Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
IPL 2021

বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে এ বার ৬ বছরের খরা কাটানোই লক্ষ্য মর্গ্যানের নাইট রাইডার্সের

কলকাতার সাফল্য অনেকাংশেই নির্ভর করছে দলের ভারসাম্যের উপরে। দল বেছে নেওয়ার উপরেই ঠিক হবে ট্রফি মর্গ্যানদের সাজঘরে ঢুকছে কি না।

কে থাকবেন, কে-ই বা বাদ? মর্গ্যানের সামনে প্রশ্ন অনেক।

কে থাকবেন, কে-ই বা বাদ? মর্গ্যানের সামনে প্রশ্ন অনেক। ছবি টুইটার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ এপ্রিল ২০২১ ১৭:৫৮
Share: Save:

রবিবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে চতুর্দশ আইপিএলের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। দীর্ঘ ছ’বছর ট্রফি পায়নি কলকাতা। গত বার প্লে-অফও অধরা থেকে গিয়েছে। এ বার সমস্ত বাধা অতিক্রম করে সাজঘরে ট্রফি ঢোকানোই লক্ষ্য হতে চলেছে অধিনায়ক অইন মর্গ্যানের কাছে।

গত মরসুমে রান রেটের বিচারে পঞ্চম স্থানে শেষ করেছিল কলকাতা। কিন্তু যে ভাবে গোটা মরসুম ধরে দল গঠনে ব্যর্থতা, বারবার প্রথম একাদশে বদল, মরসুমের মাঝপথে অধিনায়ক বদল হয়েছে, তাতে পাঁচে শেষ করা কৃতিত্বের বিষয়। প্রথম বার দায়িত্ব নিয়ে দীনেশ কার্তিক দলকে প্লে-অফে তুললেও গত বার চূড়ান্ত ব্যর্থ। শুরু থেকেই নেতাসুলভ আত্মবিশ্বাসের অভাব ছিল। সাত ম্যাচ পরেই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেন কার্তিক। যদিও কলকাতা জিতেছিল চারটি ম্যাচে।

তুলনায় মর্গ্যান আসার পর দলের আত্মবিশ্বাস বাড়লেও তিনি মাত্র তিনটের বেশি ম্যাচে দলকে জেতাতে পারেননি। এ বার তাই দলগঠনের সময় জোর দেওয়া হয়েছে ভারসাম্যে। শুভমন গিল, কমলেশ নগরকোটিদের মতো তরুণদের যেমন রেখে দেওয়া হয়েছে, তেমনই দলে নেওয়া হয়েছে হরভজন সিংহ, শাকিব আল হাসানদের মতো অভিজ্ঞদের। তবে দল গঠনে এ বারও সমস্যা হতে পারে। সুনীল নারাইনকে দিয়ে ওপেন করানোর ফাটকা গত মরসুমে খাটেনি। এ বার কি তবে নারাইনকে প্রথম একাদশে দেখা যাবে? নাকি তুলনায় ব্যাট হাতে ধারাবাহিক শাকিব প্রথম একাদশে থাকবেন?

চেন্নাইয়ের পিচ বোলিং-সহায়ক। চেন্নাইয়ে বেশ কয়েক মরশুম কাটানোর সুবাদে পিচ হাতের তালুর মতো চেনা হরভজনের। ফলে প্রথম একাদশে তাঁর জায়গা হতেই পারে। বিদেশি নির্বাচনের ক্ষেত্রেও মর্গ্যানকে মাথা চুলকোতে হতে পারে। গত বার ওপেনিং গোটা মরসুমেই ডুবিয়েছিল। এ বার সেখানে রাহুল ত্রিপাঠি এবং শুভমন কতটা সফল হতে পারেন সেটা সবাই দেখার অপেক্ষায়।

বিপক্ষ সানরাইজার্স হায়দারাবাদকে গত বার দুটি পর্বেই হারিয়েছিল কলকাতা। তার মধ্যে একটি ছিল সুপার ওভারে। এ বার তাদের দল আরও শক্তিশালী। ডেভিড ওয়ার্নার, জনি বেয়ারস্টো, কেন উইলিয়ামসনের মতো বিদেশিরা রয়েছেন দলে, যাঁরা নিজের দিনে ম্যাচের পরিস্থিতি বদলে দিতে সক্ষম। সব পিচে মানিয়ে নেওয়ার মতো বোলার ভুবনেশ্বর কুমার রয়েছেন। গত মরসুমের আবিষ্কার টি নটরাজনকেও ভুললে চলবে না।

কলকাতার সাফল্য অনেকাংশেই নির্ভর করছে দলের ভারসাম্যের উপরে। কোন দিন কী রকম দল বেছে নেওয়া হয় তার উপরেই ঠিক হবে ট্রফি মর্গ্যানদের সাজঘরে ঢুকছে কি না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE