Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

আইপিএল মুলতুবি হতেই কেকেআর-এর প্যাট কামিন্সের গলায় উল্টো সুর

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৫ মে ২০২১ ১৬:২৩
আইপিএল মুলতুবি হওয়ার পর মুখ খুলেলেন প্যাট কামিন্স ।

আইপিএল মুলতুবি হওয়ার পর মুখ খুলেলেন প্যাট কামিন্স ।
ফাইল চিত্র

কোভিডের মধ্যে আইপিএল চলতে থাকা নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইলেও প্যাট কামিন্স ক্রোড়পতি লিগের হয়ে সওয়াল করেছিলেন। তবে এই করোনার জন্য আইপিএল বন্ধ হতেই একেবারে ঘুরে গিয়ে বিসিসিআইকে কটাক্ষ করলেন প্যাট কামিন্স। অস্ট্রেলিয়ার একটি সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, “আইপিএল পরিচালন কমিটি হয়তো বাড়তি কিছু অর্জন করতে গিয়েছিল!” তাঁর আরও দাবি গত বছর সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে আইপিএল বেশ নির্বিঘ্নে শেষ হয়েছিল। এ বারও বিসিসিআই তেমন সিদ্ধান্ত নিলে ব্যাপারটা ভাল হত।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের এই জোরে বোলার এখনও দেশে ফিরতে পারেননি। দলের সঙ্গে নিভৃতবাসে রয়েছেন। তবে ঘর বন্দী থাকলেও নিজের দেশের একটি সংবাদমাধ্যম তিনি বলেন, “গত বছর সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে আইপিএল ভাল ভাবে আয়োজিত হয়েছিল। তবে এ বার হয়তো ভারতে প্রতিযোগিতা আয়োজন করার জন্য বিসিসিআই বাড়তি কিছু আশা করেছিল। এমন কঠিন অবস্থায় একাধিক শহরে আইপিএল আয়োজন করা বেশ ঝুঁকির ছিল। আর সেই জন্য সবকিছু ঘেঁটে গেল।”

কেকেআর-এর পর চেন্নাই সুপার কিংস শিবিরে ভাইরাস হানা দেয়। সেই জন্য অইন মর্গ্যানের দলের সঙ্গে বিরাট কোহলীর আরসিবি-র ম্যাচ সোমবার বাতিল করে দেওয়া হলেও, মঙ্গলবার মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম সানরাইজার্স হায়দরবাদ ম্যাচ নিশ্চিত ছিল। কিন্তু সে দিন সকালে ঋদ্ধিমান সাহা ও অমিত মিশ্রর খবর ছড়াতেই প্রতিযোগিতা বাতিল করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বোর্ড প্রধান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। যদিও কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে আইপিএল আয়োজন করা নিয়ে শুরু থেকেই গুঞ্জন চলছিল।

Advertisement

সেটা নিয়ে এই অজি বোলার বলেন, “জৈব বলয়ের মধ্যে আমরা সুরক্ষিত থাকলেও বাইরে কিন্তু আরও বড় ভারতবর্ষ রয়েছে। আর সেটাই আসল। আমরা তিন-চার ঘণ্টা ক্রিকেট খেলে সবাইকে বিনোদন যোগান দেওয়ার কথা বললেও আদৌ কি সাধারণ মানুষের মনে হাসি ফোটাতে পেরেছি! এটা নিয়ে কিন্তু অনেকের মনে প্রশ্ন রয়েছে।”

আইপিএল এ বারের মতো বন্ধ হয়ে যেতেই কামিন্স তাঁর দেশজ প্রচার মাধ্যমের কাছে বিসিসিআইকে কটাক্ষ করলেন। যদিও কয়েক দিন আগে পর্যন্ত কিন্তু আইপিএল-এর গুণগান গেয়েছিলেন।

আরও পড়ুন

Advertisement