Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

অলরাউন্ডার জাডেজার দাপটে ‘মহাযুদ্ধে’ কোহলীর বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে শীর্ষে ধোনির সিএসকে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৫ এপ্রিল ২০২১ ১৯:৪৬
ম্যাচের পর হাসি রায়না, তাহির, জাডেজাদেরই।

ম্যাচের পর হাসি রায়না, তাহির, জাডেজাদেরই।
ছবি আইপিএল

মহাযুদ্ধে নেমেছিল দুই দল। পরপর চার ম্যাচ জিতে থাকা বিরাট কোহলীর আরসিবি-র কাছে লক্ষ্য ছিল নিজেদের অপরাজিত থাকার দৌড় বজায় রাখা। অন্যদিকে প্রথম ম্যাচ হেরে গিয়েও ঘুরে দাঁড়ানো মহেন্দ্র সিংহ ধোনির সিএসকে চাইছিল জয়ের ধারা বজায় রাখতে। দিনের শেষে জয়সূচক হাসি ধোনিরই। কোহলীদের ৬৯ রানে হারিয়ে লিগ তালিকার শীর্ষে উঠে গেলেন তাঁরা। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং সবেতেই দাপট দেখিয়ে ম্যাচের সেরা হলেন রবীন্দ্র জাডেজা।

টসে হেরে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় ধোনি বলেছিলেন, পরের দিকে উইকেট ধীরগতির হয়ে যায়। দেখা গেল, কার্যত তাই হয়েছে। ধোনির দল যে গতিতে রান তুলেছে তার ধারেকাছে পৌঁছতে পারেনি কোহলীর আরসিবি। প্রথম উইকেটেই কেবল একটু ঝড় তুলেছিলেন কোহলী এবং দেবদত্ত পাড়িক্কল। তবে সময় যত এগিয়েছে, কোহলীর দলের ব্যাটিং তত ভেঙে পড়েছে।

চেন্নাই শুরুটা করেছিল খুবই ভাল ভাবে। রুতুরাজ গায়কোয়াড় এবং ফাফ দু’প্লেসি মিলে প্রথম উইকেটেই ৭৪ রান তুলে দেন। পাওয়ার প্লে-তে সবথেকে সক্রিয় ছিলেন তাঁরা। রুতুরাজ ফেরার পর রায়নাকে নিয়ে চেন্নাইয়ে ইনিংস গড়েন। কিন্তু রায়না এবং দু’প্লেসি পরপর ফেরার পর একটু হলেও চাপে পড়েছিল চেন্নাই। তা কাটিয়ে দেন জাডেজা এবং রায়ডু।

Advertisement

সব থেকে বেশি উইকেট নিয়ে বেগুনি টুপির মালিক হর্ষল পটেল রবিবারও ছন্দে ছিলেন। চেন্নাইয়ের তিন ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফিরিয়েছিলেন তিনি। তবে হর্ষলের যাবতীয় কারিকুরি থামল শেষ ওভারেই। জাডেজার মারমুখী মনোভাবে সামনে উড়ে গেলেন তিনি। ওই ওভারে ৩৭ রান নিলেন জাডেজা। তার মধ্যে রয়েছে পাঁচটি ছক্কা। একটি নো বলও করেন হর্ষল। জাডেজার সৌজন্যেই স্কোরবোর্ডে বড় রান খাড়া করল চেন্নাই।


জবাবে আরসিবি-রও শুরুটা ভাল হয়েছিল। কিন্তু কোহলী ফেরার পর থেকেই পতনের শুরু। অফস্টাম্পের বাইরে স্যাম কারেনের বল মারতে গিয়ে ধোনির হাতে ক্যাচ দিলেন কোহলী। কিছুক্ষণ পরে ফিরলেন পাড়িক্কলও। তিনে ওয়াশিংটন সুন্দরকে নামিয়ে ফাটকা খেলতে চেয়েছিলেন কোহলী। সে পরিকল্পনাও ব্যর্থ। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল নিজের মেজাজে শুরু করেছিলেন। কিন্তু জাডেজার ঘূর্ণিতে বোকা বনে বোল্ড হলেন। কিছুক্ষণ পরে জাডেজা ফেরালেন এবি ডিভিলিয়ার্সকেও। অর্থাৎ ব্যাট হাতে দাপট দেখানোর পাশাপাশি বল হাতেও আরসিবি-র দুটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নেন জাডেজা।

ম্যাচ ১০ ওভার গড়াতেই বোঝা গিয়েছিল কারা জিততে চলেছে। শেষ পর্যন্ত হলও তাই। কোহলীদের হারিয়ে শীর্ষে উঠে এলেন ধোনিরা।

আরও পড়ুন

Advertisement