Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

India vs England 2021: চাপ থাকলেও তৃতীয় দিনের শেষে ভারতের প্রাপ্তি পূজারার রানে ফেরা

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৭ অগস্ট ২০২১ ২৩:০২
ভারতকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে পূজারা-কোহলী জুটি।

ভারতকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে পূজারা-কোহলী জুটি।
ছবি রয়টার্স

৩৪৫ রানে পিছিয়ে থেকে দিন শুরু করা মুখের কথা ছিল না। সামনে খাঁড়া হিসেবে ঝুলছিল ইনিংস হারের ভয়। কিন্তু লিডসে তৃতীয় দিনের শেষে কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ছাড়তে পারে বিরাট কোহলীর ভারত। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং ব্যর্থতার জন্য যাঁদের কাঠগড়ায় তোলা হয়েছিল, তাঁরাই তৃতীয় দিনের শেষে ভারতের আশা বাঁচিয়ে রাখলেন। তবে চিন্তা এখনই শেষ হচ্ছে না। তৃতীয় দিনের শেষে ভারত ২১৫-২। এখনও ১৩৯ রানে পিছিয়ে। হাতে ৮ উইকেট থাকলেও আচমকা ব্যাটিং ধস নামার প্রবণতা সবারই জানা। সব থেকে বড় কথা, খেলা এখনও দু’দিন বাকি। ফলে স্কোরবোর্ডে বড় রানের লিড না থাকলে ম্যাচ জেতা বা ড্র করার কথা ভাবা মুশকিল।

৪২৩-৮ স্কোরে খেলা শুরু করেছিল ইংল্যান্ড। ভারতীয় বোলারদের লক্ষ্যই ছিল যত দ্রুত সম্ভব শেষ দুই ইংরেজকে ফেরানো। তিন ওভারের মধ্যেই সেই কাজে তারা সফল। ৪৩২ রানে গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ড। ৩৫৪ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাট করতে নামে ভারত। শুরুটা ভালই করেছিলেন রোহিত শর্মা এবং কেএল রাহুল। কিন্তু এই ইনিংসেও ভারতের ওপেনিং জুটি বেশিক্ষণ টিকল না। লর্ডসে শতরানের পর লিডসে ফিকে রাহুল। শুক্রবারও ক্রেগ ওভার্টনের চতুর্থ স্টাম্পে করা বলে খোঁচা দিয়ে ফিরে গেলেন। ব্যাট করতে নামলেন চেতেশ্বর পূজারা। চলতি সিরিজে তাঁকে নিয়ে কম কাটাছেঁড়া হয়নি। কিন্তু শুক্রবার ইংরেজ বোলারদের সামনে অসামান্য ধৈর্য দেখালেন সৌরাষ্ট্রের ব্যাটসম্যান। জোরে বোলার থেকে স্পিনার, ঠান্ডা মাথায় খেলে গেলেন আগাগোড়া। জো রুটকে এগিয়ে এসে চার মারলেন। অ্যান্ডারসন, রবিনসনকে অনায়াসে সামলে দিলেন। দিনের শেষে শতরান থেকে ৯ রান দূরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন।

Advertisement


উল্টো দিকে রোহিতকেও অনেকটাই সপ্রতিভ লেগেছে। লর্ডসের প্রথম ইনিংসে অল্পের জন্য শতরান পাননি তিনি। লিডসে দ্বিতীয় ইনিংসে কাঙ্ক্ষিত শতরানের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। জেমস অ্যান্ডারসনকে ছবির মতো নিখুঁত ভাবে মারা বেশ কিছু কভার ড্রাইভ দেখে হাততালি দিয়ে উঠলেন ইংরেজ দর্শকেরাও। অলি রবিনসনকে আপার কাটে ছক্কা মারলেন। সেই রোহিতই বোকা বনে গেলেন রবিনসনের বলে। যে রোহিত অনায়াসে স্ট্রেট ড্রাইভ মারছিলেন এবং প্রয়োজনমতো ডিফেন্ড করছিলেন, তিনিই ইংরেজ জোরে বোলারের সোজাসুজি আসা বল আড়াআড়ি ভাবে খেলতে গেলেন। ব্যাটে-বলে সংযোগ হল না। এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে সাড়া দিলেন আম্পায়ার। রোহিত রিভিউ নিলেও কাজে লাগল না।


রোহিত সাজঘরে ফেরার পর টানা ৫০ ইনিংসে শতরান না পাওয়া বিরাট কোহলী ক্রিজে যোগ দিয়েছিলেন পূজারার সঙ্গে। দিনের শেষে দু’জনেই উইকেটে টিকে গিয়েছেন। সেই সঙ্গে ভারতকে স্বপ্ন দেখাচ্ছেন তাঁরাই। কাজ এখনও অনেক কঠিন। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট অনুরাগীরা জানেন, কোহলী ছন্দে ফিরলে সব কিছুই সম্ভব। পাশাপাশি পূজারাও যদি বড় ইনিংস খেলেন, তাহলে তো চিন্তাই নেই।

আরও পড়ুন

Advertisement