Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

আজ যুবভারতীতে দুই তারকার ওপর নজর

স্যাঞ্চো নেই, ক্ষুব্ধ ইংল্যান্ড

দেবাঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়
১৭ অক্টোবর ২০১৭ ০৪:০৭
যুযুধান: জাপানের কিইতো নাকামুরা এবং ইংল্যান্ডের অ্যাঞ্জেল গোমেজ। সোমবার দু’দলের অনুশীলনের বিশেষ মুহূর্ত। ছবি: সুদীপ্ত ভৌমিক

যুযুধান: জাপানের কিইতো নাকামুরা এবং ইংল্যান্ডের অ্যাঞ্জেল গোমেজ। সোমবার দু’দলের অনুশীলনের বিশেষ মুহূর্ত। ছবি: সুদীপ্ত ভৌমিক

সোমবারের পড়ন্ত বিকেলে মুখ কালো করে সাই ক্যাম্পাসে ইংল্যান্ড দলের অনুশীলন দেখতে ঢুকছিলেন ওরা দু’জন। রিকো গোমেজ ও জন ব্রিউস্টার।

প্রথম জন অনূর্ধ্ব-১৭ ইংল্যান্ড দলের মিডফিল্ডার অ্যাঞ্জেল গোমেজ-এর ভাই। এসেছেন ম্যাঞ্চেস্টার থেকে। আর দ্বিতীয় জন ফরোয়ার্ড রিয়ান ব্রিউস্টার-এর দাদা। তিনি আবার এসেছেন লন্ডন থেকে।

গোটা সাই ক্যাম্পাস তখন দেখতে ব্যস্ত ইংল্যান্ড অনুশীলনে স্যাঞ্চো নেমেছেন কি না। পিঠে টোকা মেরে প্রথম খবরটি দিলেন রিকো-ই। বললেন, ‘‘কাকে খুঁজছেন? স্যাঞ্চো? ও ফিরে যাচ্ছে। প্রি-কোয়ার্টারে জাপানের বিরুদ্ধে নেই। কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার জন্য মঙ্গলবার মাদার হাউজ যাব আশীর্বাদ নিতে।’’

Advertisement

মিনিট দশেক পরেই জাপান কোচ ইয়োশিরো মোরিয়ামাকে যখন শুনলেন স্যাঞ্চো নেই, তখন তিনিও বিশ্বাস করলেন না। বললেন, ‘‘কে বলল, ও খেলবে না। হোটেলেই তো ঘুরে বেড়াতে দেখলাম!’’ অবশেষে ঘণ্টাখানেক পরে সাংবাদিক সম্মেলনে এসে পাকা খবরটি থমথমে গলায় দিলেন ইংল্যান্ড কোচ স্টিভ কুপার। বলে দিলেন, ‘‘এই টুর্নামেন্টে স্যাঞ্চোকে পাচ্ছি না। খুবই হতাশ লাগছে। কলকাতার দর্শকরা ওর খেলা উপভোগ করছিলেন। হয়তো ও নিজেও কিছুটা হতাশ। দেশের হয়ে খেলতে চেয়েছিল ও নিজেও।’’

আরও পড়ুন: ছন্দে থাকা ফ্রান্স বনাম ছন্দ খোঁজা তিকি তাকা

চলতি বছরেই বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে মেসির ক্লাব বার্সেলোনায় গিয়েছেন ফরাসি ফুটবলার ওসমান দেম্বেলে। তাঁর সেই সাত নম্বর জার্সির মালিক এখন স্যাঞ্চো। সোমবার রাতেই তিনি কলকাতা ছাড়লেন সাইপ্রাসের উদ্দেশে। যেখানে চলতি সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ রয়েছে বরুসিয়ার।

ক্লাব বনাম দেশ যুদ্ধে হারের পর স্বভাবতই ক্ষুব্ধ ইংল্যান্ড শিবির। ইংল্যান্ড শিবির জোরদার চেষ্টা চালিয়েছিল বরুসিয়াকে অনুরোধ করে স্যাঞ্চোকে রেখে দেওয়ার জন্য। কিন্তু জার্মানির ক্লাবটি সেই অনুরোধে কর্ণপাত করেনি। কোচ কুপার তীর্যক ভাবে বলছেন, ‘‘হয়তো ডর্টমুন্ড ওকে প্রথম দলে খেলাবে। না হলে বিশ্বকাপ থেকে ডেকে নেবে কেন?’’



অতিথি: জাপান কোচের সঙ্গে দেখা করলেন কাতসুমি। নিজস্ব চিত্র

এর পরেই নিজেকে সামলে নেন ইংল্যান্ড কোচ। বলেন, ‘‘বিশেষ কারও জন্য সমস্যা হবে না। আমাদের গোটা দলটাই শক্তিশালী। জাপানের জন্য আমরা তৈরি।’’

অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপের শেষ ষোলোর লড়াইয়ে জাপান কোচ ইয়োশিরো মোরিয়ামার একদা ছাত্র এখন খেলেন কলকাতার ইস্টবেঙ্গলে। সেই কাতসুমি ইউসা এ দিন সন্ধ্যায় চলে গিয়েছিলেন জাপান অনুশীলনে। বাড়ি যাওয়ার পথে বলে গেলেন, ‘‘মোরিয়ামার কোচিংয়ে অনূর্ধ্ব-১৮ টিমে হিরোশিমা সানফ্রেসি-তে খেলেছি। ওঁ আমার কাছে বাবার মতো শ্রদ্ধেয়। নাকামুরা, কুবোর সঙ্গে কথা হল। ওদের বললাম, তোরাই জিতবি। কলকাতা তোদের সমর্থক। ইংল্যান্ডে বড় ক্লাবে খেলা ফুটবলার রয়েছে। কিন্তু জাপানিদের জেদটাই তো সম্বল।’’

জাপানের কোচও বলছেন, ‘‘ইংল্যান্ড খেলোয়াড়দের বাজার দর আমাদের ছেলেদের চেয়ে কুড়ি গুণ বেশি। কিন্তু খেলাটা তো হবে মাঠে। আমাদের হারানোর কিছু নেই। সেরা ফুটবলটা খেলবে ছেলেরা।’’

মঙ্গলবার অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ: ইংল্যান্ড-জাপান (যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন, রাত ৮ টা থেকে)।

আরও পড়ুন

Advertisement