Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ড্রাম বাদ্যে শুরু কুম্বলে জমানা

অভিনব বৈঠকে ছকা হল রোডম্যাপ

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৪ জুলাই ২০১৬ ০৩:২৯
ভারতীয় ক্রিকেটারদের ‘টিম বন্ডিং’ সেশন। ড্রাম বাজালেন ধোনি, কোহালি, কুম্বলেরা। রয়েছেন বসুন্ধরা দাসও। রবিবার বেঙ্গালুরুতে। ছবি: টুইটার

ভারতীয় ক্রিকেটারদের ‘টিম বন্ডিং’ সেশন। ড্রাম বাজালেন ধোনি, কোহালি, কুম্বলেরা। রয়েছেন বসুন্ধরা দাসও। রবিবার বেঙ্গালুরুতে। ছবি: টুইটার

এ রকম দৃশ্য আগে দেখা যায়নি ভারতীয় ক্রিকেটে।

ফুরফুরে মেজাজে বিরাট হলঘরে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি, বিরাট কোহালি, শিখর ধবনদের সঙ্গে পাশাপাশি বসে ভারতের ‘এ’ টিমের ক্রিকেটাররাও। সঙ্গে আছেন নতুন কোচের কুর্সিতে আসা অনিল কুম্বলে। সিনিয়র-জুনিয়র সবার হাতের সামনে ড্রাম। আর তাতেই অন্য সতীর্থদের সঙ্গে বোল তুলছেন ভারতের টেস্ট ক্যাপ্টেন, ওয়ান ডে ক্যাপ্টেনরা। সঙ্গীতের মৌতাতে ধোনিরা কতটা মেতে ছিলেন তার ছবিও টুইটারে পোস্ট করেছে বিসিসিআই।

কিন্তু ব্যাপারটা কী?

Advertisement

টিম ইন্ডিয়ার ক্রিকেটারদের মানসিক ভাবে আরও চাঙ্গা করতে এই বিশেষ ‘টিম বন্ডিং সেশন’ চালু করলেন অনিল কুম্বলে। সোজা কথায় সঙ্গীতের সুরে ক্রিকেটারদের এক সুতোয় বাঁধার উদ্যোগ।

স্থান বেঙ্গালুরু। সময় রবিবার দুপুর। বলিউড অভিনেত্রী ও সঙ্গীতশিল্পী বসুন্ধরা দাসের ‘ড্রামজ্যাম’ গ্রুপের সঙ্গে কোহালিদের যে সেশনে তৈরি হল অনেক সোনার ফ্রেমও। কোথাও হাসতে হাসতে ড্রাম বাজাচ্ছেন ধোনি, কোথাও গলায় বেগুনি স্কার্ফ ঝুলিয়ে পাশে থাকা ড্রামের দিকে অখণ্ড মনোযোগ নিয়ে তাকিয়ে কোহালি। যেন অপেক্ষা করছেন সময় হলেই কখন ড্রাম নিয়ে মেতে উঠবেন। কোথাও বৈঠকের মাঝেই দুই ক্যাপ্টেন হাসতে হাসতে জড়িয়ে ধরছেন পরস্পরকে। টুকরো টুকরো যে ছবিগুলোর কোলাজে একটা ছবিই ভেসে উঠছে— নতুন ভারতীয় ক্রিকেট পরিবার।

শোনা গেল ধরনের সেশনে শুধু পরস্পরের সঙ্গে যোগাযোগই নয়, সঙ্গে একাত্মতা, চাপ মুক্ত হওয়া, সৃষ্টিশীলতা, ফোকাসও বাড়ে। অবশ্য কুম্বলের চমকের এখানেই শেষ নয়। বিসিসিআই আগেই জানিয়েছিল আসন্ন মরসুমের রোডম্যাপ ঠিক করতে টেস্ট এবং ওয়ান ডে-র দুই ক্যাপ্টেন কোহালি ও ধোনির সঙ্গে ভারতের ‘এ’ টিমের কোচ রাহুল দ্রাবিড়, জাতীয় নির্বাচক সন্দীপ পাটিল, জুনিয়র নির্বাচক কমিটির প্রধান বেঙ্কটেশ প্রসাদ-সহ টিমের সবাইকে নিয়ে বৈঠকে বসবেন। যে অভিনব বৈঠকের পিছনেও ছিলেন কুম্বলে।

ঘরোয়া ক্রিকেট, ভারতীয় ‘এ’দলের সফর, চোট-আঘাত সামলানো, প্লেয়ারদের উপর কতটা চাপ পড়ছে, রিজার্ভ বেঞ্চের শক্তি বাড়ানো এ সব বিষয়ে আলোচনা হয় এই বৈঠকে। বোর্ড প্রেসিডেন্ট অনুরাগ ঠাকুর যা নিয়ে বলেন, ‘‘আইডিয়াটা হল আগামী মরসুমের পথ ঠিক করতে সবাইকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসা। সব পক্ষের মতামত, পরামর্শ শোনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বিসিসিআই। ভারতীয় ক্রিকেটকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে এ ধরনের উদ্যোগ আরও নেওয়া হবে।’’ আর কুম্বলে বলেন, ‘‘আমাদের সবার এখানে জড়ো হওয়ার একটাই উদ্দেশ্য ছিল। আমাদের কাজের সমন্বয়ে ভারতীয় ক্রিকেটকে যতটা সম্ভব এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা। যার জন্য আমাদের সবাইকে একটা ইউনিট হিসেবে কাজ করতে হবে।’’

শোনা যাচ্ছে এই বৈঠকে ঠিক হয়েছে, ফাস্ট বোলারদের নিয়ে একটি ‘পুল’ তৈরি হবে। সামনে দীর্ঘ, কঠিন মরসুমের কথা মাথায় রেখে এই পুল থেকে ফাস্ট বোলারদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ব্যবহার করা হবে। পাশাপাশি বৈঠকের আগে এ দিন ম্যাচ পরিস্থিতি তৈরি করে প্র্যাক্টিসও করেন কোহালিরা।

আরও পড়ুন

Advertisement