Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
Wasim Akram

কী করছ তুমি? বাবরদের ব্যাটিং দেখে পাক ব্যাটিং কোচকে প্রশ্ন আক্রমের

পাক ব্যাটারদের খেলায় বৈচিত্র্য নেই কেন? বাবররা কেন মাঠের বিভিন্ন দিকে শট মারতে পারেন না? ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ষষ্ঠ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের পর দলের ব্যাটিং কোচকে প্রশ্ন করলেন আক্রম।

বাবরদের ব্যাটিং দেখে হতাশ আক্রম।

বাবরদের ব্যাটিং দেখে হতাশ আক্রম। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০২ অক্টোবর ২০২২ ১৯:২৬
Share: Save:

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ষষ্ঠ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পাকিস্তানের হারের জন্য ব্যাটারদেরই দায়ী করলেন ওয়াসিম আক্রম। প্রাক্তন অধিনায়ক সমালোচনা করেছেন জাতীয় দলের ব্যাটিং কোচ মহম্মদ ইউসুফেরও। হাতের কাছে পেয়ে তাঁকে দু’কথা শুনিয়েও দিলেন। ইউসুফ অবশ্য ব্যাটারদের পাশেই দাঁড়িয়েছেন।

Advertisement

ম্যাচের শেষে ধারাভাষ্যকার আক্রম সরাসরি দলের ব্যাটিং নিয়ে প্রশ্ন করেন ইউসুফকে। বাবর আজমের দলের ব্যাটিংয়ে হতাশ আক্রম। তিনি কারও মধ্যে বাড়তি কোনও চেষ্টা দেখেননি। পাক ব্যাটারদের খেলায় কোনও বৈচিত্র না দেখে ক্ষুব্ধ তিনি। পাক ব্যাটিং কোচকে আক্রম বলেন, ব্যাটাররা মাঠের ৩৬০ ডিগ্রি এলাকায় শট নাই মারতে পারে। সেটা বেশ কঠিন। অন্তত ১৮০ ডিগ্রি এলাকায় কেন শট খেলতে পারছে না?

আক্রম বলেন, ‘‘বেন ডাকেটের ব্যাটিং দেখা উচিত। কোনও বোলারকেই ছাড় দেয়নি। স্পিনারদের বিরুদ্ধেও শট নিয়েছে উইকেটে থিতু হওয়ার পর। মাঠের সব দিকে শট নিয়েছে। আমি যদি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলতাম, তা হলে জানতাম ব্যাটাররা কোথায় কোথায় শট নিয়ে পারে। ওদের কারও বৈচিত্র্য নেই। কাউকে চেষ্টা করতেই দেখলাম না। মাঠের সব দিকে, ৩৬০ ডিগ্রি এলাকায় শট নিতে বললে হবে না। সেটা বেশ কঠিন। অন্তত ১৮০ ডিগ্রি এলাকায় কেন শট নিতে পারবে না? তুমি কি ওদের সেই অনুশীলন করাও না। তুমি যদি ওদের অনুশীলন করাও, তা হলে কেন ওরা ম্যাচে নিজেদের প্রয়োগ করতে পারছে না?’’

আক্রমের প্রশ্নের উত্তরে ইউসুফ বলেন, ‘‘ব্যাটাররা সেরাটা দিয়েই চেষ্টা করেছে। বিষয়টা নিয়ে প্রধান কোচ সাকলিন মুস্তাকের সঙ্গেও কথা বলেছি। অনুশীলনে ওরা যখন স্পিনারদের খেলে, তখন পিছনে দাঁড়িয়ে থাকি। ব্যাটারদের নানারকম শট খেলার কথা বলি। কোন বলে কেমন শট খেলা উচিত, তা বুঝিয়ে দিই।’’

Advertisement

আক্রমের প্রশ্নের জবাবে ইউসুফ আরও বলেন, ‘‘প্রথম পর্যায় নেটে অনুশীলন করতে হয়। দ্বিতীয় পর্যায় প্রস্তুতি ম্যাচে প্রয়োগ করতে হয়। আমরা আসলে তেমন প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাইনি। ব্যাটারদের বোঝানোর চেষ্টা করছি, নতুন শট খেলতে গিয়ে কেউ আউট হলেও সমস্যা নেই। আধুনিক ক্রিকেট প্রায় প্রতি বলেই বাউন্ডারি চায়। কঠিন বলেও এক রান করতে হয়। এখনকার ক্রিকেটের এটাই চাহিদা। আমাদের ক্রিকেটাররা সেটা জানে এবং চেষ্টাও করছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.