Advertisement
২৫ মে ২০২৪
Ricky Ponting

বলয়ে সুরক্ষিত, উদ্বেগের কথাও মানছেন পন্টিং

পন্টিং মনে করছেন, কঠিন সময়ে আইপিএল মানুষকে কিছুটা অন্য দিকে মন ঘোরানোর রাস্তা করে দিতে পারে।

ইতিবাচক: প্রত্যেকের পরিবারের খোঁজ রাখছেন পন্টিং।

ইতিবাচক: প্রত্যেকের পরিবারের খোঁজ রাখছেন পন্টিং। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৭ এপ্রিল ২০২১ ০৭:০৮
Share: Save:

আইপিএলে সব চেয়ে নিরাপদ জৈব সুরক্ষা বলয়ে তাঁরা আছেন বলে জানিয়েছেন রিকি পন্টিং। পাশাপাশি, এটাও তিনি স্বীকার করেছেন যে, তাঁরা জানেন বাইরে পরিস্থিতিটা কতটা উদ্বেগজনক।

দেশে কোভিড আতঙ্কের মধ্যে আইপিএল চলা উচিত কি না, তা নিয়ে তর্ক উঠেছে। পন্টিং মনে করছেন, কঠিন সময়ে আইপিএল মানুষকে কিছুটা অন্য দিকে মন ঘোরানোর রাস্তা করে দিতে পারে। ‘‘আমরা হয়তো সব চেয়ে নিরাপদ আছি কারণ আইপিএলের জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে আছি। সারাক্ষণ ছেলেদের জিজ্ঞেস করে যাচ্ছি, বাইরে কী হচ্ছে। ওদের পরিবারের সকলে ভাল আছে কি না,’’ দিল্লি ক্যাপিটালসের ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন পন্টিং। যোগ করছেন, ‘‘তবে আমি মনে করি ভারতে যে কম পরিস্থিতি হয়েছে, আইপিএল কিছুটা স্বস্তি এনে দিতে পারে।’’ পন্টিং স্বীকার করে নিচ্ছেন, এই সময়ে পরিবারের থেকে দূরে থেকে খেলা চালিয়ে যাওয়াটা তাঁদের জন্যও বড় পরীক্ষা। পন্টিংয়ের দলেরই অশ্বিন দল থেড়ে বেরিয়ে গিয়েছেন পরিবারের পাশে থাকবেন বলে। পন্টিং বলছেন, ‘‘চেন্নাইয়ে যাদের বাড়ি, তারা চেন্নাইয়ে খেলতে গিয়েও পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে পারছে না। এটা সত্যিই খুব কঠিন ব্যাপার।’’ আইপিএলের জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিয়ম অনুযায়ী, যত দিন প্রতিযোগিতা চলবে, এই বলয়ের বাইরে কেউ যেতে পারবেন না। অর্থাৎ, হোটেল এবং মাঠের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে তাঁদের চলাফেরা।

এ দিকে, বিভিন্ন দলের বেশ কিছু ক্রিকেটার দল ছেড়ে দেশে ফিরে যেতে শুরু করেছেন। ক্ষতিগ্রস্ত দলগুলির মধ্যে রয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। আপাতত আয়োজকদের কাছে লোনে ক্রিকেটার নেওয়ার আবেদন করেছেন রাজস্থান রয়্যালস কর্তৃপক্ষ।

ইতিমধ্যেই জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে ক্লান্তি, ভারতে বাড়তে থাকা করোনা সংক্রমণ, চোট ও অন্যান্য কারণে ভারত ছেড়েছেন রাজস্থান রয়্যালসের চার বিদেশি ক্রিকেটার। চোটের কারণে বেন স্টোকস এবং জফ্রা আর্চার আইপিএল থেকে ছিটকে গিয়েছেন। জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকার ফলে মানসিক ভাবে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন, এই যুক্তি দেখিয়ে দেশে ফিরেছেন রাজস্থানের আর এক ক্রিকেটার লিয়াম লিভিংস্টোন। রবিবার আবার ভারতে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকার ভয়ে অস্ট্রেলিয়া ফিরে গিয়েছেন অ্যান্ড্রু টাই। ফলে চাপ বেড়েছে রাজস্থান রয়্যালস শিবিরে। রাজস্থান রয়্যালসের একটি সূত্র সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছে, ‍‘‍‘ক্রিকেটারদের লোনে নেওয়ার ব্যাপারে চিন্তাভাবনা চলছে। এ ব্যাপারে আইপিএলের বিভিন্ন দলের কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত আবেদন করা হয়েছে। কিন্তু কিছু চূড়ান্ত হয়নি এখনও পর্যন্ত।’’ উল্লেখ্য, সোমবার থেকেই আইপিএলের লোন প্রক্রিয়া চালু হয়েছে। যা জারি থাকবে লিগ পর্ব পর্যন্ত।

আইপিএলের নিয়ম অনুযায়ী, কোনও ক্রিকেটার যদি দু’টোর কম ম্যাচ খেলেন, তা হলে তাঁর পরিবর্তে লোনে ক্রিকেটার নেওয়া যাবে। এমনকি সেই ক্রিকেটার বিপক্ষের হয়ে তাঁর পুরনো দলের বিরুদ্ধে খেলতে পারবেন না। এ বারের আইপিএলে পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে দু’টিতে জিতেছে রাজস্থান রয়্যালস। বৃহস্পতিবার তাদের পরবর্তী ম্যাচ দিল্লিতে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Cricket Ricky Ponting bio bubble
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE