Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অস্ট্রেলিয়ার পর নিউজিল্যান্ডেও ওয়ানডে সিরিজ জিতল বিরাটের ভারত

নেপিয়ারে জয় এসেছিল আট উইকেটে।। মাউন্ট  মাউনগানুইয়েই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ৯০ রানে আসে জয়। এই ম্যাচ জিতে সিরিজ পকেটে পুরে নিল টিম ইন্ডিয়া।

নিজস্ব প্রতিবেদন
মাউন্ট মাউনগানুই ২৮ জানুয়ারি ২০১৯ ০৯:৪৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
বিরাটের নেতৃত্বে নিউজিল্যান্ডেও সিরিজ জিতল ভারত। ছবি: এএফপি।

বিরাটের নেতৃত্বে নিউজিল্যান্ডেও সিরিজ জিতল ভারত। ছবি: এএফপি।

Popup Close

অস্ট্রেলিয়ার পর নিউজিল্যান্ড। ক্যাঙারুদের দেশের পর এ বার কিউইদের দেশেও তেরঙা পতাকা ওড়াল ভারতীয় দল। সাত উইকেটে জিতে পাঁচ ম্যাচের একদিনের সিরিজের তৃতীয় ম্যাচেই বিরাট কোহালির দল ৩-০ এগিয়ে গেল। এবং সিরিজ জিতে ৫-০ করার আশা জাগিয়ে তুলল।

দশ বছর আগে কিউইদের দেশে একদিনের সিরিজ জিতেছিল টিম ইন্ডিয়া। সেই শেষবার। এক দশক পর ফের সিরিজ জিতল ভারত। এবং তা এল অনেক বেশি দাপটে। বিশ্বের চার নম্বর দলকে তাদের দেশে এসে যে আধিপত্য রেখে হারাল ভারত, তাতে বিশ্বকাপ অভিযানের আগে দলের ভারসাম্য স্বস্তি আনছে।

২৪৪ রানের জয়ের লক্ষ্য তাড়া করে প্রথম উইকেটে উঠেছিল ৩৯ রান। বাঁ-হাতি ওপেনার শিখর ধওয়ন ফিরেছিলেন ২৭ বলে ২৮ করে। তারপর থেকে রোহিত শর্মা (৬২) ও বিরাট কোহালি (৬০) টানলেন দলকে। দ্বিতীয় উইকেটে দু’জনে ১১২ রান যোগ করলেন। রোহিত ও কোহালি ফিরলেন পর পর। কিন্তু, তাতে রান তাড়ায় প্রভাব পড়েনি। অম্বাতি রায়ডু (অপরাজিত ৪০) ও দীনেশ কার্তিক (অপরাজিত ৩৮) আগ্রাসী ভঙ্গিতেই জিতিয়ে ফিরলেন। ৪৩ ওভারে তিন উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে গেল ভারত (২৪৫/৩)। জয় এল ৪২ বল বাকি থাকতে।

Advertisement

তার আগে ৪৯ ওভারে নিউজিল্যান্ড শেষ হয়েছিল ২৪৩ রানে। রস টেলরের ৯৩ রানের লড়াকু ইনিংস সত্ত্বেও আড়াইশো তুলতে পারেনি তারা। যা ভারতীয় বোলারদের দাপটেরই ইঙ্গিত দিল।

আরও পড়ুন: শরীর ছুড়ে অসাধারণ ক্যাচ হার্দিকের, দেখুন ভিডিয়ো​

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে কখনই স্বস্তিতে ছিল না নিউজিল্যান্ড। বে ওভালে নিয়মিত উইকেট পড়ছে কিউইদের। যার ফলে ইনিংস কখনই রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টা করতে পারল না। ৫৯ রানে পড়ে গিয়েছিল তিন উইকেট। আউট হয়েছিলেন মার্টিন গাপ্টিল (১৩), কলিন মুনরো (৭) ও অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন (২৮)। সেখান থেকে চতুর্থ উইকেটে টম লাথামের সঙ্গে রস টেলর ১১৯ রান যোগ করেছিলেন।

আরও পড়ুন: ৬৮ বছর বয়সে ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন এই কিউয়ি তারকা!​

দলীয় ১৭৮ রানে লাথাম (৬৪ বলে ৫১) ফেরার পর আর কোনও জুটি হয়নি। তাসের ঘরের মতো ভাঙন ধরে ইনিংসে। সেঞ্চুরির দরজা থেকে ফেরেন টেলর। ১০৬ বলের ইনিংসে তিনি মারেন নয় বাউন্ডারি। ভারতের সফলতম বোলার মহম্মদ শামি (৩/৪১)। তিনিই ম্যাচের সেরা। প্রথম ওয়ানডে ম্যাচেও সেরা হয়েছিলেন শামি। হার্দিক পান্ড্য (২/৪৫), ভুবনেশ্বর কুমার (২/৪৬), যুজবেন্দ্র চহাল (২/৫১) বাকি উইকেট ভাগ করে নিলেন।

ভারতের সিরিজ জয় নিয়ে খেলুন কুইজ



মুনরো আউট। বোলার শামিকে অভিনন্দন সতীর্থদের। ছবি: এপি।

পাঁচ ম্যাচের একদিনের সিরিজে ২-০ এগিয়ে এই ম্যাচে নেমেছিল ভারত। নেপিয়ারে জয় এসেছিল আট উইকেটে।। মাউন্ট মাউনগানুইয়েই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ৯০ রানে আসে জয়। এই ম্যাচ জিতলে সিরিজ পকেটে পুরে ফেলার হাতছানি ছিল টিম ইন্ডিয়ার সামনে। আর ভারত ঠিক সেটাই করল।

এই ম্যাচে মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে পায়নি ভারত। হ্যামস্ট্রিংয়ের সমস্যার জন্য সোমবার বিশ্রাম দেওয়া হল তাঁকে। পরিবর্তে প্রথম এগারোয় এসেছিলেন দীনেশ কার্তিক। তিনিই উইকেটের পিছনে থাকলেন। ভারতীয় দলে আর একটি বদল ঘটেছিল। নির্বাসন তুলে নেওয়ার পর দলের সঙ্গে যোগ দেওয়া অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ড্য খেললেন। বিজয় শঙ্করের পরিবর্তে প্রথম এগারোয় এলেন তিনি। দেখা গেল, পরিবর্তরাও তৈরি আছেন যে কোনও মুহূর্তে খেলার জন্য।

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement