×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০১ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

MIthali Raj: ওসাকার উল্টো সুর মিতালির, বললেন, ‘সংবাদমাধ্যমকে দরকার’

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০২ জুন ২০২১ ১৩:৫১
নেয়োমি ওসাকার প্রতি সমব্যথী হলেও  সংবাদমাধ্যমকে এড়িয়ে যাওয়ার বিষয়ে একমত নন মিতালি রাজ।

নেয়োমি ওসাকার প্রতি সমব্যথী হলেও সংবাদমাধ্যমকে এড়িয়ে যাওয়ার বিষয়ে একমত নন মিতালি রাজ।

টেনিস তারকা নেয়োমি ওসাকার মানসিক যন্ত্রণা তিনি বুঝতে পারছেন। তবে সংবাদমাধ্যমের বিরোধিতা করা নিয়ে তাঁর সঙ্গে একমত নন মিতালি রাজ। ভারতের প্রমীলা বাহিনীর টেস্ট ও একদিনের দলের অধিনায়কের মতে, যে জায়গায় এই মুহূর্তে ভারতীয় মহিলা দল রয়েছে, সেখানে সংবাদমাধ্যমের পাশে থাকা খুবই জরুরী। তাই প্রচার মাধ্যমকে এড়িয়ে যাওয়ার ব্যাপারে জাপানি খেলোয়াড়ের সঙ্গে একমত নন মহিলাদের একদিনের ক্রিকেটে সর্বাধিক রান সংগ্রাহক।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে বিলেত উড়ে যাওয়ার আগে সাংবাদিক সম্মেলন করেন মিতালি। সেখানে ওসাকার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মিতালি বলেন, “দেখুন নিভৃতবাসে দিনের পর দিন থাকলে যে কোনও খেলোয়াড়ের মানসিক অবস্থা খারাপ হয়। তবে তাই বলে কোনও প্রতিযোগিতায় খেলতে নামার আগে ও খেলার পর সাংবাদিকদের এড়িয়ে যাওয়া সঠিক সিদ্ধান্ত নয়।”

ওসাকার সিদ্ধান্ত নিয়ে খোলাখুলি মন্তব্য না করলেও মিতালি এরপর বলেন, “সাংবাদিক সম্মেলন না করা কিংবা সাংবাদিকদের এড়িয়ে যাওয়ার ব্যাপারটা ব্যক্তিগত ভাবে আমার মাথায় কোনও দিন আসেনি। কারণ এই মুহূর্তে আমাদের দেশের মহিলা ক্রিকেট যে জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে, সেখানে সংবাদমাধ্যমকে পাশে পাওয়া খুবই জরুরী। তাছাড়া যারা মহিলা ক্রিকেটের সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে আছে তাঁদেরও এই খেলার উন্নতির জন্য চিন্তা ভাবনা করা দরকার। তাছাড়া সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখলে তো আমাদের মহিলা ক্রিকেটের প্রচার হবে। সেটাও তো মাথায় রাখা উচিত।”

Advertisement

সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে ফরাসি ওপেন থেকে সরে গিয়েছিলেন ২৩ বছরের ওসাকা। প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বে জয় পেলেও সোমবার জাপানের এই মহিলা টেনিস তারকা টুইট করে লিখেছিলেন, ‘আমি সরে গেলে এই প্রতিযোগিতা, অন্য টেনিস খেলোয়াড় এবং বাকি সকলের জন্য ভাল হবে। সকলে তা হলে খেলায় মন দিতে পারবে’।

Advertisement