Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৭ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

এদুর চোট, দলের ক্লান্তি এখন চিন্তা গোয়া কোচের

ফতোরদায় আগের ম্যাচে ১৪ মিনিটে অসাধারণ গোল করে গোয়াকে এগিয়ে দিয়েছিলেন এদু-ই। চার মিনিটের মধ্যেই সমতা ফেরান মাহদি তোরাবি। ২৪ মিনিটে পার্সিপোলি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৩ এপ্রিল ২০২১ ০৬:০৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রস্তুতি: ঠাসা সূচি কঠিন পরীক্ষা, বলছেন কোচ খুয়ান। টুইটার

প্রস্তুতি: ঠাসা সূচি কঠিন পরীক্ষা, বলছেন কোচ খুয়ান। টুইটার

Popup Close

এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পার্সিপোলিসের বিরুদ্ধে প্রথম পর্বের দ্বৈরথে এগিয়ে গিয়েও হেরে গিয়েছিল এফসি গোয়া। আজ, শুক্রবার দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচের আগে খুয়ান ফেরান্দোর উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ফুটবলারদের ক্লান্তি ও এদু বেদিয়ার চোট।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে হতাশ গোয়া কোচ বলেছেন, “২০ দিনে ছ’টি ম্যাচ খেলা সব দলের পক্ষেই কঠিন। কিন্তু কিছু করার নেই। আমাদের প্রস্তুত থাকতেই হবে ম্যাচের জন্য।”

গত মঙ্গলবারের ম্যাচে ৬৭ মিনিটে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন এদু। চিন্তিত খুয়ান বলেছেন, “এদু আমাদের অধিনায়ক। আগের ম্যাচে ও চোট পেয়েছিল। আমাদের ফিজিয়োথেরাপিস্ট চেষ্টা করছেন এদুকে সুস্থ করে তোলার।” সুস্থ থাকলেও শুক্রবার গোয়া অধিনায়ক খেলতে পারতেন না আগের ম্যাচে হলুদ কার্ড দেখায়। খুয়ান অবশ্য চিন্তিত পরের ম্যাচেগুলোয় এদুকে পাওয়া নিয়ে।

Advertisement

ফতোরদায় আগের ম্যাচে ১৪ মিনিটে অসাধারণ গোল করে গোয়াকে এগিয়ে দিয়েছিলেন এদু-ই। চার মিনিটের মধ্যেই সমতা ফেরান মাহদি তোরাবি। ২৪ মিনিটে পার্সিপোলিসকে ২-১ এগিয়ে দেন সৈয়দ জালাল হোসেইনি। হারের পরে গোয়া কোচ খোলাখুলি জানিয়েছিলেন, এশিয়ার অন্যতম সেরা দলের বিরুদ্ধে স্নায়ুচাপেও ভুগছিলেন গ্লেন মার্টিন্সরা। এই কারণেই ম্যাচের মধ্যে অসংখ্য ভুল করেছেন গোয়ার ফুটবলারেরা। শুক্রবার তাঁরা কি পারবেন পার্সিপোলিসকে হারিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে? খুয়ানের কথায়, “আগের ম্যাচের নিরিখে এ বারের রণকৌশল ঠিক করতে হবে। ভাল ফল করার আশা নিয়েই আমরা মাঠে নামব। কোচ হিসেবে আমার দায়িত্ব সেরা দল নির্বাচন করা।” তিনি যোগ করেছেন, “এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা সহজ নয়। প্রত্যাশার চাপও প্রচুর থাকে। ছেলেদের খেলায় আমি খুশি হলেও মনে করি, ওদের আরও উন্নতি করতে হবে। কারণ, আগের ম্যাচে আমরা পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পারিনি বলেই হেরে গিয়েছিলাম।”

জয়ের হ্যাটট্রিক করে নয় পয়েন্ট নিয়ে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ‘ই’ গ্রুপের শীর্ষ স্থানে রয়েছে পার্সিপোলিস। দ্বিতীয় স্থানে থাকা আল ওয়াহাদা-র তিন ম্যাচে চার পয়েন্ট। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে দুই পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে রয়েছে গোয়া।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠক কোচের সঙ্গে এসেছিলেন ব্রেন্ডনও। তাঁর কথায়, “আইএসএলের চেয়ে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মান অনেক উঁচুতে। অনেক বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক। এই ধরনের ম্যাচ থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার রয়েছে।”

চিন্তিত পার্সিপোলিস কোচ ইয়াহা গোলমহম্মদিও। গোয়ার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচের আগে তিনি বলেছেন, “প্রথম পর্বের ম্যাচের আগে সকলেই ভেবেছিলেন, গোয়া দুর্বল দল। তা কিন্তু নয়। গোয়া নিজেদের প্রমাণ করেছে। দুর্দান্ত খেলেছে ওদের ফুটবলারেরা।” আগের ম্যাচে ব্রেন্ডন ফার্নান্দেসের ফ্রি-কিকে মাথা ছুঁইয়ে গোল করেছিলেন। যা অস্বস্তি বাড়িয়েছে পার্সিপোলিস কোচের। তিনি বলেছেন, “এই মরসুমে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আমরা এখনও পর্যন্ত সেট-পিস থেকে দু’টি গোল খেয়েছি। তাই ফ্রি-কিকের সময় আমাদের রক্ষণকে আরও মজবুত করতে হবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement