Advertisement
১৩ জুলাই ২০২৪
ম্যাচের সেরা নারাইন: ১৮ বলে ৩৭ রান, নাইট রাইডার্স জিতল ৮ উইকেটে

শীর্ষে এখন কেকেআর

দশ দাহার-এও স্লোগান পরিবর্তন হয়নি। পঞ্জাবকে হারানোর দিনেও কলকাতার ক্রিকেট জনতার মুখে সেই—করব, লড়ব, জিতব রে।

আউট: মনন ভোরার স্টাম্প ছিটকে দিলেন পীযূষ চাওলা। প্রথমে ব্যাট করে পঞ্জাব তুলল ১৭০। ছবি: বিসিসিআই।

আউট: মনন ভোরার স্টাম্প ছিটকে দিলেন পীযূষ চাওলা। প্রথমে ব্যাট করে পঞ্জাব তুলল ১৭০। ছবি: বিসিসিআই।

দেবাঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৪ এপ্রিল ২০১৭ ০৩:৫৩
Share: Save:

দশ দাহার-এও স্লোগান পরিবর্তন হয়নি। পঞ্জাবকে হারানোর দিনেও কলকাতার ক্রিকেট জনতার মুখে সেই—করব, লড়ব, জিতব রে।

গৌতম গম্ভীর নিয়ে প্রশ্ন করতেই বুধবার বিকেলে কড়া দৃষ্টি হেনে টিম বাসের দিকে এগিয়ে গিয়েছিলেন তিনি।

ম্যাচে যদিও দেখা গেল দুই দিল্লিওয়ালা—ইশান্ত শর্মা ও গৌতম গম্ভীরের দ্বৈরথে শেষ হাসি হাসলেন কেকেআর অধিনায়ক-ই। দুরন্ত ব্যাট করে দলকে আট উইকেটে শুধু জেতালেনই না। ঝকঝকে ৭২ রানের সুবাদে কলকাতা অধিনায়কের মাথায় উঠে এল টুর্নামেন্টের অরেঞ্জ ক্যাপ। আর ঘরের মাঠে এ বারের প্রথম ম্যাচ জেতার দিনেই টেবলের শীর্ষে চলে গেল কলকাতা। গম্ভীর ছুঁয়ে ফেললেন আইপিএল-এ ডেভিড ওয়ার্নারের ৩৩ অর্ধশতরানের রেকর্ডও।

আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৭০ রানে শেষ হয়েছিল কিংগস ইলেভেনের ইনিংস। জবাবে ২১ বল বাকি থাকতেই সুনীল নারাইন ও রবিন উথাপ্পার (২৬) উইকেট হারিয়ে জয়ের রান তুলে নেয় কলকাতা।

অধিনায়কোচিত ইনিংসের জন্যই নয়। গম্ভীর এ দিন নজর কাড়লেন তাঁর অধিনায়কত্বের জন্যও। পিচে সবুজ আভা থাকার জন্য ম্যাচ ফিট সাকিব আল হাসানকে দলে রাখেননি। কিংগস ইলেভেন-কে গতিতে পরাস্ত করতে দলে রেখেছিলেন কলিন দে গ্র্যান্ডহোম এবং উমেশ যাদবকে। আর ইডেনে রাতের দিকে শিশির পড়ার কথা মাথায় রেখে টসে জিতে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন ম্যাক্সওয়েল-দের। তার চেয়েও বড় চমক দিলেন নিজেদের ব্যাট করার সময়। ক্যারিবিয়ান সুনীল নারাইনকে ব্যাট হাতে ওপেন করতে পাঠিয়ে। বল হাতে চার ওভারে ১৯ রানে এক উইকেট এবং ১৮ বলে ঝোড়ো ৩৭ রান করে (চারটে চার এবং তিনটে ছক্কা) করে ম্যাচ সেরা এই ক্যারিবিয়ান-ই।

ইডেনে আইপিএল বোধনের ম্যাচে না ছিলেন শাহরুখ। নববর্ষের দিনে ইডেনে নাইটদের পরের ম্যাচে থাকতে পারেন তিনি। না দেখা গেল প্রীতি জিন্টাকে। ফলে ইডেনে এই প্রথম বীর ও জারার ম্যাচে না দেখা গেল বীর-কে। অনুপস্থিত জারাও। বদলে কলকাতায় আইপিএল শুরুর দিনে ইডেনের হসপিটালিটি বক্সে যাঁকে দেখা গেল তিনি নায়ক নন। খলনায়ক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান চলার সময় ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে হাততালি দিচ্ছিলেন বাবা শক্তি কপূর। যা দেখে বাড়ি যাওয়ার পথে কারও কারও আফশোস ‘‘ইশ্, শাহরুখ এলে...।’’

পঞ্জাবের বঙ্গসন্তান উইকেটকিপার ঋদ্ধিমান সাহা (২৫), অধিনায়ক ম্যাক্সওয়েল (২৫) এবং ডেভিড মিলার (২৮) মিডল অর্ডারে চালিয়ে খেলে দলের রান ১৭০-এ নিয়ে যান।

দু’দলের দুই তারকা মালিক না থাকলেও ম্যাচ শুরুর আগে সন্ধে সাড়ে ছ’টা-য় আইপিএলের সেই বিখ্যাত থিম মিউজিক বেজে উঠতেই শুরু হয়ে গিয়েছিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। যেখানে কোরাসে গাওয়া হল ‘‘হাম হোঙ্গে কামইয়াব’, ‘যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে’। কুড়ি মিনিটের সেই অনুষ্ঠানে মোনালি ঠাকুর ইডেনকে নাচালেন ‘তুনে মারি এন্ট্রিয়া, দিল মে বাজি ঘণ্টিয়া...’’ গেয়ে। নাইটদের সেই ন’বছরের ভিডিও ক্লিপিংস-এ প্রথম অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় কোথায়?

সৌরভ অবশ্য ভিডিওতে না থাকলেও তাঁর একদা সতীর্থ বীরেন্দ্র সহবাগের সঙ্গে ঘণ্টা বাজিয়েই আইপিএলের বোধন করলেন ইডেনে। দশম বছরের প্রথম জয়ে রইলেন সৌরভও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE