Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

৩ বার বদলালো বাংলাদেশের লক্ষ্য, বিতর্কিত ম্যাচে জয়ী নিউজিল্যান্ড

পরে ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো দুই দলের কাছেই ক্ষমা চেয়ে নেন। তিনি বলেন, খেলা শুরুর সময়ই দুই দলের হাতে ডিএলএস-এর তালিকা পৌঁছে যাওয়া উচিত ছিল।

নিজস্ব প্রতিবেদন
নেপিয়ার ৩০ মার্চ ২০২১ ২০:০৮
বিতর্কিত ম্যাচে হারল বাংলাদেশ

বিতর্কিত ম্যাচে হারল বাংলাদেশ
ছবি টুইটার

বাংলাদেশকে ২৮ রানে হারিয়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড। সেই সঙ্গে এক ম্যাচ বাকি থাকতে তিন ম্যাচের সিরিজ জিতে নেয় ২-০ ফলে। তবে এই ম্যাচে তৈরি হয় বিতর্ক। আরও একবার বিতর্কের কেন্দ্রে আম্পায়াররা। রান তাড়া করতে নামার সময়ও বাংলাদেশ জানতে পারেনি তাদের লক্ষ্য কী। ১৪৮, ১৭০ না ১৭১ রান করতে হবে বাংলাদেশকে, এই নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়।

প্রথমে নিউজিল্যান্ড ব্যাট করে। তাদের ইনিংসের সময় দু’বার বৃষ্টিতে খেলা বিঘ্নিত হয়। শেষ পর্যন্ত ১৭.৫ ওভারে তারা ৫ উইকেটে ১৭৩ রান তোলে। বাংলাদেশ যখন ব্যাট করতে নামে তখন ম্যাকলিন পার্কের স্কোরবোর্ডে দেখানো হয় তাদের ১৬ ওভারে করতে হবে ১৪৮ রান। কিন্তু ৯ বল হওয়ার পরে দুটি দলকে বলা হয় ১৬ ওভারে পরিবর্তিত লক্ষ্য ১৭০ রান। সেটাও বাংলাদেশ ইনিংসের ১৩তম ওভারে বদলে যায়। জানানো হয় নতুন লক্ষ্য ১৭১ রান। বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত ১৬ ওভারে ৭ উইকেটে ১৪২ রান তোলে। ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে (ডিএলএস) তাদের হারতে হয় ২৮ রানে।

আইসিসি-র এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘‘দুটো দলকে প্রথমে ডিএলএস-এর তালিকা দেওয়া যায়নি। ইনিংসের শুরুতে মুখে মুখে আম্পায়ারদের রানের লক্ষ্য জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু দুটো দলই বারবার পরিবর্তিত লক্ষ্য জানতে চাইছিল। তখন ডিএলএস-এর তালিকা দেওয়ার দরকার পড়ে। ফলে বাংলাদেশ ইনিংসের ১.৩ ওভার পরে খেলা থামাতে হয়। দুই দলের হাতে ডিএলএস তালিকা পৌঁছনোর পরেই খেলা শুরু হয়।’’

Advertisement

পরে ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো দুই দলের কাছেই ক্ষমা চেয়ে নেন। তিনি বলেন, খেলা শুরুর সময় থেকেই দুই দলের হাতে ডিএলএস-এর তালিকা পৌঁছে যাওয়া উচিত ছিল। বাংলাদেশের কোচ রাসেল ডমিনগো এবং ম্যানেজার সাব্বির খানকে দ্বিতীয় ইনিংসের দ্বিতীয় ওভার শুরুর সময় জেফ ক্রো-র ঘরে ঢুকতে দেখা যায়। চতুর্থ আম্পায়ার শন হেগও সেখানে আসেন। তারপরেই বাংলাদেশের লক্ষ্য বদলে যায়। বলা হয়, জিততে গেলে বাংলাদেশকে ১৭০ রান করতে হবে।

কিন্তু খেলা শুরু হওয়ার পরে জানা যায়, ১৭০-এর লক্ষ্যও ঠিক নয়। গত অক্টোবরে ডিএলএস-এর নতুন যে সংস্করণ তৈরি হয়েছে, সেই অনুযায়ী বাংলাদেশকে ১৭১ রান করতে হবে। ততক্ষণে বাংলাদেশের ইনিংসের ১৩ ওভার হয়ে গিয়েছে।

নিউজিল্যান্ডকে বড় রানে পৌঁছে দেন গ্লেন ফিলিপস ও ড্যারিল মিচেল। ম্যাচের সেরা ফিলিপস ৩১ বলে ৫৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। মিচেল ১৬ বলে ৩৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। বাংলাদেশের সৌম্য সরকার (২৭ বলে ৫১) ছাড়া কেউ ভাল রান পাননি। নিউজিল্যান্ডের টিম সাউদি, হ্যামিশ বেনেট এবং অ্যাডাম মিলনে ২টি করে উইকেট নেন।

আরও পড়ুন

Advertisement