Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

চারদিনেই শেষ পুণে টেস্ট, ইনিংস ও ১৩৭ রানে জিতল ভারত, পকেটে সিরিজও

সংবাদ সংস্থা
পুণে ১৩ অক্টোবর ২০১৯ ০৯:৫৬
উচ্ছ্বসিত উমেশরা। ছবি: এএফপি।

উচ্ছ্বসিত উমেশরা। ছবি: এএফপি।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট চারদিনেই জিতল ভারত। বিরাট কোহালির দল ইনিংস ও ১৩৭ রানে জিতে রীতিমতো চুরমার করল প্রোটিয়াদের। একইসঙ্গে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজও ২-০ ফলে পকেটে পুরে ফেলল। রাঁচিতে সিরিজের শেষ টেস্ট ১৯ তারিখ থেকে।

ফলো-অন করে ব্যাট করতে নেমে রীতিমতো ধুঁকছিল প্রোটিয়ারা। চায়ের বিরতিতে ১৭২ রানে সাত উইকেট পড়ে গিয়েছিল সফরকারী দলের। শেষ পর্যন্ত ১৮৯ রানে দাঁড়ি পড়ল তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে। উমেশ য়াদব ও রবীন্দ্র জাডেজা নিলেন তিন উইকেট। রবিচন্দ্রন অশ্বিন নিলেন দুই উইকেট। ইশান্ত শর্মা ও মহম্মদ শামি নিলেন এক উইকেট।

রবিবার সকালে প্রথম ওভারেই সাফল্য পেয়েছিলেন ইশান্ত শর্মা। দ্বিতীয় বলেই এলবিডব্লিউ করেছিলেন এইডেন মারক্রামকে। পরে রিভিউ যদিও দেখাল বল উইকেটে লাগছিল না। পরপর আউট হয়েছিলেন থেউনিস দে ব্রুইন (৮), ফাফ দু’প্লেসি (৫), ডিন এলগার (৪৮)। এর মধ্যে উমেশ যাদবের বলে ব্রুইনকে অসাধারণ ক্যাচে ফেরালেন ঋদ্ধিমান সাহা। দু’প্লেসির ক্যাচও দারুণ ভাবে নিলেন তিনি। তুলে মারতে গিয়ে ক্যাচ দিয়েছিলেন এলগার। দু’প্লেসি ও এলগারের উইকেট নিয়েছিলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। মধ্যাহ্নভোজের বিরতিতে ৭৪ রানে চার উইকেট পড়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার।

Advertisement

লাঞ্চের পরের দু’ঘণ্টার সেশনে তিন উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা। রবীন্দ্র জাডেজাকে মারতে গিয়ে জঘন্য শটে বোল্ড হন কুইন্টন ডি’কক (৫)। জাডেজার বলেই প্রথম স্লিপে বাভুমার (৩৮) দুরন্ত ক্যাচ নেন অজিঙ্ক রাহানে। এরপর মুথুস্বামীকে (৯) ফেরান মহম্মদ শামি। দ্বিতীয় স্লিপে তাঁর ক্যাচ নেন রোহিত শর্মা। ১২৯ রানে সাত উইকেট পড়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। সেখান থেকে ফিলান্ডার (৩৭) ও কেশব মহারাজ (২২) অষ্টম উইকেটে ৫৬ রান যোগ প্রথম ইনিংসের মতোই লড়াই জারি রেখেছিলেন। ফিলান্ডার ও রাবাডাকে ফেরালেন উমেশ। আর জাডেজা নিলেন কেশব মহারাজকে। ১৮৯ রানে দাঁড়ি পড়ল দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসে।

আরও পড়ুন: ঋদ্ধি আমাদের দলের সম্পদ, বলছেন অশ্বিন​

আরও পড়ুন: গ্রেটদের এই রেকর্ডগুলো থেকে ঠিক কতটা দূরে কিং কোহালি​

বিশাখাপত্তনমে প্রথম টেস্ট দাপটে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে রয়েছে ভারত। দ্বিতীয় টেস্টেও টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে পাঁচ উইকেটে ৬০১ রানে ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করেছিল টিম ইন্ডিয়া। বিরাট কোহালির অধিনায়কোচিত অপরাজিত ২৫৪ ও ময়াঙ্ক আগরওয়ালের ১০৮ রানের পাহাড়ে তুলে দিয়েছিল ভারতকে। আর সেই চাপে প্রথম থেকেই হাঁসফাঁস করছিল প্রোটিয়ারা।

প্রথম ইনিংসে এক সময় ৫২ রানে পাঁচ উইকেট পড়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। ১৬২ রানে আট উইকেট হারানোর পর কেশব মহারাজ ও ভার্নন ফিল্যান্ডারের নবম উইকেটে ১০৯ রানের জুটি পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিল ভারতকে। শেষ পর্যন্ত ২৭৫ রানে শেষ হয়েছিল প্রোটিয়াদের প্রথম ইনিংস।রবিচন্দ্রন অশ্বিন নিয়েছিলেন চার উইকেট। উমেশ যাদব নিয়েছিলেন তিন উইকেট। তৃতীয় দিনের শেষে ৩২৬ রানে এগিয়ে ছিল টিম ইন্ডিয়া। সকালে পেসারদের জন্য সাহায্য মজুত থাকবে ভেবেই ফলো অনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। তা ছাড়া রাতে বিশ্রাম পাওয়ায় টানা বল করতেও হয়নি পেসারদের। চারদিনেই টেস্ট শেষ হওয়ায় দেখা গেল ফলো-অনের সিদ্ধান্ত ঠিকই নিয়েছিলেন কোহালি।



আরও পড়ুন

Advertisement