Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
English Premier League

ম্যাকটমিনের জোড়া গোলে দুরন্ত ম্যান ইউ, হার সিটির

ম্যাকটমিনে স্কটল্যান্ড জাতীয় দলের ফুটবলার। বয়স ২৬। খেলেন মূলত মাঝমাঠে। ম্যান ইউয়ের অ্যাকাডেমি থেকে উঠে এসেছেন তিনি।

An image of An image of footballer

মধ্যমণি: চেলসির বিরুদ্ধে দ্বিতীয় গোলের পরে উল্লাস ম্যান ইউ তারকা ম্যাকটমিনের। ছবি: পিটিআই।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ ০৯:৪২
Share: Save:

আবার নায়ক স্কট ম্যাকটমিনে! জোড়া গোল করে তিনি দারুণ একটা জয় উপহার দিলের ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডকে (২-১)। তাও চেলসির মতো দলের বিরুদ্ধে। তবে গত বারের চ্যাম্পিয়ন ম্যান সিটি ০-১ গোলে হেরে গিয়ে নেমে গিয়েছে পয়েন্ট টেবলে চার নম্বরে।

ম্যাকটমিনে স্কটল্যান্ড জাতীয় দলের ফুটবলার। বয়স ২৬। খেলেন মূলত মাঝমাঠে। ম্যান ইউয়ের অ্যাকাডেমি থেকে উঠে এসেছেন তিনি। এই জয় ম্যান ইউ ম্যানেজার এরিক টেন হ্যাগের উপর থেকে চাপ অনেকটাই কমিয়ে দিল। এমনও শোনা যাচ্ছিল যে, তাঁর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করতে পারেন ফুটবলাররা। তাঁদের কোচের কর্মপদ্ধতি নিয়েইনাকি মূল আপত্তি।

বুধবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ১৯ মিনিটেই ১-০ করে দেন ম্যাকটমিনে। প্রধমার্ধ শেষ হওয়ার মুহূর্তে সে গোল শোধ করেন চেলসির কোল পামার। আর ৬৯ মিনিটে দলের ও নিজের দ্বিতীয় গোল করেন স্কটিশ তারকা। এই জয়ের ফলে ম্যান ইউ উঠে এল সপ্তম থেকে ষষ্ঠ স্থানে। ১৫ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ২৭। পয়েন্ট টেবলে প্রথম চার দলের থেকে ম্যান ইউ এখন মাত্র চার পয়েন্ট পিছিয়ে রয়েছে। টেন হ্যাগ বলেন, ‘‘আমাদের দলে কোনও সমস্যা নেই। কীসেরই বা সঙ্কট? আমার দল কোনও সঙ্কট নেই। আমরা মাথা ঠান্ডা রেখে নির্দিষ্ট লক্ষ্যের দিকেইপদক্ষেপ করছি।’’

ম্যান ইউয়ের জয়ের রাতেই বড় ধাক্কা খেল সিটি। ০-১ হেরে গেল অ্যাস্টন ভিলার কাছে। ঘরের মাঠে একমাত্র গোল ৭৪ মিনিটে করেন লিয়ন বেইলি। গতবারের ইপিএল চ্যাম্পিয়ন ক্লাব পয়েন্ট টেবলে নেমে গেল চার নম্বরে। শীর্ষ স্থানে থাকা আর্সেনালের থেকে তারা এই মুহূর্তে ছ’পয়েন্ট পিছিয়ে গেল। অ্যাস্টন ভিলার ম্যানেজার এখন স্পেনীয় উনাই এমেরি। তাঁর কোচিংয়ে এই মরসুমে খুবই ভাল খেলছে ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যশালী ক্লাব। বুধবার তো খেলার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত তাদের নিয়ন্ত্রণ ও দাপট ছিল অনেকটাই বেশি।

অ্যাস্টন ভিলা প্রচুর সুযোগ নষ্ট না করলে আরও বড় ব্যবধানে জিতত। শেষ পর্যন্ত তারা গোল পায় ৭৪ মিনিটে। মাঝমাঠ থেকে প্রচণ্ড গতিতে উঠতে থাকা বেইলি একাই একেবারে বিপক্ষ বক্সে চলে আসেন। এবং দারুণ একটা শট মারেন। ম্যান সিটি গোলরক্ষক যার নাগাল পাননি। এক মিনিট পরেই অ্যাস্টন ভিলার ডগলাস লুইজ়ের শট পোস্টে না লাগলে তখনই ২-০ হয়ে যায়।ভিলা পার্কে ম্যাচের পরে বেইলি বলেন, ‘‘অসাধারণ একটা ম্যাচ হয়েছে। সমর্থকেরাও দারুণ খুশি মনে বাড়ি ফিরলেন। ভাল লাগছে জয়ের গোল আমি করেছি ভেবেও।’’

এই ম্যাচের পরে ম্যান সিটির পয়েন্ট ১৫ ম্যাচে ৩০। এতিহাদের ক্লাব কিন্তু তাদের শেষ চার ম্যাচে জয় পেল না। অথচ এক দিন আগেই ম্যান সিটি ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলা বলেছিলেন, ‘‘আমার মনে হচ্ছে, এ বারও ইপিএল জয়ের ট্রফি ক্লাবেই আসবে। যদি আমরা লিভারপুল বা টটেনহ্যামের সমমানের ফুটবলও খেলতে পারি, তা হলেও আমরা চ্যাম্পিয়ন হব। লোকের হয়তো বিশ্বাস হবে না আমার কথা। তার কারণ এর মধ্যেই লিগে আমরা তিনটি ম্যাচ ড্র করেছি। কিন্তু আপনারা দেখে নেবেন,, আবার আমরাই সফল হব। আমরা জানি যে, ইপিএল জেতা সবচেয়ে কঠিন। কোনও দল সচরাচর টানা এই প্রতিযোগিতায় সেরা হতে পারে না। তবু আমরা পারবই।’’

জিতল লিভারপুলও। ঘরের মাঠে শেফিল্ড ইউনাইটেডকে ২-০ হারাল য়ুর্গেন ক্লপের দল। গোল করেন ভার্জিল ফান ডাইকও ডমিনিক সোবোসলাই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE