Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
India

বাটলারের ৫২ বলে অপরাজিত ৮৩, ২-১ ব্যবধানে বিরাটের ভারতের বিরুদ্ধে এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড

১০০তম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে নামবেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক অইন মর্গ্যান।

বাইশ গজে ঝড় তুলে ম্যাচের নায়ক হলেন বাটলার।

বাইশ গজে ঝড় তুলে ম্যাচের নায়ক হলেন বাটলার। ছবি - টুইটার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৬ মার্চ ২০২১ ১৮:২৮
Share: Save:

পরপর বাউন্ডারি মেরে ইংল্যান্ডকে ৮ উইকেটে জেতালেন জনি বেয়ারস্টো। তিনি ২৮ বলে ৪০ রানে অপরাজিত থাকেন। তবে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে যাওয়ার এই ম্যাচে ইংরেজদের মূল কাণ্ডারি হলেন জস বাটলার। ৫২ বলে ৮৩ রানে অপরাজিত থেকে দুরন্ত ইনিংস খেললেন বাটলার। ফলে ১৮.২ ওভারে ২ উইকেটে ১৫৮ রান তুলে ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতল ইংল্যান্ড। একই সঙ্গে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে অইন মর্গ্যানের দল।

১৮ ওভারে ২ উইকেটে ১৫০ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ১২ বলে ৭ রান দরকার। বাটলার ৫২ বলে ৮৩ রানে অপরাজিত রয়েছেন। জনি বেয়ারস্টো ৩২ রানে ব্যাট করছেন।

১৭ ওভারে ২ উইকেটে ১৪১ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ১৬ বলে ১৮ রান দরকার। বাটলার ৫০ বলে ৮২ রানে অপরাজিত রয়েছেন।

বিরাট কোহলীর পর এ বার চহাল। ব্যাটিং, বোলিংয়ের পর ফিল্ডিংয়ে দাগ কাটতে পারল না টিম ইন্ডিয়া।

১৬ ওভারে ২ উইকেটে ১৩২ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ২৪ বলে ২৫ রান দরকার।

১৪ ওভারে ২ উইকেটে ১২০ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৩৬ বলে ৩৭ রান দরকার।

৪০ বলে ৬৬ রানে অপরাজিত থেকে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন জস বাটলার। ১৩ ওভারে ২ উইকেটে ১০৭ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৪২বলে ৫০ রান দরকার।

১২ ওভারে ২ উইকেটে ১০২ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৪৮বলে ৫৫ রান দরকার।

১১ ওভারে ২ উইকেটে ৯২ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৫৪ বলে ৬৫ রান দরকার।

১০ ওভারে ২ উইকেটে ৮৩ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৬০ বলে ৭৪ রান দরকার।

ডেভিড মালানকে সাজঘরে ফেরালেন ওয়াশিংটন সুন্দর। সহজ স্টাম্প করলেন পন্থ। ৮১ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারাল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৬২ বলে দরকার ৭৬ রান। হাতে রয়েছে ৮ উইকেট।

২৬ বলে অর্ধ শতরান পূরণ করলেন জস বাটলার। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ১১তম অর্ধ শতরান পূরণ করলেন ইংরেজ উইকেট রক্ষক। ৯ ওভারে ১ উইকেটে ৭৮ রান তুলল ইংল্যান্ড।

৮ ওভারে ১ উইকেটে ৬৮ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৭২ বলে আরও ৮৯ রান করতে হবে। হাতে রয়েছে ৯ উইকেট।

৭ ওভারে ১ উইকেটে ৬৪ রান তুলল ইংল্যান্ড। জেতার জন্য ৭৮ বলে আরও ৯৩ রান করতে হবে। হাতে রয়েছে ৯ উইকেট।

জস বাটলারের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের দাপটে চাপ বাড়াচ্ছে ইংল্যান্ড। পয়ায়ার প্লে-তে ১ উইকেটে ৫৭ রান তুলল ইংল্যান্ড।

শার্দূল ঠাকুরের খারাপ বোলিং। ১৫ রান দিলেন। এর মধ্যে ১৪ রান নিলেন জস বাটলার। ৫ ওভারে ১ উইকেটে ৪৬ রান তুলল ইংল্যান্ড।

৪ ওভারে ১ উইকেটে ৩০ রান তুলল ইংল্যান্ড।

বল হাতে নিয়েই জেসন রয়কে আউট করলেন যুজবেন্দ্র চহাল। শর্ট ফাইন লেগে দাঁড়িয়ে সহজ ক্যাচ নিলেন রোহিত। ২৩ রানে ১ উইকেট হারাল ইংল্যান্ড।

৩ ওভারে ১৬ রান তুলেছে ইংল্যান্ড। সিরিজে এগিয়ে যেতে হলে ১০২ বলে ১৪১ রান তুলতে হবে ইংরেজদের।

রিভিউ নষ্ট করল ভারত। ২ ওভারে ৭ রান তুলল ইংল্যান্ড।

সিরিজে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে ১৫৬ রান তাড়া করতে নামল ইংল্যান্ড। নতুন বল হাতে তুলে নিলেন ভুবনেশ্বর কুমার। প্রথম ওভারের শেষে ইংল্যান্ড ৪ রান তুললো।

অপ্রতিরোধ্য বিরাট। ৪৬ বলে ৭৭ রানে অপরাজিত রইলেন। ৮ টি বাউন্ডারি ও ৪ ওভার বাউন্ডারি দিয়ে তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৫৬ রান তুলল ভারত।

১৯ ওভারে ৫ উইকেটে ১৪২ রান তুলল ভারত। বিরাট ৪৩ বলে ৭০ রানে ক্রিজে রয়েছেন। হার্দিক ১০ রানে অপরাজিত।

একা লড়ছেন ভারত অধিনায়ক। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ২৭তম অর্ধ শতরান করলেন কোহলী।

১৭ ওভারে ৫ উইকেটে ১১৪ রান তুলল ভারত।

১৬ ওভারে ১০০ রান তুলল ভারত।

চোট সারিয়ে ফিরে এসে তিন উইকেট নিয়ে ফেললেন মার্ক উড। ১৫ ওভারে ৮৭ রান তুলল ভারত।

১৪.৩ ওভার। মার্ক উডের বলে ডিপ পয়েন্টে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন শ্রেয়স। ভারত ৮৬ রানে ৫ উইকেট।

১৪ ওভারের শেষে ৪ উইকেটে ৮৩ রান তুলল টিম ইন্ডিয়া। বিরাট ২৬ ও শ্রেয়স আয়ার ৭ রানে ক্রিজে রয়েছেন।

১৩ ওভারের শেষে ৪ উইকেটে ৭৪ রান তুলল টিম ইন্ডিয়া। বিরাট ২২ ও শ্রেয়স আয়ার ৬ রানে ক্রিজে রয়েছেন।

৬৪ রানে ৪ উইকেট হারাল ভারত। এ বার তিন রান নিতে গিয়ে রান আউট হলেন ঋষভ পন্থ। তাঁকে রান আউট করলেন শাম কারেন।

১১ ওভারের শেষে ৩ উইকেটে ৬২ রান তুলল ভারত। পন্থ ২৩ ও কোহলী ১৮ রানে ক্রিজে আছেন।

চলতি ইনিংসে ভারতের প্রথম বড় ওভার। আদিল রশিদের ওভারে ১১ রান নিল টিম ইন্ডিয়া। ১০ ওভারের শেষে স্কোর ৫৫ রানে ৩ উইকেট।

৯ ওভারের শেষে ৩ উইকেটে ৪৩ রান তুলল ভারত।

৮ ওভারের শেষে ভারত ৩ উইকেট হারিয়ে ৩৮ রান তুলেছে। বিরাট ১১ ও ঋষভ পন্থ ৭ রানে ক্রিজে রয়েছেন।

৭ ওভার। ভারত ৩০ রানে ৩।

৩ উইকেট হারিয়ে মন্থর শুরু করল কোহলীর ভারত। পাওয়ার প্লে-তে মাত্র ২৪ রান তুলল টিম ইন্ডিয়া।

ক্রিস জর্ডন তাঁর প্রথম ওভারেই ছন্দে থাকা ঈশানকে ফিরিয়ে দিলেন। তাঁর শর্ট বলে হুক করতে গেলে ব্যাটের কানায় লেগে বল উইকেটরক্ষক জশ বাটলারের দস্তানায় জমা হয়ে যায়। ২৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে কঠিন অবস্থায় টিম ইন্ডিয়া।

ক্রিজে এসেই বাউন্ডারি হাঁকালেন বিরাট কোহলী। ৫ ওভারের শেষে ভারত ২ উইকেটে ২৪ রান তুলেছে।

মার্ক উডের শর্ট বলকে পুল করতে গিয়ে শর্ট ফাইন লেগে জফ্রা আর্চারের হাতে ক্যাচ তুলে দিলেন রোহিত। ১৭ বলে ১৫ রান করে ফিরলেন 'হিট ম্যান'। ভারত ২০ রানে ২ উইকেট।

রোহিতের ব্যাট থেকে এল প্রথম বাউন্ডারি। ৪ ওভারে ১ উইকেটের বিনিময়ে ১২ রান তুলল ভারত।

৩ ওভার। ৮/১।

ক্রিজে এলেন ঈশান কিষাণ।

গত তিন ম্যাচে কে এল রাহুলের ব্যাট থেকে এসেছে ১,০,০।

২.৩ ওভার। মার্ক উডের বোল্ড হলেন কে এল রাহুল। এই পরপর তিন ম্যাচে দ্রুত ফিরলেন এই ওপেনার। এ বারও ফিরলেন শূন্যতে।

২ ওভার। ৬ রান।

১.১ ওভার- রোহিত শর্মার লোপ্পা ক্যাচ ফস্কালেন জফ্রা আর্চার।

১ ওভার। ভারত ৫-০

ক্রিজে নেমে পড়েছেন রোহিত ও কে এল রাহুল। জোরে বোলারের বদলে নতুন বল হাতে তুলে নিয়েছেন আদিল রশিদ।

বিরাট কোহলী: সত্যি বলতে টসে জিতলে আমিও বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিতাম। তবে সেটা ভেবে লাভ নেই। বড় রান তোলা আমাদের প্রধান লক্ষ্য। ফাঁকা মাঠে খেলতে ভাল না লাগলেও পরিস্থিতি মানিয়ে নেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় নেই।

অইন মর্গ্যান: আমার ও আমার পরিবারের কাছে খুবই গর্বের দিন। আশাকরি ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়তে পারব। এখানে আদ্রতা অনেক বেশি। তাই আমরা রান তাড়া করব।

ইংল্যান্ডও একটি বদল করেছে। টম কারেনের বদলে এসেছেন মার্ক উড।

রোহিতের সঙ্গে ওপেন করবেন কে এল রাহুল। তিন নম্বরে ব্যাট করবেন গত ম্যাচের নায়ক ঈশান।

ভারতীয় দলে একটাই বদল। সূর্য কুমার জাদবের বদলে প্রথম একাদশে এলেন রোহিত শর্মা।

টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিলেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক অইন মর্গ্যান।

জাতীয় দলের হয়ে ১০০তম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে নামবেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক অইন মর্গ্যান।

মঙ্গলবারের ম্যাচ ছাড়াও বৃহস্পতিবার ও শনিবার আরও দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে ভারত ও ইংল্যান্ড। সমস্ত ম্যাচই হবে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে।

আমদাবাদে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় মোতেরা স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বাকি টি-টোয়েন্টি ম্যাচগুলিতে দর্শকদের ছাড়াই খেলতে হবে বিরাট কোহলীদের।

অভিষেক ম্যাচেই ৩২ বলে ৫৬ রান করেন ঈশান। এমন বিস্ফোরক ইনিংসের জন্য ম্যাচের সেরা হন ঝাড়খণ্ড থেকে উঠে আসা এই বাঁহাতি।

প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে যাওয়ার পর দ্বিতীয় ম্যাচে ঈশান কিষাণ এবং বিরাট কোহলীর ব্যাটের দাপটে ৭ উইকেটে জিতেছিল ভারত। এ বার নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে আয়োজিত তৃতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজে এগিয়ে যেতে মরিয়া টিম ইন্ডিয়া।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE