Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

মাত্র ৮৫ রানেই শেষ বিশ্বজয়ীরা, লর্ডসেই লেখা হল ইংল্যান্ডের শোকগাথা

আজ, বুধবার লর্ডসেই শোকগাথা লেখা হল ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইন আপের।

সংবাদ সংস্থা
লন্ডন ২৪ জুলাই ২০১৯ ১৮:৪৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
ইংল্যান্ডের ব্যাটিং একাই ধ্বংস করেছেন টিম মুরতাঘ। ছবি:এএফপি।

ইংল্যান্ডের ব্যাটিং একাই ধ্বংস করেছেন টিম মুরতাঘ। ছবি:এএফপি।

Popup Close

এই ইংল্যান্ডকে দেখে কে বলবে, মাত্র ১০ দিন আগে লর্ডসে বিশ্বকাপ জিতেছিল তারা! লর্ডসের ব্যালকনিতে বিশ্বকাপ হাতে ইংল্যান্ড দলের উচ্ছ্বাসের মুহূর্ত এখনও ফিকে হয়নি।

আজ, বুধবার সেই লর্ডসেই শোকগাথা লেখা হল ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইন আপের। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্টের প্রথম দিনেই মাত্র ৮৫ রানেই মুড়িয়ে গেল ইংল্যান্ড। বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের কাছে এ তো লজ্জারই ব্যাপার। অবশ্য ইংল্যান্ডের ক্রিকেটভক্তরা অন্য যুক্তি সাজাতেও পারেন। ওটা ছিল সীমিত ওভারের ক্রিকেট। আর এটা টেস্ট ক্রিকেট। দু’ ফরম্যাটের মধ্যে যে জমিন-আসমান পার্থক্য!

এ দিন আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে টস জিতে ব্যাটিং নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড। এই সিদ্ধান্তই বুমেরাং হয়ে ফেরে। আয়ারল্যান্ডের ৩৮ বছর বয়সি পেসার টিম মুরতাঘের বল বুঝতে না পেরে ইংরেজ ব্যাটসম্যানরা এলেন আর গেলেন। দুই ইংল্যান্ড ওপেনার ররি বার্নস এবং জেসন রয় ফিরে যান যথাক্রমে ছ’ রান এবং পাঁচ রানে। ১০ ওভারের শেষে ইংল্যান্ডের স্কোর ছিল তিন উইকেটে ৩৬ রান। ১৪ ওভার শেষে তা দাঁড়ায় সাত উইকেটে ৪৩। একমাত্র জো ডেনলি, স্যাম কারেন এবং স্টোন বাদে কেউই দু’ সংখ্যার রান করতে পারেননি। অধিনায়ক জো রুট ফিরে যান মাত্র সাত রানে। আইপিএল দেখেছে মইন আলির রুদ্র মূর্তি। এ দিন তিনি খাতা খুলতেই পারেননি। মাত্র ২৩.৪ ওভারেই শেষ হয়ে যায় জো রুটদের ইনিংস।

Advertisement

আয়ারল্যান্ডের টিম মুরতাঘের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের জবাব ছিল না ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যানদের কাছে। ৯ ওভারে ১৩ রান দিয়ে মুরতাঘ তুলে নেন পাঁচ-পাঁচটি উইকেট। তাঁর বিষাক্ত সুইংয়ের সামনে কার্যত আত্মসমর্পণ করতে দেখা যায় বেয়ারস্টো থেকে ক্রিস ওকসদের। কম যাননি আয়ারল্যান্ডের অন্যান্য বোলাররাও। মার্ক অ্যাডায়ার নেন তিনটি উইকেট এবং র‍্যানকিন দুটি উইকেট নেন।
আয়ারল্যান্ডের এই অভাবনীয় পারফরম্যান্স এবং বিশ্বসেরাদের এরকম ধরাশায়ী অবস্থা দেখে নেট দুনিয়ায় শুরু হয়ে যায় ব্যঙ্গবিদ্রুপ। ইংল্যান্ডের ব্যাটিং বিপর্যয় দেখে একের পর এক টুইট আছড়ে পড়ে।

আরও পড়ুন: ভারতের পরবর্তী ফিল্ডিং কোচ হচ্ছেন জন্টি রোডস?





Something isn't right! Please refresh.

Advertisement