Advertisement
২২ এপ্রিল ২০২৪
WPL 2024

হরমনপ্রীতহীন মুম্বইয়ের হার মহিলাদের আইপিএলে, প্রথম জয় পেল ইউপি ওয়ারিয়র্স

চোটের জন্য বুধবার খেলতে পারলেন না হরমনপ্রীত। তাঁর অনুপস্থিতিতে প্রতিযোগিতায় প্রথম বার হারতে হল গত বারের চ্যাম্পিয়নদের। অন্য দিকে প্রথম জয় তুলে নিল হিলির ওয়ারিয়র্স।

picture of WPL 2024

জয়ের উচ্ছ্বাস ইউপি ওয়ারিয়র্সের ক্রিকেটারদের। ছবি: বিসিসিআই।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ২২:৩৪
Share: Save:

মহিলাদের প্রিমিয়ার লিগে প্রথম দু’টি ম্যাচে জয়ের পর হারের স্বাদ পেল গত বারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। বুধবার হরমনপ্রীত কৌরের দল হারল ইউপি ওয়ারিয়র্সের কাছে। প্রথম ব্যাট করে মুম্বই করে ৬ উইকেটে ১৬১। জবাবে ১৬.৩ ওভারে ৩ উইকেটে ১৬৩ রান অ্যালিসা হিলির দলের। এ বারের প্রতিযোগিতায় প্রথম জয়ের স্বাদ পেল ওয়ারিয়র্স।

ওয়ারিয়র্সের বিরুদ্ধে বুধবার অবশ্য খেলেননি হরমনপ্রীত। তাঁর পরিবর্তে মুম্বইকে নেতৃত্ব দেন ন্যাট সিভার ব্রান্ট। টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন ওয়ারিয়র্স অধিনায়ক হিলি। মুম্বই প্রথমে ব্যাট করার সুযোগ কাজে লাগিয়ে লড়াই করার মতো রান তুলে নেয়। মুম্বইয়ের ওপেনার হেইলি ম্যাথিউজ ৪৭ বলে ৫৫ রান করেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ়ের ব্যাটারের ইনিংসে ছিল ৯টি চার এবং ১টি ছয়। অন্য ওপেনার যষ্ঠিকা ভাটিয়া করেন ২২ বলে ২৬। ৩টি চার এবং ১টি ছয় মারেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটার। মুম্বইয়ের আর কোনও ব্যাটার বড় রান না পেলেও সকলেই কিছু না কিছু অবদান রেখেছেন। ব্রান্ট (১৪ বলে ১৯), অ্যামেলিয়া কের (১৬ বলে ২৩), পূজা বস্ত্রকর (১২ বলে ১৮), ইসি অংয়েরা (৬ বলে অপরাজিত ১৫) স্কোর বোর্ড সচল রেখেছিলেন। ওয়ারিয়র্সের সফলতম বোলার গ্রেস হ্যারিস ২০ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন। ২৫ রান দিয়ে ১ উইকেট সোফি একলেস্টনের। হিলি পাঁচ জন বোলারকে ব্যবহার করেছেন। প্রত্যেকেই ১টি করে উইকেট নিয়েছেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে আগ্রাসী মেজাজে শুরু করেন ওয়ারিয়র্সের দুই ওপেনার। অধিনায়ক হিলি ২৯ বলে ৩৩ রান করেন। তাঁর ইনিংসে রয়েছে ৫টি চার। অস্ট্রেলীয় উইকেটরক্ষক-ব্যাটারের থেকেও বেশি আগ্রাসী ছিলেন কিরণ নভগিরে। ২৯ বছরের ভারতীয় ব্যাটার ৩১ বলে ৫৭ রানের ইনিংস খেলেন। ৬টি চার এবং ৪টি ছক্কা দিয়ে নিজের ইনিংসটি সাজিয়েছেন তিনি। প্রথম উইকেটের জুটিতে হিলি এবং কিরণ তোলেন ৯৪ রান। তিন নম্বরে নেমে অবশ্য রান পেলেন না তাহিলা ম্যাকগ্রা (১)। এর পর জুটি গড়েন হ্যারিস এবং দীপ্তি শর্মা। দু’জনেই আগ্রাসী মেজাজে খেলে দ্রুত জয় তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকলেন দু’জনেই। হ্যারিস ১৭ বলে ৩৮ রানের ইনিংস খেললেন ৬টি চার এবং ১টি ছক্কার সাহায্যে। দীপ্তির অবদান ২০ বলে ২৭। ৪টি চার মারলেন তিনি। মুম্বইয়ের কোনও বোলারই এ দিন প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে পারেননি। সফলতম অং ৩০ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন। ৩৪ রানে ১ উইকেট কেরের।

এ দিনের হারের পরেও পয়েন্ট তালিকায় তিন ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থান ধরে রাখল মুম্বই। অন্য দিকে, সম সংখ্যক ম্যাচে ২ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানেই থাকল ওয়ারিয়র্স।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE