Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

১৫ মাসে আরও ভাল হবে এই দল: শাস্ত্রী

টেস্ট সিরিজে ব্যাটিং ব্যর্থতাতেই প্রথম দু’টি ম্যাচে হেরে সিরিজ হারায় কোহালির ভারত। কিন্তু ওয়ান্ডারার্সের বিপজ্জনক পিচে ব্যাটসম্যানদের দুঃসাহ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ০৪:৩৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
আশাবাদী: এই দল আরও উন্নতি করবে, মত শাস্ত্রীর। ফাইল চিত্র

আশাবাদী: এই দল আরও উন্নতি করবে, মত শাস্ত্রীর। ফাইল চিত্র

Popup Close

দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ হেরে গেলেও বিরাট কোহালির ভারত স্বপ্ন দেখিয়েছে বলে মনে করছেন রবি শাস্ত্রী। সেঞ্চুরিয়নে শেষ ওয়ান ডে ম্যাচ শুরুর আগে ম্যাচ সম্প্রচারকারী চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারতীয় দলের হেড কোচ বলেন, ‘‘বিশেষ করে প্রথম দু’টি টেস্টে হেরে যাওয়ার পরেও যে ভাবে ছেলেরা ফিরে এসে ওয়ান্ডারার্স টেস্ট জেতে এবং তার পরে ওয়ান ডে সিরিজে দাপট দেখাচ্ছে, সেটা বড় এক সাফল্যের কাহিনি হয়ে থাকবে।’’ যোগ করছেন, ‘‘এই টিমে সাহসী চরিত্রের অভাব নেই। সেটাই এই সফরে প্রমাণ হয়ে গিয়েছে।’’

টেস্ট সিরিজে ব্যাটিং ব্যর্থতাতেই প্রথম দু’টি ম্যাচে হেরে সিরিজ হারায় কোহালির ভারত। কিন্তু ওয়ান্ডারার্সের বিপজ্জনক পিচে ব্যাটসম্যানদের দুঃসাহসিক ভঙ্গি কোহালিদের জেতার দিকে এগিয়ে দেয়। সেই সঙ্গে গোটা সিরিজে দারুণ বল করে যাওয়া বোলাররা ফের ২০টি উইকেট তুলে টেস্ট জয় নিশ্চিত করেন। শাস্ত্রী বলছেন, ‘‘ওয়ান্ডারার্সে জয়ের ছোঁয়া ওয়ান ডে সিরিজে নিয়ে যেতে পেরেছে ছেলেরা।’’

সিরিজ আগে জিতে গেলেও এ দিন দলে খুব বেশি পরিবর্তন করেননি কোহালি-রা।শুধু ভুবনেশ্বর কুমারের জায়গায় দলে আসেন শার্দূল ঠাকুর। ওয়ান ডে সিরিজ ৫-১ করার কথা ভাবছেন? জিজ্ঞেস করলে শাস্ত্রীর জবাব, ‘‘আমরা একটা করে ম্যাচ হিসেবে দেখতে চাই। ৫-১ করব নাকি ৪-২, ও রকম ভাবি না। আমরা শুধু নিজেদের কাজটা ঠিক ভাবে করার কথা ভাবি।’’

Advertisement

ক্রিকেটার হিসেবে, ধারাভাষ্যকার হিসেবে বহু বার দক্ষিণ আফ্রিকায় এসেছেন শাস্ত্রী। এ বারে এসেছেন কোচ হিসেবে। বলতে ভুলছেন না, ‘‘দক্ষিণ আফ্রিকা দারুণ দেশ। সব সময় উপভোগ করেছি। এ বারেও প্রথম দুই টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকা ছিল বেশি ভাল দল। কিন্তু আমরাও বলতে পারি, ২৭ ডিসেম্বর যে দলটা এ দেশে নেমেছিল, তার চেয়ে এখন অনেক শক্তিশালী হয়ে উঠেছে ছেলেরা।’’ তার পরেই তাঁর ঘোষণা, ‘‘পনেরো মাসের মধ্যে এই টিমটা আরও ভাল হয়ে যাবে। দক্ষিণ আফ্রিকায় একদম ঠিক বয়সে এসেছে ওরা। দারুণ অভিজ্ঞতা নিয়ে ওরা ফিরবে আর ক্রিকেট কেরিয়ারে অমূল্য হয়ে থাকবে এই সফর থেকে পাওয়া শিক্ষা।’’

পনেরো মাস পরের কথা বলা অবশ্যই বিশ্বকাপের কথা ভেবে। ইংল্যান্ডে আগামী বছর জুনে বসছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসর। এখন থেকেই তা নিয়ে পরিকল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে ভারতীয় দলে। অশ্বিনদের মতো ‘ফিঙ্গার স্পিনার’ বসিয়ে খেলানো হচ্ছে কুলদীপ যাদব ও যুজবেন্দ্র চহালের মতো ‘রিস্ট স্পিনার’-দের। দক্ষিণ আফ্রিকার সমর্থকদেরও প্রশংসা শোনা যায় শাস্ত্রীর মুখে। হেড কোচ বলেন, ‘‘প্রত্যেক মাঠে ভাল ক্রিকেটকে সমর্থন করেছেন দর্শকরা। আমরা যে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ক্রিকেট খেলেছি, তার প্রশংসা করেছে। ওয়ান ডে সিরিজ হয়তো আমরা আগেই জিতে গিয়েছি কিন্তু অনেক মুহূর্তই ছিল যখন দক্ষিণ আফ্রিকা মরিয়া লড়াই করেছে।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement