Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২৩
FIFA World Cup 2022

বিশ্বকাপ শুরুর আগেই গোল হজম ফিফার! প্রচারে প্রথম বার এক সঙ্গে মেসি, রোনাল্ডো

ফিফা যা কখনও পারেনি, তাই করে দেখাল ফ্রান্সের একটি ফ্যাশন ব্র্যান্ড। বিশ্বকাপের প্রচারে এক সঙ্গে হাজির করল মেসি এবং রোনাল্ডোকে। যদিও লড়াই থামল না দুই ফুটবলারের।

প্রথম বার বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রচারে এক সঙ্গে দেখা গেল মেসি এবং রোনাল্ডোকে।

প্রথম বার বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রচারে এক সঙ্গে দেখা গেল মেসি এবং রোনাল্ডোকে। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০২২ ১৩:৩৮
Share: Save:

কাতারে নিজেদের শেষ বিশ্বকাপ খেলতে নামবেন বিশ্বের অন্যতম দুই সেরা ফুটবলার লিয়োনেল মেসি এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। এই প্রথম দু’জনে এক সঙ্গে অংশ নিলেন বিশ্বকাপের প্রচারে। দুই ফুটবলারকে এক ছাতার তলায় নিয়ে এসেছে ফরাসি ফ্যাশন ব্র্যান্ড। বিশ্বকাপ শুরুর আগেই গোল খেয়ে গেল ফিফা।

ফুটবলজীবনে কখনও এক সঙ্গে খেলেননি মেসি এবং রোনাল্ডো। বরং পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছেন অনেক বার। বিশেষ করে ক্লাব ফুটবলে তাঁদের দ্বৈরথকে কেন্দ্র করে বহু বার উত্তাল হয়েছে ফুটবল বিশ্ব। আড়াআড়ি বিভক্ত হয়ে গিয়েছেন ফুটবলপ্রেমীরা। সেই মেসি এবং রোনাল্ডোই এ বার এক সঙ্গে। এক ফ্রেমে। কাতার বিশ্বকাপের প্রচারের জন্য পাশাপাশি এসেছেন আর্জেন্টিনা এবং পর্তুগালের অধিনায়ক। ফরাসি ফ্যাশন ব্র্যান্ড লুই ভিতঁ, তাদের নতুন বিজ্ঞাপনে এক সঙ্গে হাজির করিয়েছে দু’জনকে।

পাশাপাশি নয়। এখানেও তাঁদের অবস্থান মুখোমুখি। প্রতিপক্ষের ভুমিকায় দেখা যাচ্ছে তাঁদের। ১০ জনের বদলে ১৬ জন সতীর্থ নিয়ে লড়াইয়ে নেমেছেন দুই তারকা। তাঁরাই চালনা করছেন সতীর্থদের। বিশ্বকাপের প্রচারের লড়াইয়ে মেসি এবং রোনাল্ডোর সতীর্থরা সকলেই দাবার ঘুঁটি। চোয়াল শক্ত করে ৬৪ ঘরের লড়াইয়ে পরস্পরকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছেন। তাঁদের দু’জনের এই ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সমাজমাধ্যমেও।

মেসির প্রশংসা শোনা গিয়েছে রোনাল্ডোর মুখে। পর্তুগিজ ফুটবলার বলেছেন, ‘‘দুর্দান্ত খেলোয়া়ড়, জাদুকর। মানুষ হিসাবেও দুর্দান্ত। ১৬ বছর ধরে আমরা এই মঞ্চে রয়েছি। ভাবতে পারেন ১৬ বছর! ওর সঙ্গে আমার দারুণ সম্পর্ক। সে অর্থে আমি ওর বন্ধু নই। ওর সঙ্গে আমার ফোনে কথা হয় না। কেউ কারও বাড়িতেও যাই না। তবু মেসি আমার কাছে এক জন সতীর্থের মতো।’’ রোনাল্ডো আরও বলেছেন, ‘‘মেসি এমন এক জন মানুষ, যাকে আমি সত্যিই শ্রদ্ধা করি। আমার সম্পর্কে সব সময় ভাল কথা বলে। ওর স্ত্রী এবং আমার বান্ধবীর মধ্যেও পারস্পরিক শ্রদ্ধা রয়েছে। ওরা দু’জনেই আর্জেন্টিনার। আমার বান্ধবীও আর্জেন্টিনার মানুষ। মেসি সম্পর্কে আর কী বলব! ও এক জন দুর্দান্ত মানুষ যে ফুটবলকে অনেক কিছু দিয়েছে।’’

২০২৬ সালের বিশ্বকাপে কারোরই খেলার সম্ভাবনা নেই। মেসি জানিয়ে দিয়েছেন, কাতারই তাঁর শেষ বিশ্বকাপ। রোনাল্ডো আরও কয়েক বছর খেলার কথা জানালেও পরের বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা কম বলেই মনে করা হচ্ছে। ফুটবল মাঠে তাঁদের শেষ লড়াই হয়তো দেখা যাবে কাতারেই। কারণ, ক্লাব ফুটবলেও তাঁদের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা এখন বেশ কম। মেসি এবং রোনাল্ডো ফুটবলজীবনে একাধিক খেতাব জিতলেও বিশ্বকাপ দু’জনের কাছেই অধরা। ফুটবলপ্রেমীদের একাংশ চাইছেন এ বার বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হন দুই তারকা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE