×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ মে ২০২১ ই-পেপার

৪৭ বলে অপরাজিত ৬৯,এক ঢিলে তিন পাখি মারলেন শিখর ধওয়ন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০২ মে ২০২১ ২৩:২৮
ফের একবার অর্ধ শতরানের পর ব্যাট দেখাচ্ছেন শিখর ধওয়ন

ফের একবার অর্ধ শতরানের পর ব্যাট দেখাচ্ছেন শিখর ধওয়ন
ছবি - টুইটার

চলতি আইপিএল-এ শিখর ধওয়নকে যেন আটকে রাখা যাচ্ছে না। ৪৭ বলে ৬৯ রানে অপরাজিত থেকে রবিবার এক ঢিলে যেন তিন পাখি মারলেন গব্বর! তাঁর মারমুখী ব্যাটিংয়ের জন্য দিল্লি ক্যাপিটালস যেমন ৭ উইকেটে পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে জিতল, তেমনই ৮ ম্যাচে ৩৮০ সর্বাধিক রান করে কে এল রাহুল টপকে ফের কমলা টুপির মালিক হলেন এই বাঁহাতি ওপেনার। একই সঙ্গে ১৭.৪ ওভারে ৩ উইকেটে ১৬৭ রান তুলে জিতে লিগ তালিকার শীর্ষে চলে গেল ঋষভ পন্থের দিল্লি।

খেলা শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে পঞ্জাব শিবিরের তরফ থেকে খারাপ খবরটা এসেছিল। অ্যাপেন্ডিসাইটিসে আক্রান্ত হয়ে হঠাৎই হাসপাতালে ভর্তি হতে হল কে এল রাহুলকে। জানা গিয়েছে, পঞ্জাব কিংসের অধিনায়কের অস্ত্রোপচার করা হবে। অর্থাৎ আগামী কয়েকটি ম্যাচে তিনি অনিশ্চিত। যদিও তাঁর বদলে অধিনায়কত্ব করা ময়াঙ্ক আগরওয়াল কিন্তু চাপে ভোগেননি। প্রথমে ব্যাট করে তাঁর দলের বেশির ভাগ ব্যাটসম্যান নিজেদের মেলে ধরতে ব্যার্থ হলেও, একটা দিক আগলে রেখে শেষ পর্যন্ত খেলে গেলেন।

Advertisement

আগুনে বোলিং করে পঞ্জাবের ব্যাটিংয়ে ভাঙন ধরালেন কাগিসো রাবাডা। ছবি - টুইটার।

আগুনে বোলিং করে পঞ্জাবের ব্যাটিংয়ে ভাঙন ধরালেন কাগিসো রাবাডা। ছবি - টুইটার।


৫৮ বলে ৯৯ রানে অপরাজিত রইলেন ময়াঙ্ক। মারলেন ৮টি চার ও ৪টি ছয়। তাঁর বিস্ফোরক ইনিংসের জন্য নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৬৬ রান তুলল পঞ্জাব। প্রথম ইনিংসে ময়াঙ্ক নজর কাড়লে বল হাতে বাইশ গজে আগুন ঝরালেন কাগিসো রাবাডা। ক্রিস গেলকে ফিরিয়ে তিনি ক্ষান্ত থাকেননি। ৩৬ রানে নিলেন ৩ উইকেট। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করেন আবেশ খান ও অক্ষর পটেল।

তবে এতে পঞ্জাব সুবিধা করতে পারল না। পৃথ্বী শ ২২ বলে ৩৯ রানে হরপ্রীত ব্রারের বলে সাজঘরে ফিরলেও দিল্লিকে আটকানো যায়নি। কারণ প্রথম উইকেটে ৬৩ রান যোগ করার পর, দ্বিতীয় উইকেটে স্টিভ স্মিথকে সঙ্গে নিয়ে ৪৮ রান যোগ করে ম্যাচ নিজেদের দখলে নিয়ে চলে আসেন শিখর ধওয়ন। শুধু তাই নয়, শেষ পর্যন্ত ক্রিজে থেকে চলতি আইপিএল-এ দিল্লিকে ফের একবার জয় এনে দিলেন গব্বর। ফলে ৭ উইকেটে জিতে ৮ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে চলে গেল ঋষভ পন্থের দিল্লি।

Advertisement