Advertisement
৩১ জানুয়ারি ২০২৩
Shakira-Pique

শাকিরার কাছে ফিরতে মরিয়া পিকে! এক মাসে নতুন প্রেমে মোহভঙ্গ, পপ তারকা কি রাজি?

স্পেনের ক্রীড়া সাংবাদিক জর্ডি মার্টিন জানিয়েছেন, শাকিরার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর থেকে আফসোস করছেন পিকে। এক মাস পরে তিনি শাকিরার কাছে ফিরতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন।

সম্পর্কে ভাঙনের পরে আবার শাকিরার (বাঁ দিকে) কাছে ফিরতে চেয়েছিলেন জেরার্ড পিকে।

সম্পর্কে ভাঙনের পরে আবার শাকিরার (বাঁ দিকে) কাছে ফিরতে চেয়েছিলেন জেরার্ড পিকে। ছবি: এএফপি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩ ১১:৪৯
Share: Save:

এক মাসেই নাকি নতুন প্রেমিকাকে আর ভাল লাগছিল না জেরার্ড পিকের! আবার শাকিরার কাছেই ফিরতে চেয়েছিলেন স্পেনের প্রাক্তন ফুটবলার! কিন্তু শাকিরা রাজি হননি। এমনটাই জানিয়েছে স্পেনের সংবাদপত্র ‘মার্কা’।

Advertisement

স্পেনের ক্রীড়া সাংবাদিক জর্ডি মার্টিন জানিয়েছেন, শাকিরার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর থেকে আফসোস করছিলেন পিকে। এক মাস পরে তিনি শাকিরার কাছে ফিরতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু শাকিরা সেই সম্পর্ক আর নতুন করে শুরু করতে চাননি। তার পরে পাকাপাকি ভাবে বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছিল তাঁদের। এত দিন এই কথা গোপন ছিল। এ বার সেটা প্রকাশ্যে এল।

মার্টিন আরও দাবি করেছেন, আগেও নাকি অনেক বার অনেকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন পিকে। সেগুলো ক্ষমা করে দিয়েছিলেন শাকিরা। কিন্তু ক্লারা চিয়া মার্তির সঙ্গে পিকের সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি তিনি। এ বার বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন শাকিরা। পিকে অবশ্য আগের সব বারের মতো এ বারও শাকিরার কাছে ফিরতে চেয়েছিলেন। কিন্তু এ বার আর পিকের আবদার রাখেননি কলম্বিয়ার পপ তারকা।

বিচ্ছেদের পর থেকে তিক্ততা আরও বেড়েছে শাকিরার। নতুন গানে নিজের প্রাক্তন স্বামীর সমালোচনা করেছেন শাকিরা। গানের ছত্রে ছত্রে পিকে-কে বিঁধেছেন কলম্বিয়ান গায়িকা। শাকিরার গানে বিভিন্ন কথা রয়েছে, যা পিকের উদ্দেশে লেখা বলে মনে করছেন অনেকে। সেখানে বলা হয়েছে, “টুইঙ্গো গাড়ি (কম দামি গাড়ি) কেনার ক্ষমতা যার, সে নাকি ফেরারি (বিলাসবহুল গাড়ি) কিনতে এসেছে।” আর একটি লাইনে বলা হয়েছে, “ক্যাসিয়োর ঘড়ি (কম দামি) পরার সামর্থ্য নেই, সে কিনতে গিয়েছে রোলেক্স (বহুমূল্য ঘড়ি)।” অপর একটি লাইনে বলা হয়েছে, “আমার মতো নেকড়েজাতীয় মহিলা তোমার মতো পুরুষের জন্য নয়।”

Advertisement

বার্সেলোনায় একই কমপ্লেক্সে বাড়ি রয়েছে পিকে ও শাকিরার। পিকে অবশ্য সেখানে বেশি থাকেন না। তাঁর বাবা-মা থাকেন। এত দিন বাড়ি দু’টির মধ্যে কোনও প্রাচীর ছিল না। কিন্তু কিছু দিন আগেই প্রাচীর উঠতে দেখা গিয়েছে। বার্সেলোনার একটি সংবাদপত্র জানিয়েছে, শাকিরা সেই প্রাচীর তৈরি করিয়েছেন। তার ফলে বাড়ি দু’টির প্রবেশপথ আলাদা হয়ে গিয়েছে। বিচ্ছেদের পরে পিকের বাবা-মায়ের মুখও হয়তো দেখতে চাইছেন না শাকিরা। এই কাজ থেকে সেটাই বোঝা যাচ্ছে।

অন্য দিকে শাকিরার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন পিকের মা। তিনি জানিয়েছেন, একটি কালো রঙের ম্যানিকুইন তাঁদের বাড়ির দিকে মুখ করে বসিয়েছেন শাকিরা। ম্যানিকুইনটি দেখে মনে হচ্ছে পিকের। তাঁরা বার বার সেটি সরিয়ে নিতে বললেও শাকিরা সরাননি। এ ছাড়া প্রায় প্রতি রাতেই নাকি নিজের বাড়িতে পার্টি করছেন শাকিরা। সেখানে পিকেকে খোঁচা মেরে তাঁর গাওয়া গান সজোরে বাজছে। এতে তাঁদের সমস্যা হচ্ছে। তিনি অভিযোগ করার পরেও শাকিরা সেই কথা শোনেননি বলে অভিযোগ করেছেন পিকের মা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.