Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
FC Barcelona

জয়ী রিয়াল-বার্সা, স্বস্তি ফিরল লুকাকুদেরও

৬৩ মিনিটে সমতা ফেরান ওউসমান দেম্বেলে। ৬৯ মিনিটে জয়ের গোল করেন ফেরান জুটগ্লা। বার্সার দ্বিতীয় দলকে নামিয়ে দিয়েছিলেন জ়াভি হার্নান্দেস।

আক্রমণ: বার্সেলোনার হয়ে গোল করার পথে দেম্বেলে। বার্সা টুইটার

আক্রমণ: বার্সেলোনার হয়ে গোল করার পথে দেম্বেলে। বার্সা টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ জানুয়ারি ২০২২ ০৫:৪৮
Share: Save:

একই রাতে স্পেনের যুযুধান দুই ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা জিতল। স্প্যানিশ কাপের তৃতীয় রাউন্ডে রিয়াল ৩-১ হারাল আলকোয়ানোকে। লিনারেস দেপোর্তিভোর বিরুদ্ধে ২-১ জয় পেল বার্সা। পাঁচ বছর পরে ক্যাম্প ন্যুর ক্লাবের জার্সি পরে মাঠে নামা সার্থক হল ৩৮ বছর বয়সি দানি আলভেসের। যদিও ১৯ মিনিটে দিয়াজ় স্যাঞ্চেস গোল করে এগিয়ে দিয়েছিলেন লিনারেসকেই।

Advertisement

৬৩ মিনিটে সমতা ফেরান ওউসমান দেম্বেলে। ৬৯ মিনিটে জয়ের গোল করেন ফেরান জুটগ্লা। বার্সার দ্বিতীয় দলকে নামিয়ে দিয়েছিলেন জ়াভি হার্নান্দেস। কিন্তু অখ্যাত লিনারেসের বিরুদ্ধেও ০-১ পিছিয়ে পড়ায় কোচ দ্বিতীয়ার্ধে দেম্বেলে, জেরার পিকে ও ফ্রেঙ্কি দে ইয়ংকে নামাতে বাধ্য হন।

আলভেস ২০১৬-তে বার্সা ছাড়েন। তাঁর সময়ে ক্লাব সিনিয়রে ৪৩টি ট্রফি জিতেছিল। পরে যোগ দেন জুভেন্টাস, প্যারিস সাঁ জারমাঁয়। দু’ক্লাবকেই লিগ চ্যাম্পিয়ন করতে তাঁর ভূমিকা ছিল। এই রাইটব্যাক দু’বার ব্রাজিলের কোপা আমেরিকাজয়ী দলে ছিলেন।

দাপট: ম্যাচ জিতে উচ্ছ্বাস রিয়াল মাদ্রিদের ফুটবলারদের। রিয়াল টুইটার

দাপট: ম্যাচ জিতে উচ্ছ্বাস রিয়াল মাদ্রিদের ফুটবলারদের। রিয়াল টুইটার

রিয়ালও খেলেছে স্পেনের ছোট ক্লাব আলকোয়ানোর সঙ্গে। গতবার যে ক্লাবের কাছে হেরেই গতবার ছিটকে যান করিম বেঞ্জেমারা। এ বার আঘটন ঘটেনি। কার্লো আনচেলোত্তির দল প্রথম গোল পায় ৩৯ মিনিটে। হেড থেকে ১-০ করেন এডার মিলিটাও। রিয়ালের অন্য দুই গোল মার্কো আসেনসিয়ো (৭৬ মিনিট) ও খুয়ান হোসের (৭৮ মিনিট, আত্মঘাতী)। ৬৬ মিনিটে অসাধারণ দক্ষতায় ১-১ করে দিয়েছিলেন দানি ভেগা।

Advertisement

এ দিকে, রোমেলু লুকাকুর কোচের কাছে ক্ষমা প্রার্থনার সৌজন্যে ক্লাবে শান্তি ফিরতেই জয়ের মুখ দেখল চেলসি। বুধবার কারাবাও কাপ সেমিফাইনালের প্রথম লেগে তারা চমকে দিল টটেনহ্যামকে ২-০ হারিয়ে। এক ম্যাচের নির্বাসন কাটিয়ে লুকাকু দলে ফিরলেও গোল করতে পারেননি। ২-০ হয় কাই হাভাৎস (৫ মিনিট) ও বেন ডেভিসের আত্মঘাতী গোলে (৩৪ মিনিট)।

মার্কো আলোন্সোর থ্রু ধরে সুযোগসন্ধানী জার্মান তারকা হাভাৎস চেলসিকে এগিয়ে দেন। দ্বিতীয় গোলটি থোমাস টুহলের ক্লাব পায় অদ্ভুত ভাবে। টটেনহ্যামের জাফেত তানগানগার হেড ডেভিসের কাঁধে লেগে জালে জড়িয়ে যাওয়ায়।

স্পার্স এ দিন বিশেষ কিছু করতেও পারেনি। একবার মাত্র হ্যারি কেনের দারুণ একটা শট চেলসি গোলরক্ষক কেপ আরিজ়াবালাগা ঝাঁপিয়ে বাঁচান। বরং চেলসিই ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ নষ্ট করেছে বেশ কয়েক বার।

দ্বিতীয় লেগের আগে আন্তোনিয়ো কন্তের দল এক সপ্তাহের মতো সময় পাচ্ছে। ০-২ পিছিয়ে পড়ায় ঘুরে দাঁড়াতে হলে ওয়েম্বলিতে তাদের সেরা ফুটবলটা খেলতেই হবে। অন্য সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয়েছে লিভারপুল ও আর্সেনাল। মহম্মদ সালাহদের প্রথম লেগের লড়াই বাতিল হয় করনোরা জন্য। নতুন সূচি অনুযায়ী খেলা হবে ১৩ ও ২০ জানুয়ারি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.