×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

গাব্বায় হাজারো প্রতিকূলতা পেরিয়ে ভারতের দুরন্ত জয়কে কুর্নিশ জানাল অস্ট্রেলীয় সংবাদমাধ্যম।

পন্থ, পূজারাদের প্রশংসা, পেন, লায়নদের তুলোধনা অজি সংবাদমাধ্যমে

সংবাদ সংস্থা
ব্রিসবেন ২০ জানুয়ারি ২০২১ ১৪:১৫
অজি সংবাদপত্রে এভাবেই হয়েছে ভারত-বন্দনা। ছবি টুইটার

অজি সংবাদপত্রে এভাবেই হয়েছে ভারত-বন্দনা। ছবি টুইটার

গাব্বায় হাজারো প্রতিকূলতা পেরিয়ে ভারতের দুরন্ত জয়কে কুর্নিশ জানাল অস্ট্রেলীয় সংবাদমাধ্যম। পিছিয়ে পড়েও ফিরে আসার অন্যতম সেরা নিদর্শন হিসেবে ভারতের জয়কে তুলে ধরেছে তারা। পাশাপাশি টিম পেন, স্টিভ স্মিথদেরও একহাত নেওয়া হয়েছে।

‘দ্য অস্ট্রেলিয়ান’ সংবাদপত্র লিখেছে, ভারতীয় দল অলৌকিককে সম্ভব করে দেখিয়েছে। ১৯৮৮ থেকে যেখানে হারেনি অস্ট্রেলিয়া, সেখানেই তাদের নাস্তানাবুদ করে দিয়েছে। লিখেছে, “একটা বিধ্বস্ত, জর্জরিত এবং ভাঙাচোরা দল পূর্ণশক্তির অস্ট্রেলিয়াকে নাজেহাল করে দিয়েছে।”

‘ফক্স স্পোর্টস’ লিখেছে, “আপনি যদি শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়েন, তাহলে চিন্তা করবেন না। আপনি একা নন। ভারত সদ্য বর্ডার-গাভাসকার ট্রফি জিতে নিয়েছে, যা টেস্টে তাদের সর্বকালের অন্যতম সেরা জয়। টেস্ট ক্রিকেটে সবথেকে দুঃখজনক মুহূর্ত (অ্যাডিলেডে ৩৬ অল আউট) থেকে একমাসের মধ্যে যে কাজ ওরা করে দেখিয়েছে, তা আজ, কাল এবং যতদিন স্মৃতিতে থাকবে ততদিন সেলিব্রেট করা উচিত।”

Advertisement

একাধিক সংবাদপত্র এই সিরিজ জয়কে আখ্যা দিয়েছে ‘ইন্ডিয়ান সামার’ নামে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে লেখা হয়েছে, “সম্ভবত এটাই ভারতের সেরা টেস্ট সিরিজ জয়। শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে যে ভাবে অবিশ্বাস্য জয় ছিনিয়ে নিয়েছে, তা বহুদিন মনে রাখার মতো।”

সিডনিতে অশ্বিনকে স্লেজিং করার জন্য ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ তুলোধনা করেছে পেনের। ঋষভ পন্থের ইনিংসকে তুলনা করা হয়েছে গত বছর অ্যাশেজে বেন স্টোকসের শতরান করে টেস্ট জেতানোর সঙ্গে। ‘ডেইলি টেলিগ্রাফ’ গোটা দলের সমালোচনা করে লিখেছে, এই হারের জন্য কোনও ধরনের অজুহাতই দেওয়া উচিত নয় অজিদের।

Advertisement