• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সংক্রমণ-সুস্থতার হারে স্বস্তির রেখা রাজ্যে, মৃত্যু নিয়ে উদ্বেগ বহাল

Coronavirus
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

রাজ্যে করোনা সংক্রমণের প্রবণতায় বড়সড় কোনও পরিবর্তন নেই। নুমনা পরীক্ষার সংখ্যা সামান্য বাড়লেও কমেছে ২৪ ঘণ্টায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা। সুস্থতার হার বৃদ্ধি এবং পজিটিভিটি রেট কম হওয়ায় সদর্থক ইঙ্গিত। ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা কমেছে ৩ জন। সব মিলিয়ে শুক্রবারের বুলেটিন অনুযায়ী কিছুটা স্বস্তি ফিরলেও সতর্কতা বা কোভিড মোকাবিলায় ঢিলে দিতে রাজি নয় রাজ্য প্রশাসন।

এ দিন সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ১৯০ জন। বৃহস্পতিবারের চেয়ে ৬ জন কম। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ৪১ হাজার ৫৯। রাজ্যের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি মানুষ কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন কলকাতায় (৬৯২)। দ্বিতীয় স্থানে উত্তর ২৪ পরগনা। মহানগর লাগোয়া এই জেলায় ২৪ ঘণ্টায় কোভিড পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে ৬৮৫ জনের। বৃহস্পতিবার ছবিটা ছিল বিপরীত।

গত কয়েক দিন রাজ্যে ২৪ ঘণ্টা মৃতের সংখ্যা ৬১-৬২ তে ঘোরাফেরা করছিলল। তবে বৃহস্পতিবারের তুলনায় শুক্রবার ৩ জন কম মারা গিয়েছেন। এ দিনের বুলেটিন অনুযায়ী রাজ্যে মৃতের সংখ্যা ৫৯। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে ৬২ জনের। এই নিয়ে রাজ্যে মোট কোভিডের বলি হলেন ৪ হাজার ৬৬৫ জন। ২৪ ঘণ্টার হিসেবে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনায়, ১৯ জন। কলকাতায় বৃহস্পতিবার ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। শুক্রবার এক ধাক্কায় সেই সংখ্যা অনেকটাই কমেছে (৬)।

আরও পড়ুন: বিরাট-ব্যর্থতায় অনুষ্কাকে দায়ী করেননি, সাফাই গাওস্করের

তবে বৃহস্পতিবারের তুলনায় নমুনা পরীক্ষা বেশি হয়েছে ৩৮৩ জনের। গত কাল টেস্ট হয়েছিল ৪৩ হাজার ৪৩২। স্বাভাবিক ভাবেই কমেছে পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার। প্রতি দিন যত জন রোগীর কোভিড-টেস্ট করা হচ্ছে এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত সংখ্যক রোগীর কোভিড-রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, তাকেই বলা হয় পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার। বৃহস্পতিবারের বুলেটিন অনুযায়ী, সংক্রমণের হার ছিল ৭.৩৬ শতাংশ। শুক্রবার কিছুটা কমে হয়েছে ৭.২৮ শতাংশ।

কোভিড যুদ্ধে বেশ কিছু দিন ধরেই রাজ্য প্রশাসনকে স্বস্তি দিচ্ছে সুস্থতার হার। প্রতি দিন যত সংখ্যক রোগী নতুন আক্রান্ত হচ্ছেন, সুস্থ হওয়ার সংখ্যাও প্রায় কাছাকাছি থাকছে। বৃহস্পতিবারের বুলেটিনে এই সুস্থতার হার ৮৭.৪৬ শতাংশ। শুক্রবার এই হার আরও বেড়ে হয়েছে ৮৭.৫৪ শতাংশ। শুক্রবার চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ২ হাজার ৯৭৮ জন কোভিড আক্রান্ত রোগী। এই নিয়ে রাজ্যে মোট সুস্থ হয়েছেন ২ লক্ষ ১১ হাজার ২০ জন। রাজ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজার ৩৭৪।

আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ কোভিড পরীক্ষা দেশে, সংক্রমণের হার নামল ৫.৭৭ শতাংশে

রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমিত দুই জেলা কলকাতা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার পাশাপাশি কলকাতা লাগোয়া দক্ষিণ ২৪ পরগনা (২৫৭), হাওড়া (১৯৫) এবং হুগলিও (১৭৮) রাজ্য সরকারের কোভিড নিয়ে দুশ্চিন্তার অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে আশার কথা, রাজ্যের আর  কোনও জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ ছাড়ায়নি। পশ্চিম মেদিনীপুরে ৯৯, নদিয়ায় ৯৪, পূর্ব মেদিনীপুরে ৯০, দার্জিলিঙে ৮২ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

• সার্বিক হেল্পলাইন নম্বর: ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২
• টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-২৩৫৭৬০০১
• কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-৪০৯০২৯২৯)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন