রেল নিয়ে তর্ক মোদী-মমতার
শনিবার বালুরঘাটের বুনিয়াদপুরের নির্বাচনী সভায় মোদীর কটাক্ষ, ‘‘দিদি তো রেলমন্ত্রী ছিলেন। কিছু করেছেন? তাঁর সময়ে রেলে বড়বড় কাজ থমকে ছিল।’’
Modi

রেলমন্ত্রী থাকাকালীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বালুরঘাটের জন্য কী করেছেন, তা নিয়ে তাঁর সঙ্গে প্রকাশ্যে চাপান উতোর হল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। প্রধানমন্ত্রীর অভিযোগ, মমতার আমলে এখানে কিছুই হয়নি। পাল্টা প্রতিবাদ করে মমতার মন্তব্য, ‘‘মিথ্যে কথা বলতে এমন ওস্তাদ কোনও লোক আমি আগে কখনও দেখিনি।’’

শনিবার বালুরঘাটের বুনিয়াদপুরের নির্বাচনী সভায় মোদীর কটাক্ষ, ‘‘দিদি তো রেলমন্ত্রী ছিলেন। কিছু করেছেন? তাঁর সময়ে রেলে বড়বড় কাজ থমকে ছিল।’’ বিজেপি-জমানায় বালুরঘাটের জন্য কেন্দ্রীয় বিভিন্ন প্রকল্পের খতিয়ান দিয়ে মোদী দাবি করেন, ‘‘বালুরঘাটে বিমানবন্দরের কাজ চলছে। শীঘ্রই উড়ান শুরু হবে। বালুরঘাটে ৭০০ কিলোমিটার দীর্ঘ রেললাইনের আধুনিকীকরণের কাজ চলছে। বিদ্যুদয়ন হচ্ছে।’’

শুক্রবারই বালুরঘাটের সভায় মমতা বলেছিলেন, তাঁরই প্রচেষ্টায় সেখানে প্রথম রেল প্রকল্পটি চালু হয়েছিল। বালুরঘাট বিমানবন্দরও তাঁর উদ্যোগ বলে দাবি করেছিলেন তিনি। এ দিন মোদী সেই সব প্রকল্প নিজের কৃতিত্ব বলে দাবি করার পরেই নদিয়ার বগুলার সভায় মমতা পাল্টা প্রশ্ন তোলেন, ‘‘তুমি পাঁচ বছরে বাংলার জন্য একটাও রেল দাওনি। লজ্জা করে না! একলাখি-বালুরঘাট মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করে দিয়েছে। যদি না-করে দিয়ে থাকে তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজনীতি করবে না।’’

প্রধানমন্ত্রী কেন সব তথ্য খতিয়ে না দেখে প্রকাশ্যে এ ধরনের অভিযোগ তুলছেন, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন মমতা। তাঁর মন্তব্য, ‘‘কয়েকটা ক্যাডার কানে-কানে বলছে আর আপনি সেই মতো বলছেন! প্রধানমন্ত্রী ক্রস চেক না করে কথা বলছে! ক্রসচেক না করে কথা বললে তার দায় আপনাকেই নিতে হবে। মিথ্যে কথা বলার জন্য।’’ এর পরেই রাজ্যের 

বিভিন্ন প্রান্তের জন্য তাঁর রেলমন্ত্রিত্বে অনুমোদিত প্রকল্পের খতিয়ান দেন তৃণমূল নেত্রী। বলেন, ‘‘এখানে ব্রডগেজ থেকে শুরু করে ডবল লাইন থেকে শুরু করে পাগলাচণ্ডীর ব্রিজ— কে করে দিয়েছিল? মেট্রো রেলের জন্য ২ লক্ষ কোটি টাকার প্রকল্প করে দিয়েছি। হাওড়া-মুন্সেফঘাট, দিঘা-তমলুক রেললাইন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করে দিয়েছে।’’ তাঁর আমলে হওয়া নদিয়ার জন্য প্রকল্পগুলির উল্লেখ করে এর পরে নতুন ট্রেনের তালিকাও দেন প্রাক্তন রেলমন্ত্রী মমতা। 

নির্বাচনী নির্ঘণ্ট

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত