Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০২ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

গল্‌ফের মাঠে ফেরার জন্য মুখিয়ে রয়েছি, হাসপাতাল থেকে লিখলেন কপিল

কপিলের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ক্রিকেট মহল এবং তাঁর ভক্তদের মধ্যে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে। হাসপাতাল থেকে তাঁদের বার্তাও দিয়েছেন কপিল।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৪ অক্টোবর ২০২০ ১৪:০৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
হাসপাতালের বেড থেকেই ভক্তদের বার্তা কপিল দেবের। সৌ: টুইটার

হাসপাতালের বেড থেকেই ভক্তদের বার্তা কপিল দেবের। সৌ: টুইটার

Popup Close

সুস্থ হয়ে উঠছেন ভারতের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেব। বৃহস্পতিবার বুকে ব্যথা অনুভব করায় কপিলকে দিল্লির হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই দিনই তাঁর অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ৬১ বছরের ওই প্রাক্তন ক্রিকেটারের অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। তিনি আরোগ্যের পথে।

কপিলের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ক্রিকেট মহল এবং তাঁর ভক্তদের মধ্যে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে।১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্যদের একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ রয়েছে। সেখানে কপিলের এক সতীর্থ লেখেন, ‘ওর সিংহের হৃদয়। ও দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে। কারণ ও অনেক কঠিন সময় বদলে দিতে পেরেছে।’ সেখানে কপিল পাল্টা লেখেন, ‘আমি ভাল আছি এবং সুস্থ রয়েছি। খুব দ্রুত সেরে ওঠার পথে। গলফের ময়দানে ফেরার জন্য মুখিয়ে রয়েছি। আপনারা আমার পরিবার। আপনাদের ধন্যবাদ।’

কিংবদন্তি অলরাউন্ডারের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করে বার্তা দেন প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটারেরা। যার মধ্যে আছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহালি, সচিন তেন্ডুলকর ও ভিভ রিচার্ডস। কোহালির বার্তা, ‘প্রার্থনা করছি আপনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন পাজি।’ সচিন তেন্ডুলকরের টুইট, ‘নিজের খেয়াল রাখুন। আপনার খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য প্রার্থনা করছি পাজি।’ ভিভের বার্তা, ‘বন্ধু তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে যাও। তুমি এক জন চ্যাম্পিয়ন জন। আমরা প্রার্থনা করছি তোমার জন্য। শিঘ্রই দেখা হচ্ছে।’

Advertisement

আরও পড়ুন: ইস্তফা ঘোষণা করে হোয়াট্‌সঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন সৌমিত্র খাঁ, বিজেপি সরগরম

১৯৭৮ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্টে অভিষেক হরিয়ানা হ্যারিকেনের। ১৯৮৩ সালে লর্ডসে ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম চমকপ্রদ ঘটনা ঘটিয়েছিল কপিলের নেতৃত্বাধীন ভারত। মাত্র ১৮৩ রানের পুঁজি নিয়ে সেই সময়ের ভয়ঙ্কর ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথম বার বিশ্বকাপ (প্রুডেনশিয়াল কাপ) জিতেছিল ভারত। ওই টুর্নামেন্টেই জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ১৭৫ রানের ঝকঝকে ইনিংসও খেলেন কপিল। ১৩১টি টেস্টে মোট ৪৩৪টি উইকেট রয়েছে কপিলের ঝুলিতে। ২২৫টি এক দিনের ম্যাচে ২৫৩টি উইকেটও পেয়েছেন তিনি। টেস্টে এই অলরাউন্ডার করেছেন ৫ হাজার ২৫৮ রান। এক দিনের ক্রিকেটে তাঁর রয়েছে ৩ হাজার ৭৮৩ রান।

আরও পড়ুন: লাদাখ পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ জানাল আমেরিকা, চিনের মোকাবিলায় জোটের সওয়াল

দেশের জার্সিতে শুধু ক্রিকেটই নয়, প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক নেমেছেন গলফের মাঠেও। তাঁর অধিনায়কত্বেই প্রথম বিশ্বকাপের স্বাদ পেয়েছিল দেশবাসী। গলফেও ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেছেন কপিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement