহ দলের সঙ্গে ছিল এবং ওর চিকিৎসা করাতে যাওয়ার বিষয়টিও নিশ্চিত ছিল। তাতেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।”

উল্লেখ্য, শ্রীলঙ্কা সফরে চোট পেয়েছিলেন শাহিন। সেই নিয়ে পাক বোর্ডের উদাসীনতা নিয়ে সমালোচনা করেছিলেন শাহিদ আফ্রিদি। এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “শাহিনকে সুস্থ করতে পিসিবি কিছুই করেনি। শাহিন নিজের খরচে লন্ডনের টিকিট কেটেছে। হোটেলে ঘর ভাড়া নিয়েছে। আমি ওর চিকিৎসকের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। লন্ডন পৌঁছে আমার ঠিক করে দেওয়া চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করে শাহিন। সম্পূর্ণ নিজের চেষ্টাতেই ও সুস্থ হয়েছে।” পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক আরও বলেছেন, “সমস্ত খরচ নিজেই করেছে শাহিন। থাকা, খাওয়া, চিকিৎসা— সব খরচ। যত দূর জানি, জাকির খান (পিসিবির ডিরেক্টর অব ক্রিকেট) বার দুয়েক ওর সঙ্গে কথা বলেই দায়িত্ব সেরেছেন।”

আফ্রিদির এই অভিযোগ পরে অবশ্য উড়িয়ে দেয় পিসিবি। আফ্রিদির দাবির কোনও সত্যতা নেই বলে জানায় তারা। এক বিবৃতিতে পাক বোর্ড লেখে, ‘ক্রিকেটারদের চোট আঘাত থেকে মুক্ত করতে বোর্ড সব সময় আন্তরিক এবং দায়িত্বশীল। চিকিৎসার ব্যবস্থা করা বা চিকিৎসা পরবর্তী প্রক্রিয়ায় সব সময় সাহায্য করে বোর্ড।’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE