Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

তোমার ব্যাটে রান চাইছি! খোয়াজাকে স্লেজিং ডিকওয়েলার, দেখুন ভিডিয়ো

সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে শ্রীলঙ্কার উইকেটকিপার নিরোশান ডিকওয়েলার সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যান উসমান খোয়াজার কথাবার্তা ধরা পড়েছে স্টাম্প মাই

নিজস্ব প্রতিবেদন
ক্যানবেরা ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১৩:১৮
ডিকওয়েলা-খোয়াজার কথার লড়াই ধরা পড়েছে স্টাম্প মাইক্রোফোনে।

ডিকওয়েলা-খোয়াজার কথার লড়াই ধরা পড়েছে স্টাম্প মাইক্রোফোনে।

ঋষভ পন্থ-টিম পেনের স্লেজিং নিয়ে কিছুদিন আগেই সরগরম ছিল ক্রিকেটমহল। ভারত-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজের পর এ বার শ্রীলঙ্কা-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজেও স্লেজিংয়ের ঘটনা সাড়া ফেলল।

সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে শ্রীলঙ্কার উইকেটকিপার নিরোশান ডিকওয়েলার সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যান উসমান খোয়াজার কথাবার্তা ধরা পড়েছে স্টাম্প মাইক্রোফোনে। সেই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় হয়ে উঠল ভাইরাল। যাতে দেখা যাচ্ছে, খোয়াজাকে তাঁর ফর্ম নিয়ে খোঁচা দিচ্ছেন ডিকওয়েলা। ভারতের বিরুদ্ধে চার টেস্টের সিরিজে ছন্দে ছিলেন না খোয়াজা। গড় ছিল মোটে ২৮.২৮। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টেও রান পাননি তিনি। করেন ১১ রান। চলতি টেস্টের প্রথম ইনিংসে কোনও রান না করেই ফিরেছিলেন বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। এগুলো উল্লেখ করেই মনস্তাত্ত্বিক চাপ বাড়ানোর খেলা শুরু করেন ডিকওয়েলা।

দ্বিতীয় ইনিংসে চার নম্বরে খোয়াজা যখন নেমেছিলেন, তখন দুই উইকেটে ২৫ ছিল স্কোর। সেখান থেকে অস্ট্রেলিয়ার তিন উইকেট পড়ে গিয়েছিল ৩৭ রানে। চতুর্থ উইকেটে ট্র্যাভিস হেডের সঙ্গে জুটিতে ইনিংসে মেরামতে নামেন তিনি। সেই সময়ই উইকেটের পিছন থেকে ডিকওয়েলা মন্তব্য ছুড়ে দেন, “কোনও রান নেই ব্যাটে, কোনও রান নেই ব্যাটে। এই জায়গায় আমি তো মার্শ ভাইদের নামতে দেখতে পাচ্ছি।” জবাবে শ্রীলঙ্কার পেসার কাসুন রাজিথার আঙুলে জড়ানো টেপের প্রসঙ্গ তোলেন খোয়াজা। বলেন, “আমি কিন্তু টেপ খুলতে বলছি না। তা হলে ও আর বল করতে পারবে না।” ডিকওয়েলা তখন পাল্টা বলেন, “তুমি ওর টেপকে এত ভয় পাচ্ছ?” খোয়াজা তখন বলেন, “না, আমি শুধু বলছি স্পোর্টসম্যান সুলভ আচরণ দুই তরফেরই করা উচিত।”

Advertisement



সেঞ্চুরির পর খোয়াজা। ছবি: এএফপি।

ব্যাপারটা এখানে থামেনি। ডিকওয়েলা এরপর পরামর্শের ভঙ্গিতে বলে ওঠেন, “আন্তরিক ভাবেই চাইছি যে তুমি যেন এখানে কিছু রান করো। দল থেকে বাদ পড়ে টিভিতে তোমার দলের খেলা দেখে কষ্ট পাও, এটা চাইছি না।” ঘটনা হল, খোয়াজা এর পরই সত্যিই বড় রান করেন। অপরাজিত থাকেন ১০১ রানে। যাতে ছিল ১৪ বাউন্ডারি। তিন উইকেটে ১৯৬ তুলে ডিক্লেয়ার করে দেয় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ইনিংসে অজিরা এমনিতেই ৩১৯ রানে এগিয়ে ছিল। ফলে, চতুর্থ ইনিংসে জেতার জন্য শ্রীলঙ্কার টার্গেট দাঁড়ায় ৫১৬ রানের। প্রসঙ্গত, প্রথম টেস্টে ইনিংস ও ৪০ রানে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া।


(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)

আরও পড়ুন

Advertisement