×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

অদ্ভুত এক রেকর্ড করলেন ওয়াহাব রিয়াজ, দেখুন ভিডিও

সংবাদ সংস্থা
০৯ অক্টোবর ২০১৭ ১৬:৪৩
ওয়াহাব রিয়াজ। ছবি: এপি।

ওয়াহাব রিয়াজ। ছবি: এপি।

ক্রিকেটের বেশির ভাগ রেকর্ড বোলার বা ব্যাটসম্যানদের গর্বিত করে। আনন্দ দেয় দর্শকদেরও। কিন্তু কিছু রেকর্ড আছে, যা ক্রিকেটারদের শুধুমাত্র বিব্রতই করে। পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কার মধ্যে চলা দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনে এমনই এক ঘটনার সাক্ষী থাকল দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম।

আরও পড়ুন: ভারতীয় ক্রিকেটারদের এই ঘড়িগুলোর দাম শুনলে চমকে যাবেন

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপজয়ী মোহিন্দরের মন্ত্র ভারতকে

Advertisement
শ্রীলঙ্কার রান তখন ৪ উইকেটে ৩৩১। ১১১তম ওভারে বোলিং পরিবর্তন করেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। বোলিংয়ে নিয়ে আসা হয় ওয়াহাব রিয়াজকে। ওয়াহাবের প্রথম বলকেই বাউন্ডারি লাইনের বাইরে পাঠান শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকওয়েলা। তবে প্রথম বল বাউন্ডারির বাইরে গেলেও দুরন্ত ভাবে ফিরে আসেন ওয়াহাব। পরের তিন বল ভালই করেন এই পাক পেসার। এর পরই শুরু হয় বিপত্তি। ওভারের চার নম্বর বল করার সময় বারবার রান আপ নিতে থাকেন ওয়াহাব। এক বার দু’বার নয় মোট চার বার রানআপ নিয়েও পঞ্চম বল করতে ব্যর্থ হন পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসার। কোচ মিকি আর্থার থেকে অধিনায়ক সরফরাজ সকলেই বিব্রত দেখায় সেই সময়। হতাশ হয়ে মিকিকে নিজের চেয়ার ছেড়েও উঠে যেতে দেখা যায়। কিছু না বললেও ওয়াহাবের উপর অসন্তুষ্ট হন পাক অধিনায়ককও। অন্য দিকে রান আপের সমস্যায় বিপক্ষ দলের কাছেও হাসির খোরাক হন ওয়াহাব। আওয়াজ ওঠে গ্যালারি থেকেও। হাসতে থাকেন অনফিল্ড আম্পায়াররাও। অবশেষে পাঁচ বারের চেষ্টায় ওভারের পাঁচ নম্বর বলটি করেন রিয়াজ। ওভারের শেষ বলটি করতে অবশ্য সমস্যায় পরতে হয়নি এই পাক পেসারকে। বোলারদের ক্ষেত্রে রানআপ মিস করার ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে। কিন্তু একই বলে পাঁচ বার রান আপ মিসের ঘটনা আজ পর্যন্ত ঘটেনি। অভিনব রেকর্ড করে কি কিছুটা বিব্রত রিয়াজ? তা অবশ্য জানা যায়নি।
অবশেষে পাঁচ বারের চেষ্টায় ওভারের পাঁচ নম্বর বলটি করেন রিয়াজ। ওভারের শেষ বলটি করতে অবশ্য সমস্যায় পরতে হয়নি এই পাক পেসারকে। বোলারদের ক্ষেত্রে রানআপ মিস করার ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে। কিন্তু একই বলে পাঁচ বার রান আপ মিসের ঘটনা আজ পর্যন্ত ঘটেনি। অভিনব রেকর্ড করে কি কিছুটা বিব্রত রিয়াজ? তা অবশ্য জানা যায়নি।
শ্রীলঙ্কার রান তখন ৪ উইকেটে ৩৩১। ১১১তম ওভারে বোলিং পরিবর্তন করেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। বোলিংয়ে নিয়ে আসা হয় ওয়াহাব রিয়াজকে। ওয়াহাবের প্রথম বলকেই বাউন্ডারি লাইনের বাইরে পাঠান শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকওয়েলা। তবে প্রথম বল বাউন্ডারির বাইরে গেলেও দুরন্ত ভাবে ফিরে আসেন ওয়াহাব। পরের তিন বল ভালই করেন এই পাক পেসার। এর পরই শুরু হয় বিপত্তি। ওভারের চার নম্বর বল করার সময় বারবার রান আপ নিতে থাকেন ওয়াহাব। এক বার দু’বার নয় মোট চার বার রানআপ নিয়েও পঞ্চম বল করতে ব্যর্থ হন পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসার। কোচ মিকি আর্থার থেকে অধিনায়ক সরফরাজ সকলেই বিব্রত দেখায় সেই সময়। হতাশ হয়ে মিকিকে নিজের চেয়ার ছেড়েও উঠে যেতে দেখা যায়। কিছু না বললেও ওয়াহাবের উপর অসন্তুষ্ট হন পাক অধিনায়ককও। অন্য দিকে রান আপের সমস্যায় বিপক্ষ দলের কাছেও হাসির খোরাক হন ওয়াহাব। আওয়াজ ওঠে গ্যালারি থেকেও। হাসতে থাকেন অনফিল্ড আম্পায়াররাও।


Tags:
Pakistan Sri Lanka Wahab Riaz Test Match Mickey Arthurওয়াহাব রিয়াজসরফরাজ আহমেদমিকি আর্থার

Advertisement