Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

সুপার ওভারে পন্থের বুদ্ধিমত্তার কাছে হারল ওয়ার্নারের হায়দরাবাদ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৬ এপ্রিল ২০২১ ০০:২৫
পন্থের এই রিভার্স সুইপ সুপার ওভারে দিল্লিকে জেতাল।

পন্থের এই রিভার্স সুইপ সুপার ওভারে দিল্লিকে জেতাল।
ছবি - টুইটার

সুপার ওভারে যোগ্য দল হিসেবে সানরাইজার্স হায়দরবাদকে হারিয়ে দিল দিল্লি ক্যাপিটালস। শেষ বলে জেতার জন্য কাজে দিল ঋষভ পন্থের রিভার্স সুইপ। এই জয়ের ফলে ৫ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকার ২ নম্বরে উঠে এল দিল্লি ক্যাপিটালস।

পাহাড় সমান চাপের মুখে ১৯তম ওভারে ব্যাট করতে এসে অখ্যাত জগদীশ সূচিত যে এ ভাবে ম্যাচটা ঘুরিয়ে দেবেন সেটা কে জানত! সেই ওভারে আবেশ খানকে দুটো চার মেরে জয়ের আশা জিইয়ে রাখলেন। শেষ ওভারে হায়দরাবাদের দরকার ছিল ১৬ রান। কাগিসো রাবাডাকে মেরে ১৫ তুললেন কেন উইলিয়ামসন ও সূচিত। ‘সুপার সানডে’তে প্রথম সুপার ওভারের সাক্ষী থাকল এ বারের আইপিএল। তবে সুপার ওভারে বোলিং-ব্যাটিং সব বিভাগেই হায়দরাবাদকে টেক্কা দিল দিল্লি। প্রথমে ওয়ার্নার, উইলিয়ামসনের বিরুদ্ধে মাত্র ৬ রান দিলেন অক্ষর পটেল। করোনার বিরুদ্ধে জিতে মাঠে নেমেই নজর কাড়লেন এই বাঁহাতি স্পিনার। তারপর রশিদ খানকে দেখে সিদ্ধান্ত বদল করে শিখর ধওয়নের সঙ্গে ক্রিজে চলে গেলেন ঋষভ পন্থ। শেষ বলে এল কাঙ্খিত জয়। যোগ্য দল হিসেবেই জিতল দিল্লি।

দুই ওপেনার পৃথ্বী শ ও শিখর ধওয়ন শুরুটা বেশ ভালই করেছিলেন। কিন্তু ১০.২ ওভারে ৮১ রানের মাথায় ধওয়ন (২৮) ফিরতেই দিল্লির ব্যাটিং কেমন যেন চুপসে গেল। কিছুক্ষণ পরেই ব্যক্তিগত ৫৩ রানে রান আউট হলেন পৃথ্বী। ৮৪ রানে ২ উইকেট হারিয়ে দিল্লি তখন বেশ চাপে। যদিও পাল্টা আক্রমণ চালিয়ে ঋষভ পন্থ দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করলেন। সঙ্গী ছিলেন স্টিভ স্মিথ। তবে সিদ্ধার্থ কৌলের বলে পন্থ ৩৭ রানে ফিরতেই আবার খেলায় ফিরল ওয়ার্নারের হায়দরাবাদ। দিল্লি তখন ১৪২ রানে ৩ উইকেট। তবে শেষ পর্যন্ত স্মিথের ২৫ বলে অপরাজিত ৩৪ রানের দৌলতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৫৯ রান তোলে দিল্লি।

Advertisement


চাপের মধ্যেও সুপার ওভারে দারুণ বোলিং করলেন অক্ষর পটেল। দিলেন মাত্র ৬ রান। ছবি - টুইটার।

চাপের মধ্যেও সুপার ওভারে দারুণ বোলিং করলেন অক্ষর পটেল। দিলেন মাত্র ৬ রান। ছবি - টুইটার।


তবে ১৬০ রান তাড়া করতে নেমে হায়দরাবাদের শুরুটা মোটেও ভাল হল না। শুরুতেই ফিরলেন ওয়ার্নার। যদিও প্রাথমিক ধাক্কা সামলে জনি বেয়ারস্টো ও কেন উইলিয়ামসন দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। তবে হায়দরাদের রান যখন ৫৬, তখন বেয়ারস্টোকে আউট করে বিপক্ষকে ফের ধাক্কা দেন আবেশ খান। আবেশ (৩/৩৪), অক্ষর পটেল (২/২৬) ও অমিত মিশ্রর (১/৩১) দাপটে ফের একবার তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়তে থাকে ওয়ার্নারদের মিডল অর্ডার। অভিজ্ঞ কেন উইলিয়ামসন ৫১ বলে ৬৬ ও জগদীশ সূচিত ৬ বলে ১৪ রানে অপরাজিত থেকে শেষ পর্যন্ত খেলাকে সুপার ওভারে নিয়ে গেলেন।

তবে শেষ রক্ষা হল না। ঋষভ পন্থের বুদ্ধিমত্তার কাছে হেরে গেলেন ডেভিড ওয়ার্নার। একই সঙ্গে এই হারের ফলে চার ম্যাচ খুইয়ে লিগ তালিকার শেষে রয়ে গেল হায়দরাবাদ।

আরও পড়ুন

Advertisement