Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

রিডিম-আসামোয়া যুগলবন্দিতে লিগের শীর্ষে এখন নর্থইস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৭ অক্টোবর ২০১৯ ০৪:১৫
নায়ক: আসামোয়া (মাঝখানে) নিয়ে সতীর্থদের উৎসব। ছবি: আইএসএল

নায়ক: আসামোয়া (মাঝখানে) নিয়ে সতীর্থদের উৎসব। ছবি: আইএসএল

প্রথম ম্যাচে বেঙ্গালুরু এফসি-র বিরুদ্ধে দুর্দান্ত খেলেও জিততে পারেনি নর্থইস্ট ইউনাইটেড এফসি। শনিবার ঘরের মাঠ গুয়াহাটিতে প্রতিপক্ষ ওড়িশা এফসিকে উড়িয়ে দিয়ে আইএসএল টেবলের শীর্ষ স্থানে উঠে এল বলিউড তারকা জন আব্রাহামের দল।

ওড়িশার বিরুদ্ধে ম্যাচের দু’মিনিটেই গোল করে নর্থইস্টকে এগিয়ে দেন রিডিম লাং। সেই সঙ্গে দলের দ্রুততম গোলদাতা হওয়ার নজিরও গড়লেন ২৪ বছর বয়সি এই উইঙ্গার। শিলংয়ের লাজং এফসি থেকে উত্থান রিডিমের। ২০১৪ সাল থেকে তিনি নর্থইস্টের হয়ে খেলছেন। শনিবার রিডিমের গতি বারবার সমস্যায় ফেলেছে ওড়িশা ডিফেন্ডারদের।

ম্যাচের চব্বিশ ঘণ্টা আগেই নর্থইস্টের ক্রোয়েশিয়ান কোচ রবার্ট জার্নি জানিয়ে দিয়েছিলেন, আক্রমণাত্মক ফুটবলই তাঁর অস্ত্র। শনিবার ম্যাচের শুরু থেকেই তাই আক্রমণের ঝড় তোলেন আসামোয়ারা। তা সত্ত্বেও গতির বিরুদ্ধে ১৩ মিনিটে সমতা ফেরানোর সুযোগ পেয়েছিল ওড়িশা। যদিও গোল করতে ব্যর্থ হন জেরি মাওমিংথাঙ্গা। ৩২ মিনিটে নর্থইস্টের পানাইয়োতিস সামালিদিসের শট বাঁচিয়ে দেন ওড়িশা গোলরক্ষক। তিন মিনিট পরে ফের গোল করার সুযোগ পেয়েছিল ওড়িশা। এ বার কার্লোস দেলগাদোর হেড অবিশ্বাস্য দক্ষতায় শরীর ছুড়ে বাঁচান নর্থইস্টের গোলরক্ষক শুভাশিস রায়চৌধুরী।

Advertisement

প্রথম ম্যাচে গত বারের চ্যাম্পিয়ন বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধেও অসাধারণ খেলেছিলেন বাঙালি গোলরক্ষক। মূলত তাঁর হাতেই শেষ হয়ে গিয়েছিল সুনীল ছেত্রীদের জয়ের আশা। এ দিনও দুর্দান্ত খেললেন শুভাশিস।

আক্রমণ থেকে বল দখলের লড়াই— সব বিভাগে এগিয়ে থাকলেও প্রথমার্ধে এক গোলের বেশি করতে পারেনি নর্থইস্ট। দ্বিতীয়ার্ধেও ছবিটা বদলায়নি। বিপক্ষের আক্রমণের ঝড় থামাতে ৪৬ মিনিটে শুভম ষড়ঙ্গীর পরিবর্তে নন্দকুমার সেকারকে নামান ওড়িশার স্পেনীয় কোচ জোসেপ গোম্বাউ। ৫৭ মিনিটে নন্দকুমার সমতা ফেরানোর সুযোগ পেয়েও ব্যর্থ হন। ৭১ মিনিটে স্বস্তি ফেরে ওড়িশা শিবিরে। গোল করে সমতা ফেরান ফ্রান্সিসকো মার্কোস। যদিও উচ্ছ্বাস দীর্ঘস্থায়ী হয়নি ওড়িশা শিবিরে। ৭৩ মিনিটে রক্ষণের প্রধান ভরসা কার্লোস দেলগাদো লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন। এই ধাক্কা সামলে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি ওড়িশা। ম্যাচ শেষ হওয়ার ছ’মিনিট আগে নর্থইস্টের হয়ে জয়সূচক গোল করেন আসমোয়া।

ঘানার হয়ে চারটি বিশ্বকাপে খেলা আসামোয়া এই মরসুমে প্রথম আইএসএলে খেলছেন। প্রথম ম্যাচে তাঁর সঙ্গে সুনীল ছেত্রীর দ্বৈরথই ছিল ফুটবলপ্রেমীদের কাছে প্রধান আকর্ষণ। দুই তারকাই সেই ম্যাচে গোল করতে পারেননি। শনিবার অবশ্য ভক্তদের হতাশ করেননি আসামোয়া। এ দিনের জয়ের ফলে ২ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে এটিকে-কে টপকে পয়েন্ট টেবলের শীর্ষে উঠে এল নর্থইস্ট। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে যথাক্রমে এটিকে ও এফসি গোয়া।

আরও পড়ুন

Advertisement