Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

কোহালির ধারেকাছেও নেই স্মিথ, ঘোষণা পিটারসেনের

পিটারসেন এও জানিয়েছেন, সচিন তেন্ডুলকরের থেকেও এগিয়ে থাকবেন বর্তমান ভারত অধিনায়ক।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৭ মে ২০২০ ০৩:১০
ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান জানিয়ে দিলেন, এই লড়াইয়ে স্মিথকে অনেক পিছনে ফেলে দিয়েছেন কোহালি—নিজস্ব চিত্র

ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান জানিয়ে দিলেন, এই লড়াইয়ে স্মিথকে অনেক পিছনে ফেলে দিয়েছেন কোহালি—নিজস্ব চিত্র

বিরাট কোহালি না স্টিভ স্মিথ— লড়াইয়ে কে এগিয়ে? এই প্রশ্নের জবাবে অনেকেই অনেক কথা বলেছেন। এ বার মুখ খুললেন কেভিন পিটারসেন। ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান জানিয়ে দিলেন, এই লড়াইয়ে স্মিথকে অনেক পিছনে ফেলে দিয়েছেন কোহালি। পিটারসেন এও জানিয়েছেন, সচিন তেন্ডুলকরের থেকেও এগিয়ে থাকবেন বর্তমান ভারত অধিনায়ক।

ইনস্টাগ্রামে জ়িম্বাবোয়ের প্রাক্তন পেসার পমি বাঙ্গোয়ার সঙ্গে কথোপকথনে পিটারসেন বলেন, ‘‘কোহালি অনেক এগিয়ে থাকবে স্মিথের চেয়ে। ও অদ্ভুত, অবিশ্বাস্য। রান তাড়া করতে নেমে বিরাটের রেকর্ড, প্রচণ্ড চাপ নিয়ে ভারতকে ম্যাচ জেতানোর দক্ষতা, এগুলো মাথায় রেখে বলব, বিরাটের ধারেকাছে আসে না স্মিথ।’’ পরিসংখ্যানে ওয়ান ডে বা টি-টোয়েন্টিতে স্মিথের চেয়ে অনেক এগিয়ে কোহালি। তিন ধরনের ক্রিকেটেই কোহালির ব্যাটিং গড় পঞ্চাশের উপরে। মোট সেঞ্চুরি ৭০টি। একমাত্র টেস্টের ব্যাটিং গড়ে কোহালির (৫৩.৬২) চেয়ে এগিয়ে স্মিথ (৬২.৭৪)।
কেপি-কে এর পরে সচিন এবং কোহালির মধ্যে থেকে সেরা বেছে নিতে বলেন বাঙ্গোয়া। জবাবে পিটারসেন বলেন, ‘‘এখানেও আমি সচিনের চেয়ে বিরাটকে এগিয়ে রাখব। কারণ ওই রান তাড়া করার সময় বিরাটের পরিসংখ্যান। যেটা চমকে দেওয়ার মতো। রান তাড়া করার সময় বিরাটের গড় ৮০। রান তাড়া করে ওর সেঞ্চুরিও প্রচুর।’’ এখানেই শেষ নয়। কেপি আরও বলেন, ‘‘ভারতের হয়ে ধারাবাহিক ভাবে ম্যাচ জেতায় কোহালি। রান তাড়া করতে নেমে কোহালির পরিসংখ্যান অসাধারণ।’’

পিটারসেন এও জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের চেয়ে তাঁর কাছে সব সময় দামি ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা। ‘‘ব্যাট করার সময় আমি এটা সব সময় মাথায় রাখতাম। কী ভাবে খেললাম, সেটা বড় কথা নয়। দেখতাম, আমি কটা ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পেয়েছি আর কটা ম্যাচ ইংল্যান্ড জিতেছে। সেই কাজটাই বিরাট করছে ভারতের জন্য।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement